artk
মঙ্গলবার, জানুয়ারি ২২, ২০১৯ ১২:৪৮   |  ৮,মাঘ ১৪২৫
সোমবার, আগষ্ট ১৩, ২০১৮ ৪:৪৫

মাদরাসাছাত্রকে বলাৎকার করে পালালো জেলা জাপার সদস্য সচিব

media

শরীয়তপুর পৌরসভার পশ্চিম কোটাপাড়ায় এক মাদরাসাছাত্রকে বলাৎকার করে পালিয়েছে জাতীয় পার্টির শরীয়তপুর জেলা শাখার সদস্যসচিব বদরুল আলম নান্নু মুন্সী (৫০)।

শনিবার রাতে পৌরসভার পশ্চিম কোটাপাড়া নান্নু মুন্সীর বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। বলাৎকারের ঘটনায় সোমবার দুপুরে পালং মডেল থানায় মামলা করতে যান ভুক্তভোগী ছাত্রের পরিবার।

পুলিশ, ভুক্তভোগী ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, শনিবার বদরুল আলম নান্নু মুন্সীর স্ত্রী ও সন্তানরা বেড়াতে যায়। বাসায় একা থাকার সুযোগে পশ্চিম কোটাপাড়া মাহমুদিয়া হাফেজিয়া মাদরাসার দুই ছাত্রকে বাড়িতে নিয়ে যায় নান্নু মুন্সী।

রাতে বাসার বারান্দায় দুই ছাত্র ঘুমিয়ে পড়ে। রাত ১২টার দিকে এক ছাত্রকে বারান্দা থেকে ঘরের ভেতর একটি কক্ষে নিয়ে হাত-পা বেঁধে বলাৎকার করে নান্নু মুন্সী।

এ সময় ওই ছাত্র চিৎকার করলে স্থানীয়রা ছুটে আসলে বাড়ি থেকে নান্নু মুন্সী পালিয়ে যায়। পরে আহত ছাত্রকে উদ্ধার করে শরীয়তপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করে প্রতিবেশীরা। বর্তমানে সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ওই ছাত্র।

ভুক্তভোগী ছাত্রের বাবা ফরিদ মৃধা বলেন, আমার ছেলেকে বাড়িতে ডেকে জঘন্য কাজ করেছে নান্নু মুন্সী। আমি এ ঘটনায় নান্নু মুন্সীর দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চাই। আমি নান্নু মুন্সীর বিরুদ্ধে মামলা করব।

জাতীয় পার্টির শরীয়তপুর জেলা শাখার সভাপতি অ্যাডভোকেট মাসুদুর রহমান মাসুদ বলেন, সদস্যসচিব যদি এমন ঘটনা ঘটিয়ে থাকে তাহলে এটি ন্যক্কারজনক। বিষয়টি মেনে নেয়া যায় না। দলীয়ভাবে জেলা কমিটি এ নিয়ে কোনো ব্যবস্থা নেয়ার ক্ষমতা নেই। আমরা কেন্দ্রীয় কমিটিকে বিষয়টি জানাব। তারা এ বিষয়ে ব্যবস্থা নেবে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে পালং মডেল থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনিরুজ্জামান বলেন, ভুক্তভোগী পরিবারের অভিযোগ পেয়েছি। এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।

নিউজবাংলাদেশ.কম/এসডি