artk
৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, সোমবার ১৯ নভেম্বর ২০১৮, ১২:৪৮ অপরাহ্ন

শিরোনাম

দলীয় কোন্দলে দীপু মনির সভা বাতিল

জেলা সংবাদদাতা | নিউজবাংলাদেশ.কম
প্রকাশ: ২০৩৭ ঘণ্টা, শনিবার ২০ অক্টোবর ২০১৮


দলীয় কোন্দলে দীপু মনির সভা বাতিল - রাজনীতি

দরীয় কোন্দলের মুখে টাঙ্গাইলের গোপালপুরে আওয়ামী লীগের একটি সভা বাতিল করা হয়েছে।

শনিবার আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতা ডা. দীপু মনির ওই জনসভায় উপস্থিত হওয়ার কথা ছিল।

উপজেলা আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের প্রতিবাদ ও আন্দোলনের মুখে এ জনসভা বাতিল করা হয়। উপজেলা আওয়ামী লীগ সূত্রে এ খবর নিশ্চিত হওয়া গেছে।

জানা যায়, উপজেলা ও জেলা আওয়ামী লীগকে পাশ কাটিয়ে টাঙ্গাইল-০২ গোপালপুর-ভূঞাপুর আসনের সাংসদ খন্দকার আসাদুজ্জামান শনিবার গোপালপুর উপজেলার হেমনগর ইউনিয়নের হেমনগর কলেজ মাঠে এ জনসভার আয়োজন করেন। ওই জনসভায় প্রধান অতিথি করা হয় আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক পররাষ্ট্র মন্ত্রী ডা. দীপু মনিকে।

গত বুধবার উপজেলা আওয়ামী লীগের কর্মীসভায় অধিকাংশ নেতাকর্মী অভিযোগ করে, স্থানীয় সাংসদ নিজ পুত্র মশিউজ্জামান রোমেলকে কৌশলে আওয়ামী লীগের একক প্রার্থী হিসাবে ঘোষণা দেওয়ার জন্য ওই জনসভার আয়োজন করেছেন। মনোনয়ন প্রত্যাশী অপর চার প্রার্থীকে সুকৌশলে জনসভা থেকে বাদ দেওয়া হয়।

এদিকে জনসভা বাতিলের দাবিতে স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা-কর্মীরা দুদিন ধরে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করে আসছেন। গত শুক্রবার রাত ১২টা পর্যন্ত সাংসদ পুত্রের বিরুদ্ধে জুতা মিছিল এবং কুশপুত্তলিকা দাহ করা হয়। বেশ কয়েক স্থানে মশিউজ্জামান রোমেলের ব্যানার ফেস্টুন ও তোরণ ভাংচুর করা হয়।

মনোনয়ন প্রত্যাশী এবং গোপালপুর উপজেলা চেয়ারম্যান ইউনুস ইসলাম তালুকদার অভিযোগ করেন, দলকে পাশ কাটিয়ে জনসভা ডাকায় স্থানীয় নেতাকর্মীদের মধ্যে ক্ষোভ দেখা দেয়।

অপর মনোনয়ন প্রত্যাশী এবং জেলা আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক তানভীর হাসান ছোট মনি, জানান, জেলা আওয়ামী লীগকে পাশ কাটিয়ে ডাকা জনসভায় জেলা নেতৃবৃন্দ অংশগ্রহনে অসম্মতি জানিয়েছেন।

মনোনয়ন প্রত্যাশী এবং জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক বীর মুক্তি আশরাফুজ্জামান স্মৃতি জানান, চার মনোনয়ন প্রত্যাশীকে অন্ধকারে রেখে একপেশে জনসভায় কেউ অংশ নিচ্ছে না।

অপর মনোনয়ন প্রত্যাশী কর্ণেল (অবঃ) হারুন অর রশীদ জানান, ডাক্তার দিপু মনির সঙ্গে আজ শনিবার তার যোগাযোগ হয়েছে। উদ্ভুত পরিস্থিতিতে তিনি আজ শনিবারের জনসভায় আসছেন না।

উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি হালিমুজ্জামান তালুকদার জানান, দলীয় সংঘাত এবং অপ্রীতিকর পরিস্থিতি রক্ষার স্বার্থে ডাঃ দিপু মনির পরামর্শে জনসভাটি বাতিল করা হয়েছে।

ওসি হাসান আল মামুন জানান, শান্তিশৃঙ্খলা রক্ষায় বাড়তি নিরাপত্তার ব্যবস্থা নেওয়া হয়। শেষ পর্যন্ত জনসভা বাতিল হওয়ায় পরিবেশ এখন শান্ত।

নিউজবাংলাদেশ.কম/এনডি

নিউজবাংলাদেশ.কমে প্রকাশিত যে কোনও প্রতিবেদন, ছবি, লেখা, রেখাচিত্র, ভিডিও-অডিও ক্লিপ অনুমতি ছাড়া অন্য কোনও মাধ্যমে প্রকাশ, প্রচার করা কপিরাইট আইনে দণ্ডনীয়।
আপনার মন্তব্য