artk
১ অগ্রহায়ণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, বৃহস্পতিবার ১৫ নভেম্বর ২০১৮, ১২:১৬ অপরাহ্ন

শিরোনাম

আইডিইবির ৩ দিনব্যাপী জাতীয় সম্মেলন শুরু ১৫ সেপ্টেম্বর

স্টাফ রিপোর্টার | নিউজবাংলাদেশ.কম
প্রকাশ: ২১৪৬ ঘণ্টা, বুধবার ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৮ || সর্বশেষ সম্পাদনা: ০৮৩৪ ঘণ্টা, বৃহস্পতিবার ১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮


আইডিইবির ৩ দিনব্যাপী জাতীয় সম্মেলন শুরু ১৫ সেপ্টেম্বর - আই-টেক

ডিপ্লোমা প্রকৌশলীদের সংগঠন ইনস্টিটিউশন অব ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স বাংলাদেশ-আইডিইবি‘র ৩ দিনব্যাপী ২২তম জাতীয় সম্মেলন ও ৪১তম কাউন্সিল অধিবেশন শুরু হচ্ছে আগামী ১৫ সেপ্টেম্বর থেকে। এই সম্মেলন চলবে ১৫ থেকে ১৭ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত। 

আগামী ১৫ সেপ্টেম্বর প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবনে সম্মেলনের উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

‘চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের মোকাবেলায় বিশ্বমানের টিভিইটি (টেকনিকাল ভোকেশনাল এডুকেশন ট্রেনিং)’ প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে এই সম্মেলনে আন্তর্জাতিক সেমিনার ও ইঞ্জিনিয়ারিং ইনোভেশন এক্সপোও থাকছে।

বুধবার এ উপলক্ষে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন ডিপ্লোমা প্রকৗশলীদের এ সংগঠনের নেতারা।

তারা জানান, ৩ দিনব্যাপী সম্মেলনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে রাজনীতি, মুক্তিযুদ্ধ, সমাজসেবা, কারিগরি শিক্ষা ও সংস্কৃতিতে জাতীয় ক্ষেত্রে বিশেষ অবদানের জন্য প্রধানমন্ত্রী তিনজন বিশিষ্ট সদস্য প্রকৌশলীর হাতে আইডিইবি স্বর্ণপদক তুলে দেবেন।

সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের আগামী ১৬ সেপ্টেম্বর ‘সম্মেলন ও ইঞ্জিনিয়ারিং ইনোভেশন এক্সপো-১৮’ এর উদ্বোধন করবেন।

সংবাদ সম্মেলনে আইডিইবির সভাপতি একেএমএ হামিদ বলেন, “যেভাবে প্রযুক্তির উন্নয়ন হচ্ছে তা থেকে নিজেদের গুটিয়ে রাখার সুযোগ নেই। প্রযুক্তি ব্যবহার করেই নিজেদের উন্নয়ন করতে হবে।”

তিনি বলেন, “আগামী ২০২৫ সালের মধ্যে প্রযুক্তির মাধ্যমেই চতুর্থ শিল্প বিল্পব হবে বলে ধারণা করা হচ্ছে। এখন আমাদের শিক্ষা ব্যবস্থা যদি সংস্কার এবং প্রযুক্তি শিক্ষার প্রসার না করা হয় তাহলে আমরা পিছিয়ে পড়বো।”

এসময় তিনি বিভিন্ন দেশের কারিগরি শিক্ষার হার উল্লেখ করেন। তিনি বলেন, আমাদের কারিগরি শিক্ষা অন্তত ৫০শতাংশ না হলে আমরা উন্নত হতে পারবো না।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন আইডিইবির সাধারণ সম্পাদক শামসুর রহমান। তিনি সম্মেলনের বিভিন্ন দিক তুলে ধরে বলেন, কোয়ালিটি এডুকেশন সিস্টেমের জন্য উন্নত দেশে একটি মানদণ্ড আছে। আমরা লিখিত প্রস্তাব (বই) আকারে তা প্রধানমন্ত্রীর কাছে তুলে ধরা হবে।

১৬ সেপ্টেম্বর সন্ধ্যায় ইঞ্জিনিয়ারিং ইনোভেশন এক্সপো’র পদক বিতরণ এবং ইনোভেশন টু এ্যাচিভ এসডিজি এন্ড আইআর ফোর শীর্ষক সেমিনারে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন। এছাড়া এ দিন পৃথক ২টি সেশনে কারিগরি ও বৃত্তিমূলক শিক্ষার উপর গোলটেবিল আলোচনা ও নীতিনির্ধারণী সভা অনুষ্ঠিত হবে। এ সকল সেশনে কারিগরি ও বৃত্তিমূলক শিক্ষা, এসডিজি অর্জন, ২০২১ সালে মধ্যম ও ২০৪১ সালের উন্নত সমৃদ্ধ বাংলাদেশ বাস্তবায়ন ও ৪র্থ শিল্প বিল্পবের চ্যালেঞ্জ মোকাবেলার করণীয় বিষয়সহ সদস্য প্রকৌশলীদের পেশাগত বিষয়ে আলোচনা ও সুপারিশ করা হবে।

সম্মেলনের সমাপনী অধিবেশন ১৭ সেপ্টেম্বর বিকেলে আইডিইবি ভবনে অনুষ্ঠিত হবে। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বিরোধীদলীয় নেতা রওশন এরশাদ এমপি। ১৫টি কর্মঅধিবেশনে বিভক্ত সম্মেলনের আনুষ্ঠানিক কার্যক্রম শুরু হবে ১৪ সেপ্টেম্বর প্লেনারি সেশনের মাধ্যমে।

যুক্তরাজ্য, যুক্তরাষ্ট্র, অস্ট্রেলিয়া, কানাডা, মধ্যপ্রাচ্য ও সার্কভুক্ত দেশগুলোর আমন্ত্রিত কারিগরি শিক্ষা বিশেষজ্ঞ ছাড়াও ডিপ্লোমা প্রকৌশলীদের প্রতিনিধিগণ অংশগ্রহণ করবেন।

আইডিবির কেন্দ্রীয় সহসভাপতি এ কে এম আব্দুল মোতালেব, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ফজলুর রহমান খান ও আব্দুন নুমান সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন।

নিউজবাংলাদেশ.কম/এএইচকে

নিউজবাংলাদেশ.কমে প্রকাশিত যে কোনও প্রতিবেদন, ছবি, লেখা, রেখাচিত্র, ভিডিও-অডিও ক্লিপ অনুমতি ছাড়া অন্য কোনও মাধ্যমে প্রকাশ, প্রচার করা কপিরাইট আইনে দণ্ডনীয়।
আপনার মন্তব্য