artk
৭ ভাদ্র ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, বুধবার ২২ আগস্ট ২০১৮, ১১:৪৫ পূর্বাহ্ণ

শিরোনাম

১৩ আগস্ট শেষ হচ্ছে আশরাফুলের নিষেধাজ্ঞা

স্পোর্টস রিপোর্টার | নিউজবাংলাদেশ.কম
প্রকাশ: ১৫৫৮ ঘণ্টা, শুক্রবার ১০ আগস্ট ২০১৮ || সর্বশেষ সম্পাদনা: ১৫৫৯ ঘণ্টা, শুক্রবার ১০ আগস্ট ২০১৮


১৩ আগস্ট শেষ হচ্ছে আশরাফুলের নিষেধাজ্ঞা - খেলা

২০১৩ সালে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে স্পট ফিক্সিং আর ম্যাচ ফিক্সিংয়ে জড়িয়ে নিষেধাজ্ঞার খাড়ায় পড়ার ৫ বছর পর অবশেষে মুক্তি মিলছে বাংলাদেশের একসময়ের সেরা ব্যাটসম্যান মোহাম্মদ আশরাফুলের। আগামী ১৩ আগস্ট থেকে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে নিষেধাজ্ঞা থেকে মুক্তি মিলবে তার। ২০১৬ সালের ১৩ আগস্ট ঘরোয়া লিগে খেলার অনুমতি মিললেও এতদিন জাতীয় দল আর বিপিএলে নিষিদ্ধ ছিলেন আশরাফুল।

এ বিষয়ে আশরাফুল বলেন, “এই দিনটির জন্য আমি বহুদিন ধরে অপেক্ষা করছি। আমি নিজের দোষ স্বীকার করে নেওয়ার পর পাঁচ বছরেরও বেশি সময় পেরিয়ে গেছে। অবশ্য আমি গেল দুই মৌসুমে ঘরোয়া ক্রিকেট খেলেছি। তবে ১৩ আগস্টের পর থেকে জাতীয় দলের হয়ে ম্যাচ খেলার ক্ষেত্রে আর কোনো বাঁধা থাকবে না আমার। বাংলাদেশের হয়ে আবার খেলতে পারাটা হবে আমার জীবনের সেরা অর্জন।”

ঘরোয়া ক্রিকেটের গেল দুই মৌসুম খেললেও আশরাফুল নিজের নামের প্রতি সুবিচার করেছেন কেবল গেল মৌসুমে। ২০১৭-১৮ মৌসুমে ওয়ালটন ঢাকা প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেট লিগে পাঁচটি লিস্ট ‘এ’ সেঞ্চুরি করেছেন। লিস্ট ‘এ’ টুর্নামেন্টের এক মৌসুমে পাঁচ সেঞ্চুরি করা দ্বিতীয় ব্যাটসম্যান তিনি। তার আগে ২০১৫-১৬ মৌসুমে দক্ষিণ আফ্রিকার আলভিরো পিটারসন ঘরোয়া ক্রিকেটে পাঁচটি সেঞ্চুরি করেছিলেন।

গেল মৌসুমে ২৩টি লিস্ট ‘এ’ ম্যাচে আশরাফুলের ব্যাটিং গড় ছিল ৪৭.৬৩। তবে প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে তিনি খুব একটা সুবিধা করতে পারেননি। ১৩ ম্যাচে তার গড় ছিল ২১.৮৫। সেঞ্চুরি ছিল মাত্র ১টি।

আশরাফুল বলেন, “প্রথম মৌসুমটা খুব একটা ভালো যায়নি আমার। তবে ২০১৭-১৮ মৌসুমে আমি ভালো করেছি। সামনের মৌসুমগুলোতে আমি আরো ভালো করতে চাই। আমার পারফরম্যান্স দিয়ে আমি নির্বাচকদের দৃষ্টি আকর্ষণ করতে চাই। ইতিমধ্যে আমি এক মাসের অনুশীলন প্রোগ্রাম শেষ করেছি। ১৫ আগস্টের পর আসন্ন জাতীয় ক্রিকেট লিগের প্রাক-মৌসুম অনুশীলন শুরু করব।”

২০১৪ সালের জুন মাসে বিপিএলের দুর্নীতি দমন ট্রাইব্যুনাল আশরাফুলকে ৮ বছরের জন্য নিষিদ্ধ করার পাশাপাশি ১০ লাখ টাকা জরিমানা করে। ওই বছরের সেপ্টেম্বরে বিসিবির ডিসিপ্লিনারি প্যানেল আশরাফুলের নিষেধাজ্ঞা তিন বছর কমিয়ে ৫ বছর করে। এই সময় আশরাফুল বিসিবি ও আইসিসিন দুর্নীতি দমন প্রোগ্রামে, শিক্ষা কর্মসূচি ও ট্রেনিংয়ে অংশ নেন। ২০১৫ সালের বিপিএলে আশরাফুল দুর্নীতি দমনের উপর সচেতনতামূলক ভিডিওতে অংশ নেন এবং সেটা বিপিএলের সময় প্রচার করা হয়।

নিউজবাংলাদেশ.কম/এসজে

নিউজবাংলাদেশ.কমে প্রকাশিত যে কোনও প্রতিবেদন, ছবি, লেখা, রেখাচিত্র, ভিডিও-অডিও ক্লিপ অনুমতি ছাড়া অন্য কোনও মাধ্যমে প্রকাশ, প্রচার করা কপিরাইট আইনে দণ্ডনীয়।
আপনার মন্তব্য