artk
মঙ্গলবার, অক্টোবার ১৫, ২০১৯ ৯:২৯   |  ৩০,আশ্বিন ১৪২৬

জেলা সংবাদদাতা

বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বার ১৯, ২০১৯ ১০:৫৪

গোপন কুঠুরিতে ৩৩ লাখ টাকা রেখে মারা গেছেন বিআরটিএর কর্মকর্তা

media

বিআরটিএ সার্কেল ঝিনাইদহের মৃত সহকারী পরিচালক বিলাশ সরকারের ভাড়া বাসার আলমারির ড্রয়ার ও গোপন কুঠুরি ভেঙে পাওয়া গেল নগদ ৩৩ লাখ টাকাসহ ৬টি চেক। গত ১০ সেপ্টেম্বর হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা যান তিনি। 

পুলিশের ধারণা, যানবাহন রেজিস্ট্রেশন ও ড্রাইভিং লাইসেন্স দেয়ার সময় ঘুষ হিসেবে টাকাগুলো অর্জন করেন তিনি। জেলা প্রশাসক সরোজ কুমার নাথের সাহসী পদক্ষেপে ওই টাকা সরকারের কোষাগারে জমা করা হয়েছে।

ঝিনাইদহ জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের একটি সূত্র জানায়, বিআরটিএ সার্কেল ঝিনাইদহের সহকারী পরিচালক বিলাশ সরকারের পরিবার-পরিজন ঢাকায় বসবাস করেন। তিনি একা ভাড়া থাকতেন ঝিনাইদহ জেলা শহরের কলাবাগান এলাকার একটি বাড়িতে। তার মৃত্যুর কয়েকদিন পর পরিবারের দু'জন সদস্যের উপস্থিতিতে তালাবন্ধ কক্ষগুলো খোলা হয়।

একই সঙ্গে ঘরের আলমারির ড্রয়ার ও গোপন কুঠুরির তালা ভাঙ্গা হয়। তল্লাশির পর ১০০০ ও ৫০০ টাকার অনেকগুলো বান্ডেল এবং ৬টি চেক পাওয়া যায়। যেখানে ৩৩ লাখ টাকা পাওয়া যায়।

সূত্রটি আরও জানায়, মৃত বিআরটিএ কর্মকর্তার পরিবারের সদস্যরা টাকাগুলো ব্যাংক থেকে ঋণ হিসেবে নিয়েছিলেন বলে দাবি করেন। তাদের এ বক্তব্য সন্দেহজনক মনে হলে জেলা প্রশাসকের নির্দেশে সব ব্যাংকে খোঁজ নেয়া হয় এবং বিষয়টি ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে অবহিত করা হয়।

বুধবার এ সংক্রান্ত তদন্ত শেষ হয় এবং ধারণা করা হচ্ছে বিপুল অংকের এ টাকা অন্যায়ভাবে অর্জিত হয়েছে। সূত্রমতে আলমারির ড্রয়ার ও গোপন কুঠুরি ভাঙ্গার সময় বিলাশ সরকারের দুই ছেলে তমাল ও দীপ, বিআরটিএ ঝিনাইদহ সার্কেলের সহকারী মোটযান পরিদর্শক ফরহাদ হোসেন, ভোক্তা অধিকারের সহকারী পরিচালক সুচন্দন, জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের ছোট নাজির মুকুল হোসেন উপস্থিত ছিলেন।

এ বিষয়ে জেলা প্রশাসক জানিয়েছেন, উদ্ধার করা টাকাগুলো সরকারি কোষাগারে জমা করা হয়েছে এবং সার্বিক ঘটনা তুলে ধরে একটি প্রতিবেদন সংশ্লিষ্ট বিভাগে প্রেরণ করা হয়েছে।

অন্য আরেকটি সূত্র জানায়, যানবাহন রেজিস্ট্রেশন ও ড্রাইভিং লাইসেন্স দেয়ার সময় অন্যায়ভাবে দালালদের মাধ্যমে প্রতিদিন কয়েক হাজার টাকা অর্জন করতেন বিলাশ সরকার। ধরা পড়ে যাওয়ার ভয়ে ব্যাংক হিসাবে সেই টাকা না রেখে নিজের কাছে রেখে দিতেন তিনি। অভিযোগ উঠেছে তার মৃত্যুর পরে একটি গ্রুপ টাকাগুলো হাতিয়ে নেয়ার চেষ্টা করে আসছিল।

বিভিন্ন ব্যাংকে বিলাশ সরকারের ব্যক্তিগত অ্যাকাউন্ট রয়েছে। জেলা শহরে অবস্থিত ইউনাইটেড কর্মাশিয়াল ব্যাংক (ইউসিবিএল) হিসাবে জমানো ৬ লাখ ৮০ হাজার টাকার খোঁজ পাওয়া গেছে। ঢাকা শহরে ফ্ল্যাট বাড়ি-গাড়িসহ অঢেল সম্পদের মালিক ছিলেন বিলাশ। ঝিনাইদহ জেলা শহরের গোবিন্দপুর এলাকায় জমি ও নির্মাণাধীন ৩ তলা একটি বাড়ি রয়েছে তার।

বিলাশ সরকার ২০১১ সালের ৪ এপ্রিল সহকারী পরিচালক হিসেবে ঝিনাইদহ সার্কেলে যোগদান করেন। ২০১৪ সালের ৩ মার্চ মাগুরা জেলায় নবগঠিত সার্কেলে বদলি হন। ২০১৭ সালে ফের ঝিনাইদহ সার্কেলে যোগদান করেন এবং চলতি মাসের ১০ তারিখে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে যাওয়ার পথে মৃত্যুবরণ করেন তিনি।

চার তলা ভবন থেকে শিশুকে ফেলে দিলেন মা লক্ষ্মীপুরে গুলিতে যুবক নিহত সুন্দরবনে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ৪ জলদস্যু নিহত ভালো লেখক হওয়ার টিপস ইবিতে মধ্যরাতে প্রভোস্টের পদত্যাগ চেয়ে আন্দোলন তুরস্ক সরকারের মন্ত্রী ও কর্মকর্তাদের ওপর মার্কিন নিষেধাজ্ঞা পায়রা তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রে চীনা প্রকৌশলীর মৃত্যু হবিগঞ্জে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ডাকাত সর্দার নিহত কোটচাঁদপুরে ভাইস চেয়ারম্যান পদে বিজয়ী তৃতীয় লিঙ্গের পিংকি কাউয়াদের বের করতে না পারলে অশনিসংকেত ডেকে আনবে: নানক পারমাণবিক বর্জ্য ব্যবস্থাপনায় কোম্পানি গঠনে খসড়া অনুমোদন একসঙ্গে নোবেলজয়ী দম্পতিরা দাবি পূরণের আশ্বাস পেয়ে অটোরিকশা ধর্মঘট স্থগিত যে ৯ খাতে পিছিয়েছে বাংলাদেশ প্রকাশ্যে বৈধ অস্ত্রও প্রদর্শন করা যাবে না সস্ত্রীক নোবেলজয়ী বাঙালি অর্থনীতিবিদ সম্পর্কে যা জানা যাচ্ছে তুর্কি হামলা ঠেকাতে কুর্দিদের সঙ্গে চুক্তি করলেন আসাদ পুঁজিবাজারে ২০০ কোটি টাকা বিনিয়োগ করবে আইসিবি আবরার হত্যাকারীদের সর্বোচ্চ শাস্তি নিশ্চিতের আশ্বাস প্রধানমন্ত্রীর গাজীপুরে ২ মোটরসাইকেল আরোহীর মৃত্যু ঘুষের টাকাসহ পাসপোর্ট অফিসের অফিস সহায়ক গ্রেফতার মুক্তিযোদ্ধা বাবার কবরে বাথরুম! ড. ইউনূসের গ্রেফতারি পরোয়ানা হাইকোর্টে স্থগিত মাত্র ৫ শতাংশ মানুষ উন্নয়নের সুফল পাচ্ছেন: মেনন নাইক্ষ্যংছড়িতে ভোটকেন্দ্রে বিজিবির গুলি, নিহত ১ ছাত্রলীগের কারণে সমগ্র ছাত্র রাজনীতি দায়ী হতে পারে না: রিজভী সৌরভের কাছে দুর্দান্ত ইনিংস চান মমতা পেঁয়াজের বাজার স্বাভাবিক হবে অক্টোবরের শেষে: বাণিজ্যমন্ত্রী অমিতকে স্থায়ী বহিষ্কার করলো ছাত্রলীগ ভারতের সাথে হার বাংলাদেশের মেয়েদের