artk
৩ কার্তিক ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, বৃহস্পতিবার ১৮ অক্টোবর ২০১৮, ১:০০ অপরাহ্ন

শিরোনাম

সাংবাদিক জামাল খাসোগির নিখোঁজের ঘটনা খুবই গুরুতর: ট্রাম্প

বিদেশ ডেস্ক | নিউজবাংলাদেশ.কম
প্রকাশ: ১৪২৪ ঘণ্টা, বৃহস্পতিবার ১১ অক্টোবর ২০১৮


সাংবাদিক জামাল খাসোগির নিখোঁজের ঘটনা খুবই গুরুতর: ট্রাম্প - বিদেশ

কনসুলেটের ভেতর থেকে সাংবাদিক গায়েবকে ‘খুবই গুরুতর ঘটনা’ অ্যাখ্যা দিয়ে এ বিষয়ে রিয়াদের কাছে ‘জবাব চেয়েছেন’ বলেও জানিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

বার্তা সংস্থা রয়টার্স বলছে, খাসোগিকে ঘিরে সৌদি আরব ও তুরস্কের কূটনৈতিক টানাপোড়েনের মধ্যেই ওয়াশিংটন যে রিয়াদের ওপর চাপ বাড়াচ্ছে, ট্রাম্পের বক্তব্যকে তার ইঙ্গিত হিসেবে দেখা হচ্ছে।

ট্রাম্প বলেছেন, তার দেশ তুরস্কের সৌদি কনসুলেটে প্রবেশের পর এক সপ্তাহেরও বেশি সময় ধরে ‘নিখোঁজ’ সাংবাদিক জামাল খাসোগিকে ঘিরে চলা রহস্যের শেষ দেখতে চায়।

সাংবাদিক নিখোঁজকাণ্ডে যুক্তরাষ্ট্র সৌদি রাজপরিবারকে দায়ী ভাবছে কিনা, বুধবার টেলিফোনে ফক্স নিউজ চ্যানেলের করা এমন প্রশ্নের জবাবেও মার্কিন প্রেসিডেন্টের কণ্ঠে ছিল উদ্বেগের সুর। ট্রাম্প বলেন, “তেমনটাই মনে হচ্ছে বলে আপনারা বলতে পারেন, আমরা এটি দেখছি।”

এর আগে ওভাল অফিসে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথোপকথনে রিপাবলিকান এ প্রেসিডেন্ট খাসোগির অন্তর্ধানের বিষয়টি নিয়ে সৌদি নেতৃত্বের সঙ্গে বেশ কয়েকবার কথা হয়েছে বলে জানান।

“আমরা সবকিছু জানতে চেয়েছি। কি ঘটছে তা দেখতে চাই আমরা। যুক্তরাষ্ট্র ও হোয়াইট হাউসের জন্য এটা খুবই গুরুতর পরিস্থিতি, আমরা এর শেষ দেখতে চাই,” বলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট।

ট্রাম্প বলেন, “তাকে ভেতরে ঢুকতে দেখা গেছে, বের হতে দেখা যায়নি। আমরা খুবই গুরুত্ব দিয়ে ব্যাপারটা দেখছি। এটা ভয়াবহ ঘটনা, বাজে পরিস্থিতি। কারও বেলায় এমনটা হতে দিতে পারি না আমরা। না সাংবাদিক, না অন্য কেউ। কারও বেলায়ই না।”

নিজের বিয়ের কাগজপত্র আনতে গত ২ অক্টোবর ইস্তাম্বুলের সৌদি কনসুলেটে বাগদত্তা হেতিস সেনগিজকে নিয়ে যায় সৌদি নাগরিক জামাল খাসোগি। কনসুলেটে প্রবেশের পর থেকে তার আর কোনো খোঁজ নেই।

তুরস্ক বলছে, সৌদি রাজপরিবারের কট্টর সমালোচক খাসোগিকে সম্ভবত কনসুলেটের ভেতরেই হত্যা করা হয়েছে। সৌদি আরব থেকে ২ অক্টোবর তুরস্কে আসা ১৫ সদস্যের একটি দল তাকে হত্যা করে বলে সন্দেহ তুর্কি গোয়েন্দা সংস্থাগুলোর।

রিয়াদ এ অভিযোগ অস্বীকার করে বলেছে, প্রবেশের অল্প সময় পরই কনসুলেট ভবন ছেড়ে গেছেন বছরখানেক ধরে যুক্তরাষ্ট্রে স্বেচ্ছা নির্বাসনে থাকা খাসোগি।

কনসুলেটের নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা তুর্কি পুলিশ কর্মকর্তাদের নিরাপত্তা ক্যামেরায় সৌদি এ সাংবাদিককে কনসুলেট থেকে পায়ে হেঁটে বেরিয়ে যেতে দেখা যায়নি।

খাসোগি যে কনসুলেট ছেড়ে বেরিয়ে গেছেন তার ভিডিও ফুটেজ হাজির করতে বলেছে আঙ্কারা; নাহলে সাংবাদিককে গুম ও হত্যার দায়ে সৌদি আরবকে ‘কঠিন প্রতিক্রিয়ার’ মুখোমুখি হতে হবে বলেও সতর্ক করেছে তারা।

বুধবার সরকারপন্থি একটি তুর্কি দৈনিক সৌদি সন্দেহভাজন ১৫ গুপ্তচরের পরিচয়ও প্রকাশ করে। ঘটনার দিন চারটি ভিন্ন ভিন্ন সময়ে ওই ১৫ জন তুরস্ক ত্যাগ করে।

নিউজবাংলাদেশ.কম/এএইচকে

নিউজবাংলাদেশ.কমে প্রকাশিত যে কোনও প্রতিবেদন, ছবি, লেখা, রেখাচিত্র, ভিডিও-অডিও ক্লিপ অনুমতি ছাড়া অন্য কোনও মাধ্যমে প্রকাশ, প্রচার করা কপিরাইট আইনে দণ্ডনীয়।
আপনার মন্তব্য
এই বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত