artk
শনিবার, জানুয়ারি ১৯, ২০১৯ ৩:৩৯   |  ৫,মাঘ ১৪২৫
বুধবার, জুন ১৩, ২০১৮ ১০:০২

খালেদাকে সরানোর চেষ্টা করছে সরকার: ফখরুল

 10
media

সরকার বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে জনগণের কাছ থেকে দূরে সরিয়ে দেয়ার চেষ্টা করছে বলে মন্তব্য করেছেন দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

বুধবার রাজধানীর বিজয় নগরে বাংলাদেশ লেবার পার্টি আয়োজিত ইফতার মাহফিল ও দোয়া অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ মন্তব্য করেন।

ফখরুল বলেন, “আইনি প্রক্রিয়ায় হাই কোর্ট থেকে জামিন পাওয়ার পরও খালেদা জিয়াকে মুক্তি দেয়া হয়নি। খালেদা জিয়াকে রাজনীতি থেকে, জনগণের কাছ থেকে দূরে সরিয়ে দেয়ার চেষ্টা করছে সরকার।”

হাজার চেষ্টা করেও তাকে জনগণ থেকে দূরে রাখা যাবে না দাবি করে তিনি বলেন, “খালেদা জিয়া জনগণের নেত্রী। আন্দোলনের মধ্য দিয়ে তাকে মুক্ত করে আনা হবে।”

তিনি বলেন, “দেশনেত্রীর মুক্তি ছাড়া এ দেশে কোনো কিছুই সম্ভব নয়। তাকে মুক্ত করতে হবে। একই সঙ্গে সুষ্ঠু নির্বাচনের স্বার্থে নির্বাচন কমিশন পুনর্গঠন করতে হবে। নির্বাচনে সেনাবাহিনী মোতায়েন করতে হবে এবং নিরপেক্ষ সরকার দিতে হবে।”

বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে অবিলম্বে ইউনাইটেড হাসপাতালে ভর্তির দাবি জানান। এ ক্ষেত্রে সরকারের শুভবুদ্ধির উদয় হবে বলেও তিনি আশা প্রকাশ করেন।

মির্জা ফখরুল বলেন, “খুন, গুম, অত্যাচার ও নির্যাতনের মধ্য দিয়ে একটি ভয়ংকর রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠা করেছে সরকার। আমরা জনগণের শক্তিতে বিশ্বাস করি। কারও দয়ায় বিএনপি নির্বাচনে জিততে চায় না, জেতেও না। স্বাধীনতা, সার্বভৌমত্বে বিশ্বাস করে বিএনপি।”

বাংলাদেশ লেবার পার্টির চেয়ারম্যান মোস্তাফিজুর রহমানের সভাপতিত্বে ইফতার মাহফিলে আরও উপস্থিত ছিলেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক এমাজউদ্দীন আহমদ, ভাইস চেয়ারম্যান সেলিমা রহমান, এনাম আহমেদ চৌধুরী, আলতাব হোসেন চৌধুরী, শামসুজ্জামান দুদু, বরকত উল্লাহ বুলু, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা হায়দার আলী, বাংলাদেশ কল্যাণ পার্টির চেয়ারম্যান সৈয়দ মুহাম্মদ ইবরাহিম প্রমুখ। এ ছাড়া ২০-দলীয় জোটের শরিক জামায়াতে ইসলামী, জাতীয় পার্টি (জাফর), এনপিপি, মুসলিম লীগের নেতারাও ইফতারে উপস্থিত ছিলেন।

নিউজবাংলাদেশ.কম/এনডি