artk
মঙ্গলবার, জানুয়ারি ২২, ২০১৯ ১২:৫০   |  ৮,মাঘ ১৪২৫
সোমবার, জানুয়ারি ৭, ২০১৯ ৪:৫২

খালেদা জিয়ার সঙ্গে কাউকে দেখা করতে দেয়া হচ্ছে না: রিজভী

স্টাফ রিপোর্টার
media

রুহুল কবির রিজভী: ফাইল ফটো

দলের চেয়ারপারসন কারাবন্দী খালেদা জিয়ার সঙ্গে তিন সপ্তাহের বেশি সময় ধরে আত্মীয়–স্বজনসহ কাউকে দেখা করতে দেয়া হচ্ছে না। দেখা করার জন্য বারবার আবেদন করার পরও কারা কর্তৃপক্ষ কোনো সাড়া দেয়নি

দলের চেয়ারপারসন কারাবন্দী খালেদা জিয়ার সঙ্গে তিন সপ্তাহের বেশি সময় ধরে আত্মীয়–স্বজনসহ কাউকে দেখা করতে দেয়া হচ্ছে না। দেখা করার জন্য বারবার আবেদন করার পরও কারা কর্তৃপক্ষ কোনো সাড়া দেয়নি। 

সোমবার রাজধানীর নয়াপল্টনে দলের প্রধান কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এমন অভিযোগ করেন বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। 

বিএনপির নেতা রিজভী অভিযোগ করে আরও বলেন, বিএনপি চেয়ারপারসনের একান্ত সচিব আত্মীয়স্বজন ও দলের জ্যেষ্ঠ নেতারা সাক্ষাতের জন্য বারবার আবেদন করার পরেও কারা কর্তৃপক্ষ তাতে কোনো কর্ণপাতই করেনি। কারাবিধি অনুযায়ী ৭ দিন পর পর বন্দীদের সঙ্গে সাক্ষাতের নিয়ম। অথচ খালেদা জিয়ার ক্ষেত্রে এই বিধান করা হলো ১৫ দিন পর পর। এখন সেই ১৫ দিনের বিধানকেও সরকারের নির্দেশে কারাকর্তৃপক্ষ অগ্রাহ্য করছে। খালেদা জিয়ার সঙ্গে তাঁর নিকটাত্মীয়দের দেখা করতে না দেওয়াটা রীতিমতো কঠিন মানসিক নির্যাতন বলে মন্তব্য করেন রিজভী।

তিনি বলেন, ‘প্রায় ২১ দিন চলে গেলেও বিএনপি চেয়ারপারসন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়ার সঙ্গে তার নিকটাত্মীয়দের দেখা করতে দেয়া হচ্ছে না। বন্দীদের যে আইনসম্মত অধিকার তা থেকেও বঞ্চিত করা হচ্ছে খালেদা জিয়াকে।’

সংসদ নির্বাচনের পর দলের নেতা-কর্মীদের বিরুদ্ধে ‘মিথ্যা মামলা’ করা হচ্ছে বলে অভিযোগ করেন রিজভী। 

তিনি বলেন, গত পরশু (শনিবার) ‘মিথ্যে মামলায়’ হাজিরা দিতে গেলে কক্সবাজারের কুতুবদিয়া উপজেলা বিএনপির সভাপতি জালাল আহমদসহ ১৪ জনের জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। এ ছাড়া বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির সমবায় বিষয়ক সম্পাদক ও হবিগঞ্জ জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক জি কে গউছকে প্রধান আসামি করে ১২০০ জনের বিরুদ্ধে আবারও চারটি মিথ্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে বলে অভিযোগ করেন এই বিএনপি নেতা।

নিউজবাংলাদেশ.কম/এএইচকে