artk
৩১ আষাঢ় ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, সোমবার ১৬ জুলাই ২০১৮, ১:৫১ পূর্বাহ্ণ

শিরোনাম

চাইলে ২০১৪ সালেই খালেদাকে গ্রেপ্তার করা যেত: প্রধানমন্ত্রী

স্টাফ রিপোর্টার | নিউজবাংলাদেশ.কম
প্রকাশ: ১৯০০ ঘণ্টা, বুধবার ১১ জুলাই ২০১৮ || সর্বশেষ সম্পাদনা: ০৮২৩ ঘণ্টা, বৃহস্পতিবার ১২ জুলাই ২০১৮


চাইলে ২০১৪ সালেই খালেদাকে গ্রেপ্তার করা যেত: প্রধানমন্ত্রী - জাতীয়

রাজনৈকিভাবে গ্রেপ্তারের ইচ্ছা থাকলে ২০১৪ সালেই খালেদা জিয়াকে গ্রেপ্তার করা যেত বলে মন্তব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

তিনি বলেন, “তাকে রাজনৈতিকভাবে গ্রেপ্তার করা হয়নি। রাজনৈতিকভাবে গ্রেপ্তার করতে হলে খালেদা জিয়াকে ২০১৪-২০১৫ সালেই গ্রেপ্তার করা যেত।”

বুধবার জাতীয় সংসদের প্রশ্নোত্তর পর্বে প্রধানমন্ত্রী এ মন্তব্য করেন। স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে সংসদের বৈঠক শুরু হওয়ার পর প্রধানমন্ত্রীর জন্য নির্ধারিত প্রশ্নোত্তর পর্ব অনুষ্ঠিত হয়।

শেখ হাসিনা বলেন, “১০ বছর মামলা চলার পরে আদালতের রায়ে খালেদা জিয়া এখন কারাগারে বন্দী। তাদের বড় বড় আইনজীবী খালেদা জিয়াকে নির্দোষ প্রমাণ করতে পারেননি।”

সংরক্ষিত নারী আসনের সদস্য নুরজাহান বেগমের সম্পূরক প্রশ্নের জবাবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, “একজন নারী হয়ে এতিমের অর্থ আত্মসাৎ করার কথা চিন্তাও করা যায় না।”

প্রধানমন্ত্রী বলেন, “মামলার রায় বের হওয়ার পূর্বে তারা (বিএনপি) দলের গঠনতন্ত্র সংশোধন করে দুর্নীতিবাজকে দলের নেতৃত্বে আসার সুযোগ করে দিল। এর অর্থ তারা জানে, খালেদা জিয়া অপরাধী। এ জন্য রায়ের আগেই এটা সংশোধন করেছে। এটা তো সব নারী জাতির জন্যই একটা কলঙ্ক। আমাদের নারী জাতির জন্য লজ্জার। কারণ, একজন নারী মানে একজন মা। একজন মা হয়ে এতিমের টাকা কী করে চুরি করে বা অপব্যবহার করে!”

তিনি বলেন, “দেশে সুষ্ঠু ও সুন্দর গণতান্ত্রিক পরিবেশ থাকলে উন্নয়ন ত্বরান্বিত হয়। গণতান্ত্রিক ধারা অব্যাহত থাকলে উন্নয়ন অব্যাহত থাকে। ২০১৪ সালে ক্ষমতায় আসতে পেরেছি বলেই উন্নয়নের ধারাবাহিকতা রাখতে পেরেছি। গণতান্ত্রিক ধারাবাহিকতা অব্যাহত থাকুক তা আমরা চাই।”

বর্তমান সরকারের আমলে অনুষ্ঠিত বিভিন্ন নির্বাচন নিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, “বর্তমান সরকারের সময়ে ছয় হাজারের ওপর নির্বাচন হয়েছে, কেউ তো কোনো নির্বাচন নিয়ে প্রশ্ন তুলতে পারেনি। কিন্তু বিএনপির আমলের ১৫ ফেব্রুয়ারির নির্বাচনের কথা আমাদের মনে আছে। ২০০৬ সালে তারা যখন নির্বাচন করার প্রচেষ্টা করেছিল, তখনো ভোটারবিহীন নির্বাচন করে কতজনকে নির্বাচিত ঘোষণাও দিয়েছিল।”

নিউজবাংলাদেশ.কম/এনডি

নিউজবাংলাদেশ.কমে প্রকাশিত যে কোনও প্রতিবেদন, ছবি, লেখা, রেখাচিত্র, ভিডিও-অডিও ক্লিপ অনুমতি ছাড়া অন্য কোনও মাধ্যমে প্রকাশ, প্রচার করা কপিরাইট আইনে দণ্ডনীয়।
আপনার মন্তব্য
এই বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত