artk
২৯ কার্তিক ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, মঙ্গলবার ১৩ নভেম্বর ২০১৮, ৯:০৫ পূর্বাহ্ণ

শিরোনাম

যে নারীর হাত ধরে #মিটু’র শুরু

বিনোদন ডেস্ক | নিউজবাংলাদেশ.কম
প্রকাশ: ০৯১৫ ঘণ্টা, শনিবার ২০ অক্টোবর ২০১৮


যে নারীর হাত ধরে #মিটু’র শুরু - বিনোদন
ছবি: সংগৃহিত

মিডিয়ার সবখানে এখন #মিটু’র আন্দোলন। হলিউডের পর বলিউড, ক্রীড়া জগত অথবা রাজনৈতিক মহল, কেউই এই আঁচ থেকে রক্ষা পাচ্ছে না।

সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রায়ই শক্তিমান তারকাদের বিরুদ্ধে যৌন হেনস্থার অভিযোগ তুলছেন কেউ না কেউ। কিন্তু এই #মিটু’র নেপথ্যে অর্থাৎ এই আন্দোলনের পথিকৃৎ কে ছিলেন জানেন?

২০০৬ সালে প্রথমবার #মিটু প্রকাশ্যে আসে। তারপর থেকেই এই অভিযান শুরু। আমেরিকার জনপ্রিয় সোশ্যাল অ্যাক্টিভিস্ট তারানা বুর্ক এই আন্দোলন প্রথম শুরু করেন। যৌন হেনস্তা এবং নারীদের বিরুদ্ধে হওয়া অন্যায়ের কথা প্রকাশ্যে তুলে আনার জন্য তিনিই প্রথম উৎসাহিত করতে শুরু করেন সবাইকে। যে মেয়েরা কোনও না কোনও সময় এই যৌন হেনস্তার মুখে পড়েছেন তাদের এই #মিটু’তে সাড়া দেওয়ার অনুপ্রেরণা দেন তিনি।

২০১৭ সালে #মিটু ফের একবার উঠে আসে। হলিউড তাকা এলিসা মিলানো #মিটুকে সঙ্গী করে নারীদের বিরুদ্ধে হওয়া এই হেনস্তায় সরব হয়েছিলেন। তিনি ২০১৭ সালের ১৫ অক্টোবর ট্যুইট করে লিখেছিলেন, যদি আপনিও যৌন অত্যাচচারের শিকার হয়েছেন তাহলে বলুন এবং লিখুন #মিটু।

এরপরেই হলিউড থেকে তা ধীরে ধীরে সারা বিশ্বে ছড়িয়ে পড়তে থাকে। চলতি বছরে ভারতে যেন এক ঝড় হিসেবেই দেখা দিয়েছে এই #মিটু আন্দোলন।

প্রসঙ্গত, #মিটু নামের একটি ডকুমেন্টারি ফিল্মও তৈরি করা হয়েছিল, যেখানে ১৩ বছরের এক নাবালিকা জানিয়েছিল সে কিভাবে যৌন হেনস্তার শিকার হয়েছিল। তারানা বুর্কও এমন হেনস্তার শিকার হয়েছিলেন।

তিনি জানান, ছয় বছর বয়সে তার ওপর যৌন অত্যাচার চলে। প্রতিবেশী একটি ছেলে তাকে ধর্ষণ করেছিল এবং বেশ কয়েক বছর ধরে তার ওপর এই যৌন অত্যাচার হয়েছিল।

নিউজবাংলাদেশ.কম/এমএস

নিউজবাংলাদেশ.কমে প্রকাশিত যে কোনও প্রতিবেদন, ছবি, লেখা, রেখাচিত্র, ভিডিও-অডিও ক্লিপ অনুমতি ছাড়া অন্য কোনও মাধ্যমে প্রকাশ, প্রচার করা কপিরাইট আইনে দণ্ডনীয়।
আপনার মন্তব্য