artk
রোববার, জানুয়ারি ২০, ২০১৯ ১০:৪৫   |  ৭,মাঘ ১৪২৫

স্টাফ রিপোর্টার

সংবাদ ডেস্ক

মঙ্গলবার, জানুয়ারি ১৫, ২০১৯ ৩:৫৮

ওবায়দুল কাদেরকে প্রকাশ্যে ক্ষমা চাইতে বললেন ফখরুল

 69
media

মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর

নির্বাচনে ‘প্রহসন’ ও ‘ভোট ডাকাতির’ অভিযোগে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরকে স্টেডিয়ামে গিয়ে প্রকাশ্যে ক্ষমা চাওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। 

মঙ্গলবার দুপুর ১২টার দিকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন।  তিনি সেখানে চিকিৎসাধীন আহত যুবদল কর্মী ফয়সাল হোসেনকে দেখতে যান।

মির্জা ফখরুল বলেন, “গোটা বাংলাদেশকে আজ হাসপাতালে পরিণত করা হয়েছে। আওয়ামী লীগ দখলদারি সরকার। তারা জোর করে জনগণের সমস্ত আমানত লুণ্ঠন করেছে। প্রতিটি জেলা–উপজেলায় বিরোধী মতবাদের ওপর হামলা করছে। তারাই ফয়সালকে ছুরিকাঘাত করেছে। উন্নত চিকিৎসা না করা হলে ফয়সাল ভালো হবেন না।”

বিএনপির মহাসচিব দাবি করেন, আওয়ামী লীগের হামলার বিষয়গুলো জাতির সামনে উঠে আসছে। তবে তাদের (আওয়ামী লীগ) লজ্জা–শরম বলতে কিছু নেই। তারা মহাবিজয়ের কথা বলছে। অথচ মহাবিজয়ে সারা দেশের মানুষের মুখে কোনো হাসি নেই। 

মির্জা ফখরুল দাবি করেন, স্বাধীনতাযুদ্ধ–পরবর্তী সময়েও আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় থাকার সময় বিরোধী দলের লোকজনের ওপর হামলা চালিয়েছিল, হত্যা করেছিল। অথচ দলটি স্বাধীনতাযুদ্ধে অগ্রণী ভূমিকা পালন করেছিল।

হাসপাতালে মির্জা ফখরুলের সঙ্গে বিএনপি নেতা (একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে যশোর সদর আসনে বিএনপির প্রার্থী ছিলেন) অনিন্দ্য ইসলাম, বিএনপি–সমর্থিত ডক্টরস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ড্যাব) নেতা চিকিৎসক এ জেড এম জাহিদ হোসেনসহ বিএনপি নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

হাসপাতালে চিকিৎসাধীন যুবদল কর্মী ফয়সালের শারীরিক অবস্থা সম্পর্কে অনিন্দ্য ইসলাম প্রথম আলোকে বলেন, ফয়সালের একটাই অপরাধ ছিল, তিনি নির্বাচনের সময় বিএনপির পোস্টার লাগিয়েছিলেন। তাঁর ওপর হামলা করে দুই পায়ে ছুরিকাঘাত করা হয়। ছুরির আঘাত মাংস ভেদ করে সাত-আট ইঞ্চি পর্যন্ত ক্ষত সৃষ্টি করে। তাঁর পা দুটো বাঁচানোই এখন মূল চিন্তা হয়ে দাঁড়িয়েছে।