artk
৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, শনিবার ১৭ নভেম্বর ২০১৮, ৯:২৪ অপরাহ্ন

শিরোনাম

পরিবহন ধর্মঘটে অচল ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়

ইবি সংবাদদাতা | নিউজবাংলাদেশ.কম
প্রকাশ: ১১৫০ ঘণ্টা, রোববার ২৮ অক্টোবর ২০১৮


পরিবহন ধর্মঘটে অচল ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় - শিক্ষাঙ্গন

পরিবহন শ্রমিকদের ডাকা ৪৮ ঘণ্টার ধর্মঘট চলছে সারা দেশে। এতে পরিবহন নির্ভরশীল ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) একাডেমিক ও প্রশাসনিক কার্যক্রম প্রায় অচল হয়ে পড়েছে।

রোববার বিশ্ববিদ্যালয়ের কোন বিভাগে ক্লাস-পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়নি। এমনকি প্রশাসনিক কার্যক্রমও চলেছে অনেকটা ঢিলেঢালা।

সকাল সাড়ে ৮টা ট্রিপে কুষ্টিয়া শহর থেকে পুলিশ প্রহরায় বিশ্ববিদ্যালয়ের নিজস্ব কয়েকটি গাড়ি ক্যাম্পাসে আসলেও ঝিনাইদহ শহর থেকে কোন গাড়ি ছেড়ে আসেনি। পরে বিকেল সাড়ে ট্রিপে গাড়িগুলো আবার পুলিশ প্রহরায় ফিরে যায়।

প্রতিদিনের মতো কুষ্টিয়া থেকে ক্লাস করতে আসা বিশ্ববিদ্যালয়ের কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের শিক্ষার্থী আবু নাসের বলেন, ‘‘আমাদের আজ ক্লাস ও পরীক্ষা হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু উপস্থিতি কম থাকায় ক্লাস-পরীক্ষা কনোটিই অনুষ্ঠিত হয়নি। এছাড়া দুপুরের ট্রিপে ক্যাম্পাসের কোন গাড়ি কুষ্টিয়া ছেড়ে না যাওয়ায় আমাদের অনেক কষ্ট করে ভ্যান গাড়িতে কুষ্টিয়া পৌঁছাতে হয়েছে।’’

এদিকে, পরিবহন ধর্মঘটের কারণে বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিকাংশ শিক্ষক-শিক্ষার্থী ক্যাম্পাসে আসতে না পারায় আজ কোন বিভাগে চূড়ান্ত পরীক্ষা, সাধারণ ক্লাস-পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়নি।

ক্যাম্পাস সরেজমিন ঘুরে অধিকাংশ একাডেমিক ভবনগুলোতে শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের উপস্থিতি তেমন লক্ষ্য করা যায়নি। এছাড়া প্রশাসন ভবনে অফিস সমূহের কার্যক্রমও ছিল ঢিলেঢালা।

বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক (ভারপ্রাপ্ত) এ কে আজাদ এ বিষয়ে জানান, সারা দেশে পরিবহন ধর্মঘট থাকায় রোববার বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের চলামান ১৪টি চূড়ান্ত পরীক্ষা স্থগিত করা হয়েছে।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিবহন প্রশাসক অধ্যাপক ড. আনোয়ার হোসেন বলেন, ‘‘আমাদের বিশ্ববিদ্যালয় পরিবহন নির্ভশীল হওয়া ধর্মঘটে ক্লাস-পরীক্ষা নেয়া সম্ভব হয়নি। তারপরও নিরাপত্তার কথা বিবেচনা করে বিশ্ববিদ্যালয়ের নিজস্ব কিছু গাড়ি ক্যাম্পাসে পাঠানো হয়েছে।”

নিউজবাংলাদেশ.কম/এমএস

নিউজবাংলাদেশ.কমে প্রকাশিত যে কোনও প্রতিবেদন, ছবি, লেখা, রেখাচিত্র, ভিডিও-অডিও ক্লিপ অনুমতি ছাড়া অন্য কোনও মাধ্যমে প্রকাশ, প্রচার করা কপিরাইট আইনে দণ্ডনীয়।
আপনার মন্তব্য