artk
সোমবার, অক্টোবার ২১, ২০১৯ ১২:৪৩   |  ৫,কার্তিক ১৪২৬

স্টাফ রিপোর্টার

শনিবার, সেপ্টেম্বার ২১, ২০১৯ ৬:৫৯

বহুদলীয় গণতন্ত্র হুমকির মুখে: জিএম কাদের

media

“আমরা আনুপাতিক হারে রাজনীতির কথা বলছি। এখন তা করা হচ্ছে না বলে এই দলগুলো বড় দলে এসে মিশে যাচ্ছে। নিজেদের আদর্শ ও এজেন্ডা বিলুপ্ত করে দিয়ে হারিয়ে যাচ্ছে। এতে হুমকির মুখে রয়েছে বহুদলীয় গণতন্ত্র।”

প্রাদেশিক সরকার ও উপজেলা শাসন পদ্ধতি ‘সঠিকভাবে’ চালু না হওয়ায় বাংলাদেশে বহুদলীয় গণতন্ত্র ‘হুমকির মুখে’ রয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান জিএম কাদের।

শনিবার জাতীয় প্রেস ক্লাবে বাংলাদেশ জনতা লীগ আয়োজিত জাতীয় পার্টির প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের স্মরণসভায় তিনি এ মন্তব্য করেন।

স্থানীয় সরকার নির্বাচনগুলোতে আওয়ামী লীগ, বিএনপি ও জাতীয় পার্টির পাশাপাশি অন্য রাজনৈতিক দলগুলোর অংশগ্রহণ থাকলেও তা জাতীয় রাজনীতিতে খুব উল্লেখযোগ্য বলে মনে করেন না জি এম কাদের।

তিনি বলেন, “আজকে ছোট ছোট রাজনীতিক দলগুলোর ভোট হয়ত কোথাও ১ পারসেন্ট, কিন্তু  কাল তো  ৫ পারসেন্ট বা ৪০-৫০ পারসেন্টও হতে পারে। সংসদে তাদের প্রতিনিধিত্ব নিশ্চিত করতে হবে।

“আমরা আনুপাতিক হারে রাজনীতির কথা বলছি। এখন তা করা হচ্ছে না বলে এই দলগুলো বড় দলে এসে মিশে যাচ্ছে। নিজেদের আদর্শ ও এজেন্ডা বিলুপ্ত করে দিয়ে হারিয়ে যাচ্ছে। এতে হুমকির মুখে রয়েছে বহুদলীয় গণতন্ত্র।”

উপজেলা পদ্ধতি ‘সঠিকভাবে’ চালু না হওয়ায় স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের সঙ্গে প্রশাসনের ‘সংঘাত’ তৈরি হচ্ছে বলে এই সভায় মন্তব্য করেন তিনি।

জি এম কাদের বলেন, “উপজেলা পদ্ধতি পূর্ণাঙ্গভাবে চালু করা গেলে, তাতে স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের জবাবদিহিতা আরও নিশ্চিত করা যেত।  এখন ৩০০ বা ৩৫০ আসনে যারা (এমপি) নির্বাচিত হয়ে আসছেন, তাদের অনেকেই স্থানীয় পর্যায়ে তেমন যান না। আবার তারা যখন উপজেলা ও ইউনিয়ন পরিষদের বিষয়ে কথা বলতে বা নাক গলাতে যান, তখন উপজেলা চেয়ারম্যান ও স্থানীয় সরকারি কর্মকর্তাদের সঙ্গে তাদের দ্বন্দ্ব তৈরি হয়।

“এই আমলাতন্ত্র কখনও কখনও রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দের উপরে উঠে যেতে চায়।  উপজেলা নির্বাচন হলেও উপজেলা চেয়ারম্যান ও নির্বাচিত জনপ্রতিনিধিরা চলেন, জেলার ডিসি বা ইউএনওর নির্দেশে।”

প্রাদেশিক সরকার ও উপজেলা পদ্ধতির শাসন ব্যবস্থা চালু করা গেলে দলবাজি ও সন্ত্রাস বন্ধ হয়ে যাবে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

জাতীয় পার্টি তাদের সব আদর্শ বিকিয়ে দিয়ে আওয়ামী লীগের সঙ্গে একীভূত হয়ে গেছে- এমন সমালোচনার জবাবও দেন জি এম কাদের।

“আজকে অনেকে বলছেন, জাতীয় পার্টি সুবিধাবাদী, তারা ক্ষমতার দিকে যায়। তারা বলছে, জাতীয় পার্টির আদর্শ বলতে কিছু নেই। কিন্তু আমরা তো কমিউনিস্ট পার্টি বা জামায়াতে ইসলামী নই, যে আমাদের নির্দিষ্ট আদর্শ বলতে কিছু থাকবে। কমিউনিস্ট পার্টি সমাজতন্ত্রের ভিত্তিতে আর জামায়াতে ইসলামী ধর্মের ভিত্তিতে রাষ্ট্র পরিচালনা করতে চায়।

“তবে আমাদের তেমন কোনো আদর্শ নেই। আমরা কর্মসূচিভিত্তিক রাজনীতি করি। আমাদের কর্মসূচি হল সুশাসনভিত্তিক রাজনীতি প্রতিষ্ঠা। এখন সেটা ক্ষমতার সাথেই হোক বা ক্ষমতার বিপরীতে থেকেই হোক না কেন!”

জাতীয় পার্টির সমালোচকদের উদ্দেশে জি এম কাদের বলেন, “শুধু আমাদের কেন, আওয়ামী লীগ ও বিএনপিরও কোনো ফিক্সড ফর্মুলা বা আদর্শ নেই রাজনীতির।”

দেশে কর্মসংস্থানের সুযোগ না থাকায় তরুণরা অবৈধ পথে বিদেশে পাড়ি জমাচ্ছে বলে মনে করেন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান। বেকার সমস্যা সমাধানে জরুরি ব্যবস্থা নিতেও সরকারের প্রতি অনুরোধ করেন তিনি।

এরশাদকে ‘স্বৈরশাসক’ ও ‘দুর্নীতিবাজ’ বলে সমালোচনা করেন রাজনীতি মহলের অনেকে।

ভাই জি এম কাদের তাদের উদ্দেশে বলেন, “রাজনীতি সব সময় সাদা হয় না। সবার রাজনীতিতেই কিছুটা গোপনীয়তা ব্যবহার করা যায়। এটা রাজনীতিতে খোলামেলা হওয়া উচিৎ ছিল না কখনও। অনেকে বলেন, ৯০ সালে এরশাদের পতন হয়েছিল। তবে আমরা বলছি, তার স্থান পরিবর্তন হয়েছিল কেবল। এটাই বাস্তবতা। তিনি ক্ষমতার গণ্ডি থেকে বেরিয়ে জনগণের মধ্যে চলে গিয়েছিলেন, ঠাঁই করে নিয়েছিলেন জনগণের অন্তরে। এটাই ঐতিহাসিক সত্য।”

বাংলাদেশ জনতা লীগের চেয়ারম্যান শেখ ওসমান গণি বেলালের সভাপতিত্বে এই স্মরণসভায় প্রধান আলোচক ছিলেন বাংলাদেশ ন্যাশনাল কংগ্রেসের সভাপতি শেখ শহিদুজ্জামান।

মেনন প্রমাণ করেছেন বর্তমান সরকার ‘অবৈধ’: রিজভী ভোলায় ফেসবুক আইডি হ্যাক করে গুজব ছড়ানো হয়েছে: শেখ হাসিনা যুবলীগের নেতৃত্বে ৫৫ বছরের বেশি নয় ভোলায় সহিংসতার জের: চট্টগ্রাম হাটহাজারী থানায় মাদরাসাছাত্রদের হামলা যুবলীগ চেয়ারম্যান ওমর ফারুক চৌধুরী বহিষ্কার চেয়ারম্যান ফারুকসহ শীর্ষ পাঁচ নেতা ছাড়াই বৈঠকে যুবলীগ কাশ্মীর সীমান্তে ভারত-পাকিস্তান গোলাগুলি: নিহত ৯ সাগর-রুনি হত্যা মামলার তদন্ত কর্মকর্তাকে হাই কোর্টে তলব ২৩৮ কোটি টাকা সংগ্রহে ওমেরা পেট্রোলিয়ামের রোড শো প্রধানমন্ত্রীর উপহার পাচ্ছে গাল্লিবয় রানা-তবীব পরীক্ষায় জালিয়াতি: সাংসদ বুবলির রেজিস্ট্রেশন বাতিল ভোলায় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে বিজিবি ব্যাচেলরদের জন্য ‘সুপার হোস্টেল বিডি’ ‘ভোলার ঘটনায় ফেসবুক আইডি হ্যাকের সঙ্গে জড়িতদের আটক করা হয়েছে’ দুদকে সাজার হার ৭০ শতাংশে উন্নীত বাংলাদেশ ও ভিয়েতনামের মধ্যে বাণিজ্য বাড়াতে চান প্রধানমন্ত্রী এনটিভির নিবন্ধন বাতিলের দাবি ওলামালীগের মসজিদুল আকসায় আবারও ইহুদিদের হামলা মুশফিকের চ্যাম্পিয়ন রাজশাহীকে উড়িয়ে দিল খুলনা আমার বক্তব্য আংশিক উপস্থাপন করায় বিভ্রান্তি: মেনন খালেদা জিয়াকে দেখতে যাবেন ঐক্যফ্রন্ট নেতারা ডিআইজি বজলুর রশীদ গ্রেপ্তার রোহিতের ডাবল সেঞ্চুরিতে ভারতের রানের পাহাড় শ্রমিক হিসেবে স্বীকৃতি চান হোমবেইজড ওয়ার্কাররা প্রধানমন্ত্রীর সাক্ষাৎ না পেলে কঠোর কর্মসূচি দেবেন শিক্ষকরা সপ্তাহের প্রথমদিনে সূচক উত্থানে পুঁজিবাজার মধুর ক্যান্টিনে ছাত্রদলের ওপর ছাত্রলীগের হামলা, আহত ৫ বাংলাদেশের নির্মিত ফোন সারা বিশ্বে ব্যবহার হবে: জয় ঢাবির ‘ক’ ইউনিটে ভর্তি পরীক্ষার ফল প্রকাশ গণতন্ত্রবিহীন জাতি আত্মমর্যাদাহীন: মাহবুব তালুকদার