artk
২৯ কার্তিক ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, মঙ্গলবার ১৩ নভেম্বর ২০১৮, ৯:২৮ পূর্বাহ্ণ

শিরোনাম

‘পাঠাও’কে উকিল নোটিস

স্টাফ রিপোর্টার | নিউজবাংলাদেশ.কম
প্রকাশ: ১৬৩৯ ঘণ্টা, বুধবার ০৭ নভেম্বর ২০১৮ || সর্বশেষ সম্পাদনা: ১৬৪০ ঘণ্টা, বুধবার ০৭ নভেম্বর ২০১৮


‘পাঠাও’কে উকিল নোটিস - জাতীয়

ভাড়া নিয়ে অনিয়মের অভিযোগ এনে অ্যাপসভিত্তিক মোটরবাইক ও কার রাইড সেবা প্রদানকারী কোম্পানি ‘পাঠাও’ কে লিগ্যাল নোটিস পাঠানো হয়েছে।

নির্ধারিত সময়ের নোটিসের জবাব না দিলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে নোটিসে উল্লেখ করা হয়।

পাঠাও লিমিটেড, পাঠাও’র প্রধান নির্বাহী এবং প্রধান প্রযুক্তি কর্মকর্তা বরাবর এ নোটিস পাঠানো হয়। নোটিশে পাঠাও সার্ভিসের ভাড়া কিভাবে নির্ধারণ করা হচ্ছে এবং তা কোন আইন বলে, তা তিন দিনের মধ্যে জানাতে বলা হয়েছে।

বুধবার নোটিসটি পাঠান রাজধানীর পশ্চিম শেওড়াপাড়ার বাসিন্দা মো. আফজাল হোসেনের পক্ষে সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী তানজিম আল ইসলাম।

নোটিসে বলা হয়, আফজাল হোসেন পাঠাও এর বাইক সার্ভিসে যাতায়াতের জন্য বাংলামটর থেকে গন্তব্যস্থল শেওড়াপাড়া নির্ধারণ করলে ডিসকাউন্ট ব্যতীত ভাড়া ১০৫ টাকা প্রদর্শন করে। এটি কনফার্ম করে গন্তব্যস্থলে যাওয়ার পর ১৭৩ টাকা দাবি করে চালক। বাধ্য হয়ে তা পরিশোধ করতে হয়। কিছুদিন পরে ফের এ রকম ঘটনা ঘটে। ১২১ টাকা কনফার্ম করে রোকেয়া সরণি থেকে বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়কে আসলে চালক ১৪৯ টাকা দাবি করে।

এতে বলা হয়, পাঠাও লিমিটেড নিয়মিতভাবে তাদের চালকদের দিয়ে সেবা ব্যবহারকারী যাত্রীদের উপরোক্ত কৌশলে হেনস্থা করে তাদের কাছ থেকে বেআইনিভাবে টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে বলেও অভিযোগ রয়েছে। এমতবস্থায়, নোটিশ প্রাপ্তির তিন দিনের মধ্যে যথাযথ ক্ষতিপূরণ প্রদান করবেন। চালকদের অন্যায় দাবির বিষয়ে পদক্ষেপ নিতে অনুরোধ করা যাচ্ছে।

এছাড়া পাঠাও সার্ভিসের ভাড়া কিভাবে নির্ধারণ করা হচ্ছে এবং তা কোন আইন বলে সেটিও সুস্পষ্টভাবে জানানোর অনুরোধ করা যাচ্ছে বলে নোটিশে উল্লেখ করা হয়।

নিউজবাংলাদেশ.কম/এএইইচকে

নিউজবাংলাদেশ.কমে প্রকাশিত যে কোনও প্রতিবেদন, ছবি, লেখা, রেখাচিত্র, ভিডিও-অডিও ক্লিপ অনুমতি ছাড়া অন্য কোনও মাধ্যমে প্রকাশ, প্রচার করা কপিরাইট আইনে দণ্ডনীয়।
আপনার মন্তব্য