artk
১ অগ্রহায়ণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, বৃহস্পতিবার ১৫ নভেম্বর ২০১৮, ১২:৪৬ অপরাহ্ন

শিরোনাম

শামসুর রাহমানের ১২তম মৃত্যুবার্ষিকী শুক্রবার

শিল্প-সাহিত্য ডেস্ক | নিউজবাংলাদেশ.কম
প্রকাশ: ০৯৩৫ ঘণ্টা, শুক্রবার ১৭ আগস্ট ২০১৮ || সর্বশেষ সম্পাদনা: ১৪২২ ঘণ্টা, শুক্রবার ১৭ আগস্ট ২০১৮


শামসুর রাহমানের ১২তম মৃত্যুবার্ষিকী শুক্রবার - শিল্প-সাহিত্য

আধুনিক বাংলা কবিতার বরপুত্র কবি শামসুর রাহমানের ১২তম মৃত্যুবার্ষিকী শুক্রবার।

২০০৬ সালের ১৭ আগস্ট পরপারে পাড়ি জমান খ্যাতিমান এ কবি। তাকে নাগরিক কবিও বলা হয়। বাংলাদেশের স্বাধীনতা সংগ্রামের ওপর তার লেখা কবিতা ‘স্বাধীনতা তুমি’ এবং ‘তোমাকে পাওয়ার জন্য, হে স্বাধীনতা’ অত্যন্ত জনপ্রিয়।

শামসুর রাহমানের জন্ম ১৯২৯ সালের ২৩ অক্টোবর ঢাকার মাহুতটুলীতে, নানাবাড়িতে। কবির পৈতৃক বাড়ি নরসিংদী জেলার রায়পুরার পাড়াতলী গ্রামে। তার লেখা ‘বর্ণমালা’, ‘আমার দুখিনী বর্ণমালা’, ‘আসাদের শার্ট’, ‘স্বাধীনতা তুমি’সহ অনেক কবিতাতেই দেশের প্রতি প্রেম, দেশের মানুষের প্রতি ভালোবাসা প্রতিপাদ্য হিসেবে উঠে এসেছে। শামসুর রাহমানের প্রথম কাব্যগ্রন্থ ‘প্রথম গান, দ্বিতীয় মৃত্যুর আগে’ ১৯৬০ সালে প্রকাশিত হয়। কবিতা, উপন্যাস, প্রবন্ধ, শিশুতোষ রচনাসহ তার শতাধিক বই প্রকাশিত হয়েছে।

এ কবির কবিতায় শুধু স্বাধীনতাই নয়, মৌলবাদ, ধর্মান্ধতা, প্রেম, দ্রোহ ও বিশ্বজননতা সবই উঠে এসেছে, যা আজও আমাদের উজ্জীবিত করে। এ কারণে তিনি বাঙালির শ্রেষ্ঠ কবিদের একজন। পঞ্চাশ দশক থেকে বাঙালি জাতির নানা সংগ্রাম, মুক্তিযুদ্ধ, সামাজিক জীবনের অসংগতি, ব্রিটিশ ও পশ্চিমাদের শোষণের বিরুদ্ধে তার সোচ্চার কণ্ঠ কবিতায় নির্মিত হয় এক অনন্য বাক-প্রতিমায়। এ জন্যে তাকে স্বাধীনতার কবি হিসেবে আখ্যায়িত করা হয়।

কবি শামসুর রাহমান সাহিত্যে অনন্য অবদানের জন্য আদমজী সাহিত্য পুরস্কার, বাংলা একাডেমি পুরস্কার, একুশে পদক, নাসিরউদ্দিন স্বর্ণপদক, জীবনানন্দ পুরস্কার, আবুল মনসুর আহমেদ স্মৃতি পুরস্কার, সাংবাদিকতার জন্য মিতসুবিশি পুরস্কার, স্বাধীনতা পদক ও আনন্দ পুরস্কার লাভ করেন।

নিউজবাংলাদেশ.কম/এফএ

নিউজবাংলাদেশ.কমে প্রকাশিত যে কোনও প্রতিবেদন, ছবি, লেখা, রেখাচিত্র, ভিডিও-অডিও ক্লিপ অনুমতি ছাড়া অন্য কোনও মাধ্যমে প্রকাশ, প্রচার করা কপিরাইট আইনে দণ্ডনীয়।
আপনার মন্তব্য