artk
৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, শনিবার ১৭ নভেম্বর ২০১৮, ১০:০৪ অপরাহ্ন

শিরোনাম

ঐক্যফ্রন্টে যোগ দিতে ২ শর্ত বি চৌধুরীর

স্টাফ রিপোর্টার | নিউজবাংলাদেশ.কম
প্রকাশ: ২০৫১ ঘণ্টা, শনিবার ১৩ অক্টোবর ২০১৮ || সর্বশেষ সম্পাদনা: ২১০৮ ঘণ্টা, শনিবার ১৩ অক্টোবর ২০১৮


ঐক্যফ্রন্টে যোগ দিতে ২ শর্ত বি চৌধুরীর - রাজনীতি

জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট- এর সঙ্গে সম্পর্ক ছেদ করার ঘোষণা দিয়েছেন বিকল্পধারা বাংলাদেশের সভাপতি ও যুক্তফ্রন্ট চেয়ারম্যান, সাবেক রাষ্ট্রপতি বদরুদ্দোজা চৌধুরী ( বি চৌধুরী)। তিনি বলেন, তাদের দুটি শর্ত পূরণ হলেই ঐক্য প্রক্রিয়ায় যুক্ত হবে বিকল্পধারা। শনিবার সন্ধ্যায় বারিধারায় নিজ বাসভবনে সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন। 

শর্ত দুটি প্রসঙ্গে বদরুদ্দোজা চৌধুরী বলেন, ‘যুদ্ধাপরাধী ও স্বাধীনতাবিরোধীদের সঙ্গে কোনও ঐক্য প্রক্রিয়ায় আমরা যুক্ত হবো না। আমরা ভারসাম্যের রাজনীতি চাই। কোনও একক দলের আধিপত্য চাই না। এ দুটি বিষয়ে আমরা বিএনপির সঙ্গে একমত হতে পারিনি।’ 

প্রসঙ্গত, গত চার-পাঁচ বছরের মধ্যে অন্তত সাত বার একসঙ্গে হাত ধরে জাতীয় ঐক্য গড়ে যুগপৎ আন্দোলন করার ঘোষণা দিয়েছিলেন বিকল্পধারা চেয়ারম্যান বি. চৌধুরী ও গণফোরাম সভাপতি ড. কামাল হোসেন। এজন্য বি. চৌধুরীর নেতৃত্বে যুক্তফ্রন্ট নামে একটি জোটও গঠিত হয়। এরপর গত ২২ সেপ্টেম্বর ড. কামাল হোসেনের ডাকে গুলিস্তানের মহানগর নাট্যমঞ্চে অনুষ্ঠিত জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়ার সমাবেশেও যোগ দেন বি. চৌধুরীসহ বিকল্পধারার নেতারা। ওই বৈঠকে প্রথম বিএনপির মহাসচিবসহ স্থায়ী কমিটির কয়েকজন সিনিয়র নেতা অংম নেন। এরপর ২৫ সেপ্টেম্বর বি.চৌধুরীর বাসায় ঐক্য প্রক্রিয়ার নেতাদের এক বৈঠকে নিজেদের শর্ত উপস্থাপন করে বিকল্পধারা। সেখানে ঐক্য গড়তে দুটি শর্তকে প্রাধান্য দেন বিকল্পধারার যুগ্ম মহাসচিব মাহী বি. চৌধুরী।

এদিকে জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়ায় বিকল্পধারার শর্তের বিষয়ে গত ২৫ সেপ্টেম্বর বাংলা ট্রিবিউনে ‘জামায়াত থাকলে বিএনপিকে ঐক্য প্রক্রিয়ায় চায় না বিকল্প ধারা’ শীর্ষক একটি প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়। ওই প্রতিবেদনে বলা হয়, সাবেক রাষ্ট্রপতি অধ্যাপক একিউএম বদরুদ্দোজা চৌধুরীর বাসায় বিশেষ বৈঠকে মিলিত হন যুক্তফ্রন্ট ও জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়ার নেতারা। বৈঠকে বিকল্পধারার একটি প্রস্তাব তুলে দেওয়া হয় জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়ার নেতাদের হাতে।

এতে দুটি বিষয় বলা হয়েছে, প্রথমত, জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়ায় যুক্ত হতে চাইলে বিএনপিকে জামায়াতের সঙ্গ ছেড়ে আসার ইঙ্গিত দেওয়া হয়। প্রস্তাবে বলা হয়েছে, বিএনপির সঙ্গে ঐক্য চায় বিকল্পধারা। তবে স্বাধীনতাবিরোধী কাউকে শরিক হিসেবে রাখলে দলটির সঙ্গে কোনও ঐক্য হবে না।

দ্বিতীয়ত, জাতীয় সংসদে কোনও একটি দলের একক সংখ্যাগরিষ্ঠতা দেশের জন্য মঙ্গল বয়ে আনে না। সংসদে, মন্ত্রিসভায় এবং প্রধানমন্ত্রী ও রাষ্ট্রপতির মধ্যে ভারসাম্যের রাজনীতির ভিত্তিতেই জাতীয় ঐক্য হতে হবে। এই দাবিকে যারা অগ্রাহ্য করবে তাদের ঐক্য প্রক্রিয়ায় নেওয়া যাবে না।

ওই বৈঠক শেষে বিকল্পধারার যুগ্ম মহাসচিব মাহী বি চৌধুরী সাংবাদিকদের বলেন ‘বিকল্পধারার পক্ষ থেকে আমরা রেজুলেশন নিয়ে জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়ার নেতাদের স্পষ্টভাবে জানিয়ে দিয়েছি, স্বাধীনতাবিরোধী কোনও দল বা ব্যক্তিকে শরিক রাখলে বিএনপিকে জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়ায় সম্পৃক্ত করা যাবে না।’ বিকল্প ধারার প্রস্তাবে রয়েছে, ‘প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষ স্বাধীনতাবিরোধী দল বা ব্যক্তির সঙ্গে কোনও ঐক্য হতে পারে না। শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান প্রতিষ্ঠিত দল হিসেবে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলের (বিএনপি) সঙ্গে আমরা জাতীয় ঐক্য চাই। তবে স্বাধীনতাবিরোধী কোনও দলকে বা ব্যক্তিকে শরিক রাখলে বিএনপিকে জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়ায় সম্পৃক্ত করা যাবে না। স্বাধীনতাবিরোধী দল বা ব্যক্তির সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করার ঘোষণা না দেওয়া পর্যন্ত বিএনপি জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়ার মঞ্চে স্থান পেতে পারে না।’

সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন, মাহবুব আলী, ব্যা‌রিস্টার ওমর ফারুক, হা‌ফিজুর রহমান ঝান্টু, ওবা‌য়েদুর রহমান মৃধা, আসাদুজ্জামান বাচ্চু ও বিএম নিজাম প্রমুখ

নিউজবাংলাদেশ.কম/এসডি

নিউজবাংলাদেশ.কমে প্রকাশিত যে কোনও প্রতিবেদন, ছবি, লেখা, রেখাচিত্র, ভিডিও-অডিও ক্লিপ অনুমতি ছাড়া অন্য কোনও মাধ্যমে প্রকাশ, প্রচার করা কপিরাইট আইনে দণ্ডনীয়।
আপনার মন্তব্য