artk
৪ ভাদ্র ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, রোববার ১৯ আগস্ট ২০১৮, ১০:১৭ পূর্বাহ্ণ

শিরোনাম

বন্ধ হয়ে যাবে কি মেধাবী আলমাসের স্বপ্নের পথ?

নিউজ ডেস্ক | নিউজবাংলাদেশ.কম
প্রকাশ: ১৪৪২ ঘণ্টা, শুক্রবার ২৭ জুলাই ২০১৮


বন্ধ হয়ে যাবে কি মেধাবী আলমাসের স্বপ্নের পথ? - শিক্ষাঙ্গন

জীবনের শুরুতেই দ্যারিদ্র আর নানা অসঙ্গতির সঙ্গে নিত্য লড়াই যেন আলমাসে'র নিয়তি। তবে সে সামান্যতম ভেঙে না পড়ে নানা প্রতিকূলতার সাথে সংগ্রাম করে জীবনে বড় হওয়ার স্বপ্ন দেখে চলছে নিরন্তর।

পাবনা জেলার চাটমোহর উপজেলার বালুদিয়ার রেলবাজারের মৃত আবুল কাশেমের ছেলে মো. আলমাস হোসেন। তিন ভাইয়ের মধ্যে সে দ্বিতীয়। বড়ভাই রিকশাচালক, ছোট ভাই দিনমজুর। দুইবোন বিয়ে হয়ে গেছে।

পিতৃহীন আলমাস অনেক কষ্টে টিউশনি, দিনমজুরি এবং অন্যের সহযোগিতায় পঞ্চম ও অষ্টম শ্রেণিতে ট্যালেন্টপুলে বৃত্তি, এসএসসিতে বিজ্ঞান বিভাগ থেকে জি.পি.এ-৫ পায়। তারপর চাটমোহর ডিগ্রি কলেজ পাবনায় এইচএসসিতে বিজ্ঞান বিভাগে ভর্তি হয়।

পরে বিজ্ঞান বিভাগের খরচ না মেটানোর সামর্থ্য না থাকায় আলমাস পরবর্তীতে মানবিক বিভাগে চলে যায়। এইচএসসি’র দুই বছরে নিজের পড়ালেখার খরচ মেটাতে, নিজের সংসারের খরচ মেটাতে দিনমজুরিকে পেশা হিসেবে নেন। দিনমজুরির চাপে নিয়মিত ক্লাস না করেও এবার এইচএসসি’র ফলাফলে ওই কলেজের তিনজন এ প্লাস প্রাপ্তদের মধ্যে সে অন্যতম।

মেধাবী আলমাস শুধু লেখাপড়ায়ই ভালো না, সে একজন সুন্দর উপস্থাপকও। তার বর্তমান স্বপ্ন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ার। ভালো ফলাফলে দু’চোখ ভরা উচ্ছ্বাস থাকলেও উচ্চশিক্ষার ব্যয় কীভাবে মিটবে, সে দুশ্চিন্তাও তাকে তাড়া করে ফিরছে প্রতিক্ষণ। তবে সব প্রতিবন্ধকতাকে দু’আঙ্গুলে তুড়ি মেরে উড়িয়ে ভবিষ্যতে ভালো মানুষ হওয়ার দৃঢ়প্রতিজ্ঞ আলমাস বন্ধু, সহপাঠী, শিক্ষক আর শুভাকাঙ্ক্ষীদের দোয়া, সহমর্মিতা, পরামর্শ ও সহযোগিতায় যেতে চান স্বপ্ন পূরণের পথে।

অনন্য মেধাবী আলমাস এর স্বপ্ন পূরণ হোক, সকল বাঁধা পেরিয়ে ভালো মানুষ হয়ে সমাজে অবদান রাখুক এ প্রত্যাশা সবার। সমাজের বিত্তবান ও হৃদয়বান মানুষরা চাইলে এই মেধবী দরিদ্র শিক্ষার্থীর পাশে দাঁড়াতে পারেন। বাড়িয়ে দিতে পারেন মানবিক হাত। সরাসরি আলমাসের সঙ্গে যোগযোগ করতে পারেন : ০১৭৮৩ ২৮ ৮৬ ৩৯ নম্বরে।

(তথ্যসূত্র : আব্দুল বারী মৃধা’র টাইম লাইন থেকে তার অনুমতিক্রমে নেয়া)

নিউজবাংলাদেশ.কম/এমএস

নিউজবাংলাদেশ.কমে প্রকাশিত যে কোনও প্রতিবেদন, ছবি, লেখা, রেখাচিত্র, ভিডিও-অডিও ক্লিপ অনুমতি ছাড়া অন্য কোনও মাধ্যমে প্রকাশ, প্রচার করা কপিরাইট আইনে দণ্ডনীয়।
আপনার মন্তব্য