artk
৭ ভাদ্র ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, বুধবার ২২ আগস্ট ২০১৮, ১১:৪৬ পূর্বাহ্ণ

শিরোনাম

চার জেলায় গুলিতে ৪ ‘মাদক ব্যবসায়ী’ নিহত

নিউজ ডেস্ক | নিউজবাংলাদেশ.কম
প্রকাশ: ০৯১৮ ঘণ্টা, শনিবার ২১ জুলাই ২০১৮ || সর্বশেষ সম্পাদনা: ১৪১০ ঘণ্টা, শনিবার ২১ জুলাই ২০১৮


চার জেলায় গুলিতে ৪ ‘মাদক ব্যবসায়ী’ নিহত - জাতীয়
ফাইল ফটো

মাদক বিরোধী অভিযানের মধ্যে কুষ্টিয়ার ভেড়ামারা, চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর, দিনাজপুরের পার্বতীপুর ও কক্সবাজারের চকরিয়া উপজেলায় কথিত বন্দুকযুদ্ধ, গোলাগুলি ও ‘মাদক ব্যবসীয়দের মধ্যে সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধ হয়ে’ চার জন নিহত হয়েছেন, যারা মাদক ব্যবসায়ী ছিলেন বলে দাবি করছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।

শুক্রবার গভীর রাতে ও শনিরবার ভোরে এসব ঘটনা ঘটে।

কুষ্টিয়া: জেলার ভেড়ামারায় শুক্রবার রাত ৩টার দিকে ভেড়ামারা উপজেলার মোকারমপুর ইউনিয়নের বাঁকাপুলের কাছে পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ শামসুদ্দিন শ্যাম (৪০) নামের এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। তিনি মাদক ব্যবসায়ী ছিলেন বলে দাবি করছে পুলিশ।

পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে ৫০০ ইয়াবা, একটি ওয়ান শুটারগান, দুটি গুলি উদ্ধারের দাবি করেছে।

ভেড়ামারা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আমিনুল ইসলামের ভাষ্য, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে তারা জানতে পারেন ভেড়ামারা উপজেলার বাঁকাপুল চরদামুকদিয়া এলাকায় একদল মাদক ব্যবসায়ী মাদক কেনা-বেচা করছে। এমন সংবাদের ভিত্তিতে ভেড়ামারা থানা পুলিশের একটি দল অভিযানে যায়। মাদক ব্যবসায়ীরা পুলিশকে লক্ষ করে গুলি করে। এতে পুলিশও পাল্টা গুলি ছুড়লে উভয়ের মধ্যে বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে। পরে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে আহত অবস্থায় শামসুদ্দিন শ্যামকে উদ্ধার করে ভেড়ামারা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। সেখানে কর্ত্যবরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

ওসির দাবি, এ ঘটনায় পুলিশের তিন সদস্য আহত হয়েছেন।

নিহত শামসুদ্দিন শ্যাম ভেড়ামারা উপজেলার ক্ষেমিরদিয়াড় এলাকার বাসিন্দা। পুলিশের ভাষ্য, তার বিরুদ্ধে ভেড়ামারা থানায় আটটি মাদকের মামলা রয়েছে।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ: সদর উপজেলার সুন্দরপুরে র‌্যাবের সাথে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ একজন নিহত হয়েছেন। র‌্যাবের দাবি, তিনি একজন মাদক ব্যবসায়ী ছিলেন।

শুক্রবার দিবাগত রাত দেড়টার দিকে সদর উপজেলার সুন্দরপুর ইউনিয়নের মোল্লানের মাথা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

র‌্যাবের ভাষ্য, ঘটনাস্থল থেকে আগ্নেয়াস্ত্র ও বিপুল পরিমাণ ফেনসিডিল উদ্ধার করা হয়েছে।

নিহত ব্যক্তির পরিচয় এখনও নিশ্চিত হওয়া যায়নি। তবে তিনি শীর্ষ মাদক ব্যবসায়ী বলে র‌্যাব দাবি করেছে।

দিনাজপুর: জেলার পার্বতীপুর উপজেলায় কথিত গোলাগুলিতে একজন নিহত হয়েছেন।

পার্বতীপুর থানার ওসি হাবিবুল হক প্রধান বলেন, “শুক্রবার রাত ৩টার দিকে উপজেলার বেলাইচণ্ডী ইউনিয়নের বার্নিরহাট এলাকায় গোলাগুলির খবর আসে। পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে আব্দুল করিম নামে এক মাদক ব্যবসায়ীকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় উদ্ধার করে হাসপাতালে নেয়ার পথে মৃত্যু হয়।”

পুলিশের ভাষ্য, তার কাছে থাকা এক রাউন্ড গুলিসহ একটি ওয়ান শুটারগান, বেশ কিছু ইয়াবা ও ফেনসিডিল উদ্ধার করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে থানায় একাধিক মাদক মামলা রয়েছে।

কক্সবাজার: জেলার চকরিয়া উপজেলায় ‘দুই দল মাদক ব্যবসায়ীর সংঘর্ষে’ একজন গুলিবিদ্ধ হয়ে নিহত হয়েছেন বলে দাবি করেছে পুলিশ।

নিহত মোহাম্মদ ইসমাঈল (৩৮) চকরিয়া পৌরসভার ৮ নম্বর ওয়ার্ডের কোচপাড়ার আব্দুস সালামের ছেলে।

চকরিয়া থানার ওসি বখতিয়ার উদ্দিন চৌধুরী বলেন, “শনিবার ভোরে উপজেলার লামা-আলীকদম সড়কের পাহাড়ি এলাকায় দুই দল মাদক ব্যবসায়ী সংঘর্ষে লিপ্ত হয়। এ সময় গুলিতে চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী নিহত হয।”

তার বিরুদ্ধে মাদক ব্যবসায় জড়িত থাকার অভিযোগে চকরিয়াসহ বিভিন্ন থানায় মামলা রয়েছে বলে দাবি করেন পুলিশের এই কর্মকর্তা।

পুলিশের ভাষ্য, ঘটনাস্থল থেকে ৪৬৫টি ইয়াবা, একটি বন্দুক ও দুটি গুলি উদ্ধার করা হয়েছে।

লাশ ময়নাতদন্তের জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

নিউজবাংলাদেশ.কম/এফএ

নিউজবাংলাদেশ.কমে প্রকাশিত যে কোনও প্রতিবেদন, ছবি, লেখা, রেখাচিত্র, ভিডিও-অডিও ক্লিপ অনুমতি ছাড়া অন্য কোনও মাধ্যমে প্রকাশ, প্রচার করা কপিরাইট আইনে দণ্ডনীয়।
আপনার মন্তব্য
এই বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত