artk
৬ কার্তিক ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, সোমবার ২২ অক্টোবর ২০১৮, ১:১৪ পূর্বাহ্ণ

শিরোনাম

শিশু আকিফার মৃত্যু: ২ দিনের রিমান্ডে বাস চালক

কুষ্টিয়া সংবাদদাতা | নিউজবাংলাদেশ.কম
প্রকাশ: ১৩৪৯ ঘণ্টা, বুধবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮ || সর্বশেষ সম্পাদনা: ০৮৪৬ ঘণ্টা, বৃহস্পতিবার ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮


শিশু আকিফার মৃত্যু: ২ দিনের রিমান্ডে বাস চালক - কোর্ট-কাচারি

কুষ্টিয়ায় বাসের ধাক্কায় মায়ের কোল থেকে ছিটকে পড়ে এক বছরের শিশু আকিফা খাতুনের মৃত্যুর ঘটনায় দায়ের করা মামলায় বাসের চালককে দুই দিনের রিমান্ডে নিয়েছে পুলিশ।

বুধবার দুপুর পৌনে ১২টায় কুষ্টিয়া জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিম এম এম মোর্শেদ শুনানি শেষে এই রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

কুষ্টিয়া আদালতের সদর জিআরও শাখা সূত্রে জানা যায়, গত রোববার মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ও কুষ্টিয়া মডেল থানার উপপরিদর্শক সুমন কাদেরী চালক মহিত মিয়াকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পাঁচ দিনের রিমান্ড চেয়ে আবেদন করেন। বুধবার সকালে এ বিষয়ে শুনানি হয়। দীর্ঘ শুনানি শেষে দুই দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত।

কুষ্টিয়া আদালতের জিআরও শাখার উপপরিদর্শক আজাহার আলী এ তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

এর আগে ১২ সেপ্টেম্বর রাত ৮টার দিকে ফরিদপুর জেলার সদর থানার বঙ্গেশ্বরী এলাকা থেকে র‌্যাব-১২, সিপিসি-১ কুষ্টিয়ার একটি আভিযানিক দল চালক মহিত মিয়া ওরফে খোকনকে (৩৫) গ্রেপ্তার করে।

গত ২৮ আগস্ট বেলা সাড়ে ১১টার দিকে আকিফাকে কোলে নিয়ে কুষ্টিয়া শহরের চৌড়হাস মোড় এলাকায় রাস্তা পার হচ্ছিলেন তার মা রিনা খাতুন। এ সময় পেছন থেকে ফয়সাল গঞ্জেরাজ পরিবহনের বাসের ধাক্কায় মায়ের কোল থেকে ছিটকে পড়ে যায় শিশু আকিফা। এর দুইদিন পর ৩০ আগস্ট ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায় শিশুটি।

ঘটনাটি স্থানীয় একটি জুয়েলারি দোকানের সিসি ক্যামেরায় ধরা পড়ে। সেই ভিডিওতে দেখা যায় রাজশাহী থেকে ফরিদপুরের উদ্দেশ্যে ছেড়ে আসা গঞ্জেরাজ পরিবহনের বাসটি রাস্তার পাশে দাঁড় করিয়ে যাত্রী তুলছিলেন চালক। অন্যান্য যানবাহন ওই বাসের পাশ কাটিয়ে সামনে নিয়ে চলে যাচ্ছিল।

এক পর্যায়ে রাস্তার উল্টো দিক থেকে শিশু কোলে আসা এক নারীকে দাঁড়িয়ে থাকা ওই বাসের সামনে দিয়ে পার হতে দেখা যায়। ঠিক তখনই বাসটি চলতে শুরু করে এবং রিনা বেগমকে ধাক্কা দিয়ে চলে যায়।

এ ঘটনায় আকিফার বাবা সবজি ব্যবসায়ী হারুনর রশিদ ফয়সাল গঞ্জেরাজ পরিবহনের চালক খোকন মিয়া, তার সহকারী এবং বাস মালিককে আসামি করে মামলা করেছেন।

নিউজবাংলাদেশ.কম/এফএ

নিউজবাংলাদেশ.কমে প্রকাশিত যে কোনও প্রতিবেদন, ছবি, লেখা, রেখাচিত্র, ভিডিও-অডিও ক্লিপ অনুমতি ছাড়া অন্য কোনও মাধ্যমে প্রকাশ, প্রচার করা কপিরাইট আইনে দণ্ডনীয়।
আপনার মন্তব্য
এই বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত