artk
৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, সোমবার ১৯ নভেম্বর ২০১৮, ১:০৭ অপরাহ্ন

শিরোনাম

লাঞ্চের আগেই ৫ উইকেট হারিয়ে বিপদে বাংলাদেশ

স্পোর্টস রিপোর্টার | নিউজবাংলাদেশ.কম
প্রকাশ: ১২১০ ঘণ্টা, মঙ্গলবার ০৬ নভেম্বর ২০১৮ || সর্বশেষ সম্পাদনা: ১৪০১ ঘণ্টা, মঙ্গলবার ০৬ নভেম্বর ২০১৮


লাঞ্চের আগেই ৫ উইকেট হারিয়ে বিপদে বাংলাদেশ - খেলা

সিলেট টেস্টে রেকর্ড গড়ে জয়ের স্বপ্ন নিয়ে মঙ্গলবার চতুর্থ দিন ব্যাট করতে নেমে লাঞ্চের আগেই ৫ উইকেট হারিয়ে হারের পথে বাংলাদেশ। ৩২১ রানের বড় টার্গেটে খেলতে নেমে সূচনাটা ভালোই করেছিল স্বাগতিকরা। এদিন শুরুতে বিনা উইকেটে দলীয় পঞ্চাশ পার করে টাইগাররা।

এরপর লাঞ্চের আগেই একে একে বিদায় নেন লিটন, মুমিনুল, ইমরুল, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ ও শান্ত। টপঅর্ডারের ৫ উইকেট হারিয়ে এখন হারের শঙ্কায় বাংলাদেশ।

এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত লাঞ্চ বিরতিতে ৪৬.৫ ওভারে ৫ উইকেট হারিয়ে বাংলাদেশের সংগ্রহ ১১১ রান। জিততে বাংলাদেশের প্রয়োজন এখনও ২১০ রান। মুশফিকুর রহিম ৩ রান নিয়ে অপরাজিত আছেন।

এদিন সকালে সিকান্দার রাজার বলে ভুল শট খেলতে গিয়ে এলবির ফাঁদে পড়েন ওপেনার লিটন দাশ। ৭৫ বলে ২৩ রান করেন তিনি। এরপর দলীয় ৬৭ রানের মাথায় পেসার কাইল জারভিসের বলে ব্যক্তিগত ৯ রানে বোল্ড হন মুমিনুল হক।

দু-বার জীবন পেয়েও নিজের ইনিংস বড় করতে পারেনি ইমরুল কায়েস। দলীয় ৮৩ রানের মাথায় সিকান্দার রাজার স্পিনে সরাসরি বোল্ড হন এই অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যান। সাজঘরে ফেরার আগেই ১০৩ বলে ৪৩ রান করেন তিনি।

অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদকে ফেরান সিকান্দার রাজা। দলীয় ১০২ রানের মাথায় ব্যক্তিগত ১৬ রানে রাজার বলে ক্যাচ আউট হন তিনি। লাঞ্চের এক মিনিট আগেই ব্যক্তিগত ১৩ রানে সাজঘরে ফেরেন নাজমুল হোসেন শান্ত।

সিলেট টেস্ট জিততে হলে বাংলাদেশকে রেকর্ডই গড়তে হবে। তৃতীয় দিনে টাইগারদের ৩২১ রানের পাহাড়সম টার্গেট ছুঁড়ে দেয় জিম্বাবুয়ে। দিন শেষে বিনা উইকেটে ২৬ রান করায় কিছুটা স্বস্তি পায় স্বাগতিক শিবির।

জিম্বাবুয়ে নিজেদের প্রথম ইনিংসে ২৮২ করার পর বাংলাদেশের প্রথম ইনিংসে ধস নামে। ১৪৩ রানে গুটিয়ে যায় মাহমুদউল্লাহ’র নেতৃত্বে দলটি। পরে সফরকারীরা নিজেদের দ্বিতীয় ইনিংসে ১৮১ রানে অলআউট হয়।

নিউজবাংলাদেশ.কম/এসএস/এমএস

নিউজবাংলাদেশ.কমে প্রকাশিত যে কোনও প্রতিবেদন, ছবি, লেখা, রেখাচিত্র, ভিডিও-অডিও ক্লিপ অনুমতি ছাড়া অন্য কোনও মাধ্যমে প্রকাশ, প্রচার করা কপিরাইট আইনে দণ্ডনীয়।
আপনার মন্তব্য
এই বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত