artk
৫ শ্রাবণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, শনিবার ২১ জুলাই ২০১৮, ৩:৪৫ পূর্বাহ্ণ

শিরোনাম

জনমতের চাপে অভিবাসীদের বিচ্ছিন্ন রাখার নীতি বদলালেন ট্রাম্প

বিদেশ ডেস্ক | নিউজবাংলাদেশ.কম
প্রকাশ: ০৯৫৫ ঘণ্টা, বৃহস্পতিবার ২১ জুন ২০১৮ || সর্বশেষ সম্পাদনা: ১৪৪৬ ঘণ্টা, বৃহস্পতিবার ২১ জুন ২০১৮


জনমতের চাপে অভিবাসীদের বিচ্ছিন্ন রাখার নীতি বদলালেন ট্রাম্প - বিদেশ

অবশেষে জনমতের চাপে বৈধ কাগজপত্রহীন বাবা-মা ও সন্তানদের আলাদা করার নীতি থেকে সরে এলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

তার নির্বাহী আদেশে অভিবাসী বাবা-মা ও সন্তানরা বন্দিশালায় একসঙ্গে থাকার সুযোগ পাচ্ছেন।

বৈধ কাগজপত্র ছাড়া যুক্তরাষ্ট্রে বসবাসরত বাবা-মা ও তাদের সন্তানদের আলাদা করার প্রশ্নে অভ্যন্তরীণ এবং আন্তর্জাতিক মহলের চাপের মুখে পড়েন ডোনাল্ড ট্রাম্প। এ অবস্থায় পরিবারকে বিচ্ছিন্ন করার নীতি থেকে সরে আসেন তিনি। বিবিসি।

তবে তার নীতির কারণে এরই মধ্যে যারা বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে, তাদের ব্যাপারে কিছু বলা হয়নি এই নির্বাহী আদেশে।

গত ৫ মে থেকে ৯ জুন সময়ের মধ্যে দুই হাজার ২০৬টি পরিবার থেকে দুই হাজার ৩৪২ শিশু আলাদা হয়ে গেছে।

বুধবার এক অনুষ্ঠানে ট্রাম্প বলেন, “এর ফলে পরিবারকে একসঙ্গে রাখা হবে।”

তিনি বলেন, “পরিবারগুলো আলাদা হওয়ার দৃশ্য আমার ভালো লাগেনি।”

তবে অবৈধভাবে সীমান্ত পেরিয়ে যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশ করবে তাদের ব্যাপারে প্রশাসন ‘শূন্য সহনশীল’ বলেও মন্তব্য করেন ট্রাম্প।

ট্রাম্পের স্ত্রী মেলানিয়া ট্রাম্প, মেয়ে ইভানকা ট্রাম্প পরিবার বিচ্ছিন্ন হওয়ার প্রশ্নে অত্যন্ত মর্মাহত হয়েছেন উল্লেখ করে ট্রাম্প বলেন, “আমার মনে হয়, হৃদয়সম্পন্ন যেকোনো মানুষই অত্যন্ত আপ্লুত হয়ে পড়বেন।”

নির্বাহী আদেশে যা আছে

অভিবাসী পরিবারগুলোকে একসঙ্গে আটক রাখা হবে। এর মধ্যে বিচারকাজ চলবে।
পরিবার-সংক্রান্ত অভিবাসী মামলাগুলো দ্রুত নিষ্পত্তি করা হবে।

অভিবাসী শিশুদের কত দিন আটকে রাখা হবে, জানতে চেয়ে আদালতের যে রুল রয়েছে, তা পরিবর্তনের অনুরোধ করা হয়েছে।

নিউজবাংলাদেশ.কম/এফএ

নিউজবাংলাদেশ.কমে প্রকাশিত যে কোনও প্রতিবেদন, ছবি, লেখা, রেখাচিত্র, ভিডিও-অডিও ক্লিপ অনুমতি ছাড়া অন্য কোনও মাধ্যমে প্রকাশ, প্রচার করা কপিরাইট আইনে দণ্ডনীয়।
আপনার মন্তব্য