artk
৬ কার্তিক ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, সোমবার ২২ অক্টোবর ২০১৮, ১:২২ পূর্বাহ্ণ

শিরোনাম

ড. কামালরা বিএনপিকে পুনর্বাসনের ঠিকাদারি নিয়েছেন: ইনু

স্টাফ রিপোর্টার | নিউজবাংলাদেশ.কম
প্রকাশ: ১৯৪১ ঘণ্টা, শনিবার ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮ || সর্বশেষ সম্পাদনা: ০৯৫৪ ঘণ্টা, রোববার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮


ড. কামালরা বিএনপিকে পুনর্বাসনের ঠিকাদারি নিয়েছেন: ইনু - রাজনীতি

ড. কামাল হোসেনরা বিএনপিকে রাজনীতিতে পুনর্বাসনের ঠিকাদারি নিয়েছেন বলে মন্তব্য করেছেন তথ্যমন্ত্রী ও জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল—জাসদের সভাপতি হাসানুল হক ইনু।

তিনি বলেন, “ড. কামাল হোসেনরা সকল দুষ্কর্মের ঘাঁটি বিএনপিকে রাজনীতিতে পুনর্বাসনের ঠিকাদারি নিয়েছেন। তারা যদি এই ঠিকাদারি বন্ধ না করেন, তাহলে জামায়াত-বিএনপির যে পরিণতি হয়েছে, তাদেরও সেই পরিণতি ভোগ করতে হবে।”

শনিবার দুপুর সাড়ে ১২টায় গাইবান্ধার পলাশবাড়ী উপজেলা শহরের শহীদ মিনার চত্বরে জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল (জাসদ) পলাশবাড়ী উপজেলা শাখা আয়োজিত পথসভায় তিনি এ কথা বলেন।

যুক্তফ্রন্ট-ঐক্যজোটের লোকেরা বিএনপি-জামায়াতের পক্ষে কথা বলছেন মন্তব্য করে তিনি বলেন, “তাদের দাবি মানলে আগামী ২০২৪ সালেও সংসদ নির্বাচন করা সম্ভব হবে না।”

হাসানুল হক ইনু বলেন, “এই মুহূর্তে শেখ হাসিনার বিকল্প নেই। তাই আওয়ামী লীগের সঙ্গে, ১৪ দলের সঙ্গে জাসদ আছে।”

খালেদা জিয়া সম্পর্কে তথ্যমন্ত্রী বলেন, “খালেদা জিয়া পাকিস্তানের কন্যা, তিনি রাজাকারের মা, জঙ্গি ও আগুন সন্ত্রাসীদের আসল মা। তাই বিএনপি-জামায়াতকে ক্ষমতার বাইরে রাখতে হবে। বিএনপি হচ্ছে বাংলাদেশবিরোধী শক্তি। বিএনপি থাকলে আবারও দেশে জঙ্গি-আগুন সন্ত্রাসী উৎপাদন হবে। তাই দেশ থেকে বিএনপিকে বিতাড়িত করতে হবে, তারা রাজনীতির বিষবৃক্ষ।”

পলাশবাড়ী উপজেলা জাসদের সভাপতি নুরুজ্জামান প্রধানের সভাপতিত্ব পথসভায় বক্তব্য দেন জাসদ কেন্দ্রীয় কমিটির সহসভাপতি রেজাউল করিম তানসেন, গাইবান্ধা-৩ (সাদুল্যাপুর-পলাশবাড়ী) আসনে মনোনয়নপ্রত্যাশী জাসদ কেন্দ্রীয় কমিটির বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিবিষয়ক সম্পাদক খাদেমুল ইসলাম, জেলা জাসদের সভাপতি শাহ শরিফুল ইসলাম, সহসভাপতি জিয়াউল হক, সাধারণ সম্পাদক গোলাম মারুফ, জেলা যুবজোটের সাধারণ সম্পাদক সুজন প্রসাদ, মনোহরপুর ইউপি চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান প্রমুখ।

নিউজবাংলাদেশ.কম/এনডি

নিউজবাংলাদেশ.কমে প্রকাশিত যে কোনও প্রতিবেদন, ছবি, লেখা, রেখাচিত্র, ভিডিও-অডিও ক্লিপ অনুমতি ছাড়া অন্য কোনও মাধ্যমে প্রকাশ, প্রচার করা কপিরাইট আইনে দণ্ডনীয়।
আপনার মন্তব্য
এই বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত