artk
৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, সোমবার ১৯ নভেম্বর ২০১৮, ২:০০ অপরাহ্ন

শিরোনাম

দেশে ফেরার আগেই তফসিল ঘোষণা হবে কিনা সংশয়ে ইসি মাহবুব

স্টাফ রিপোর্টার | নিউজবাংলাদেশ.কম
প্রকাশ: ১৯৫৭ ঘণ্টা, বুধবার ১৭ অক্টোবর ২০১৮ || সর্বশেষ সম্পাদনা: ১৯৫৮ ঘণ্টা, বুধবার ১৭ অক্টোবর ২০১৮


দেশে ফেরার আগেই তফসিল ঘোষণা হবে কিনা সংশয়ে ইসি মাহবুব - জাতীয়

আগামী ২০ অক্টোবর ঢাকা ছাড়ার কথা নির্বাচন কমিশনার মাহবুব তালুকদারের। আর ফেরার কথা আগামী ৩১ অক্টোবর। কিন্তু এর আগেই নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার তারিখ নির্ধারণ হবে কিনা সে বিষয়ে সংশয় প্রকাশ করেছেন নির্বাচন কমিশনের বিরুদ্ধে বাকস্বাধীনতা হরণের অভিযোগ তোলা এই নির্বাচন কমিশনার।

বুধবার বিকেলে রাজধানীর আগারগাঁওয়ের নির্বাচন ভবনের নিজ কার্যালয়ে মাহবুব তালুকদার এসব কথা জানান।

এই সফরের ফলে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদের সঙ্গে নির্বাচন কমিশনের সদস্যদের বৈঠকে থাকা হচ্ছে না তার।

মাহবুব তালুকদার বলেন, ‘রাষ্ট্রপতির সঙ্গে সাক্ষাতের বিষয়ে আগে জানলে আমি সেভাবেই ট্যুরের ব্যবস্থা করতাম। রাষ্ট্রপতির সঙ্গে সাক্ষাতের বিষয়টি আমার টিকিট কাটারও পরে এসেছে। আমি চেষ্টা করব মহামান্য রাষ্ট্রপতির সঙ্গে সাক্ষাতের আগে ফিরতে। না পারলে পরে এসে আমি তাঁর সঙ্গে ব্যক্তিগতভাবে সাক্ষাতের চেষ্টা করব। তবে এর ভেতরে একটি কমিশন সভা আছে যেখানে আমি থাকতে পারব না। ওই দিন তফসিল ঘোষণার তারিখ নির্ধারণ হতে পারে কি না, তা আমি জানি না।’

মাহবুব তালুকদার বলেন, ‘তিন দেশ থেকে মোট আটজন আমরা আমেরিকায় একত্রিত হব। আমার ছেলে কানাডা থেকে আসবে। আমি যাচ্ছি মেয়েকে নিয়ে। সেখানে আমার ভাইও আসবে। পরিবারের সবাই সেখানে একত্রিত হব।’

দেশে ফেরার বিষয়ে এই নির্বাচন কমিশনার বলেন, ‘আমি ৩১ তারিখে দেশে ফিরব। তফসিল ঘোষণার আগেই। তফসিল ঘোষণার পরে তো আমাকে বাংলাদেশে থাকতেই হবে। সেজন্যই আমি এই সময়ে যাচ্ছি। এক মাস আগেই আমি টিকেট কেটে রেখেছি।’

সম্প্রতি নির্বাচন কমিশনের জ্যেষ্ঠ সহকারী সচিব মো. শাহ আলম নির্বাচন কমিশনার মাহবুব তালুকদারের যুক্তরাষ্ট্রে যাওয়ার বিষয়ে একটি আনুষ্ঠানিক চিঠি সংশ্লিষ্ট সব দপ্তরে পাঠিয়েছেন।

চিঠিতে বলা হয়েছে, নির্বাচন কমিশনার মাহবুব তালুকদার আগামী ২০ থেকে ৩০ অক্টোবর যুক্তরাষ্ট্র সফর করবেন। এটা হবে তার ব্যক্তিগত সফর। এ সময় তিনি দেশীয় মুদ্রায় আর্থিক সুবিধা পাবন। থাকবেন মেয়ে আইরিন মাহবুবের কাছে।

এদিকে, গত সোমবার নোট অব ডিসেন্ট (আপত্তি) দিয়ে নির্বাচন কমিশনের ৩৬তম সভা বর্জন করেন মাহবুব তালুকদার। পরে নোট অব ডিসেন্ট দেওয়ার কারণ জানিয়ে তিনি সাংবাদিকদের বলেন, সভায় তার কিছু প্রস্তাবনা রাখার কথা থাকলেও, তাঁকে কথা বলতে দেওয়া হয়নি। তাই, প্রতিবাদ স্বরূপ তিনি সভা বর্জন করেছেন।

এর আগে গত ৩০ আগস্ট গণপ্রতিনিধিত্ব আদেশ (আরপিও) ১৯৭২ সংশোধন নিয়ে নির্বাচন কমিশনের মুলতবি সভা চলাকালে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম) নিয়ে নিজের আপত্তির কথা জানিয়ে তিনি বৈঠক বর্জন করেছিলেন।

এদিকে, মাহবুব তালুকদার প্রকাশ্যে সাংবাদিকদের মাধ্যমে সভা বর্জনের কারণ জানানোয় আজ তাকে পদত্যাগের আহ্বান জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম। তিনি বলেছেন, তার পদটা ছেড়ে দেয়া উচিত।

নিউজবাংলাদেশ.কম/এএইচকে

নিউজবাংলাদেশ.কমে প্রকাশিত যে কোনও প্রতিবেদন, ছবি, লেখা, রেখাচিত্র, ভিডিও-অডিও ক্লিপ অনুমতি ছাড়া অন্য কোনও মাধ্যমে প্রকাশ, প্রচার করা কপিরাইট আইনে দণ্ডনীয়।
আপনার মন্তব্য
এই বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত