artk
২৯ কার্তিক ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, মঙ্গলবার ১৩ নভেম্বর ২০১৮, ৮:১৩ পূর্বাহ্ণ

শিরোনাম

যৌন হেনস্তা থেকে বাঁচতেই টমকে বিয়ে করেছিলেন নিকোল

বিনোদন ডেস্ক | নিউজবাংলাদেশ.কম
প্রকাশ: ২১২৮ ঘণ্টা, বুধবার ১৭ অক্টোবর ২০১৮


যৌন হেনস্তা থেকে বাঁচতেই টমকে বিয়ে করেছিলেন নিকোল - বিনোদন

যৌন হয়রানি নিয়ে উত্তাল দুনিয়ার শোবিজ। হলিউড দিয়েই মূলত শোবিজে প্রথম বিস্ফোরণটি ঘটে। অ্যাঞ্জেলিনা জোলি, মনিকা বেলুচিসহ একের পর এক নামি দামী তারকারা নানা ঘটনা সামনে নিয়ে আসেন যৌন হয়রানির।

এবার মুখ খুললেন অস্কারজয়ী অভিনেত্রী নিকোল কিডম্যান। এই হলিউড তারকা বিয়ে করেছেন হার্টথ্রব টম ক্রুজকে। অস্ট্রেলীয় এই অভিনেত্রীর যখন হয়েছিল, টম তখন সুপারস্টার। কিডম্যান একদমই নতুন, বয়সেও বেশ ছোট। সেই বিয়ে হলিউডে তখন বেশ আলোচিত ছিল।

কেন ক্যারিয়ারের শুরুতেই বিয়ে করেছিলেন নিকোল সেই প্রশ্নের উত্তর জানালেন তিনি নিজেই। তিনি বলেন, “যৌন হয়রানি থেকে বাঁচতেই টমকে বিয়ে করেছিলেন তিনি।”

নিকোল বলেন, “ভালোবাসতাম টমকে আমি। কিন্তু বিয়ে করেছি নিজেকে যৌন হয়রানি থেকে বাঁচাতে পারবো বলে। টম ক্রুজ হলিউডের অত্যন্ত শক্তিশালী একজন মানুষ। তার স্ত্রী হিসেবে কোনো প্রযোজক বা নির্মাতা আমার দিকে লোভ করবে না সেটা আমি জানতাম। এবং সত্যি যে, ওই বিয়ে আমাকে যৌন হেনস্তা থেকে দূরে রেখেছে।”

হলিউডে নিন্দিত প্রযোজক হার্ভি ওয়াইনস্টিনসহ অনেক যৌন কেলেঙ্কারির ঘটনা প্রকাশ্যে এসেছে। এগুলো নিকোল তিনি বলেন, “অবশ্যই আমিও মিটু হ্যাশট্যাগ আন্দোলনে শামিল হওয়ার মতো মুহূর্তের সম্মুখীন হয়েছি। তখন আমি খুব ছোট।”

১৯৯০ সালে টম ক্রুজকে বিয়ে করেন নিকোল কিডম্যান। এর কয়েকদিন আগে তারা একসঙ্গে ‘ডেজ অব থান্ডার’ ছবির কাজ শুরু করেন। ২০০১ সালে তাদের বিয়েবিচ্ছেদ হয়। সংসারে দুই সন্তান দত্তক নেন দু’জনে। তারা হলেন ইসাবেলা (২৫) ও কনোর (২৩)।

এরপর ২০০৬ সালে সংগীতশিল্পী কিথ আরবানকে বিয়ে করেন নিকোল কিডম্যান। তাদের সংসারে আছে দুই সন্তান সানডে (১০) ও ফেইথ (৭)।

৫১ বছর বয়সী নিকোল কিডম্যানের ঝুলিতে আছে ‘ম্যুলা রুজ’, ‘দ্য আওয়ার্স’, ‘লায়ন’, ‘দ্য আদারস’, ‘ডেড কাম’-এর মতো ছবি। এ বছরের বড়দিনে মুক্তি পাবে তার নতুন ছবি ‘ডেস্ট্রয়ার’। এতে গোয়েন্দা চরিত্রে দেখা যাবে এই লাস্যময়ীকে।

নিউজবাংলাদেশ.কম/এসজে

নিউজবাংলাদেশ.কমে প্রকাশিত যে কোনও প্রতিবেদন, ছবি, লেখা, রেখাচিত্র, ভিডিও-অডিও ক্লিপ অনুমতি ছাড়া অন্য কোনও মাধ্যমে প্রকাশ, প্রচার করা কপিরাইট আইনে দণ্ডনীয়।
আপনার মন্তব্য