artk
৩০ অগ্রহায়ণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, শুক্রবার ১৪ ডিসেম্বর ২০১৮, ১১:৫৪ অপরাহ্ন

শিরোনাম

রুহ আফজাকে ৪ লাখ টাকা জরিমানা, অনাদায়ে চেয়ারম্যান-এমডির জেল

স্টাফ রিপোর্টার | নিউজবাংলাদেশ.কম
প্রকাশ: ২১০৮ ঘণ্টা, মঙ্গলবার ১২ জুন ২০১৮ || সর্বশেষ সম্পাদনা: ০৯৫৬ ঘণ্টা, বুধবার ১৩ জুন ২০১৮


রুহ আফজাকে ৪ লাখ টাকা জরিমানা, অনাদায়ে চেয়ারম্যান-এমডির জেল - জাতীয়

অননুমোদিত উপাদান দিয়ে খাদ্য তৈরি ও বিভ্রান্তিকর বিজ্ঞাপন প্রচারের দায়ে হামদর্দের উৎপাদিত পানীয় ‘রুহ আফজা’কে চার লাখ টাকা জরিমানা করেছেন আদালত। এছাড়াও জরিমানা আনাদায়ে রুহ আফজা’র চেয়ারম্যান ও ব্যবস্থাপনা পরিচালককে তিন মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ডের আদেশ দেওয়া হয়।

মঙ্গলবার (১২ জুন) দুপুরে স্পেশাল মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট বিশুদ্ধ খাদ্য আদালত ১-এর বিচারক এএফএম মারুফ চৌধুরী এ আদেশ দেন।

এর আগে হামদর্দ কোম্পানির চেয়ারম্যান হাকীম মো. ইউছুফ হারুন ভূঁইয়া ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক হাকিম সাইফুদ্দিন আদালতে হাজির হয়ে দোষ স্বীকার করেন।

রুহ আফজার বিরুদ্ধে এ মামলাটি দায়ের করেন নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষের পরিদর্শক মো. কামরুল হাসান। মামলায় প্রতিষ্ঠানটির চেয়ারম্যান হাকীম মো. ইউছুফ হারুন ভূঁইয়া ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক হাকিম সাইফুদ্দিনকে আসামি করা হয়। ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের নগর ভবনে এই আদালত অবস্থিত।

উল্লেখ্য, গত ৩১ মে নিরাপদ খাদ্য আদালতে মামলাটি দায়ের করা হয়। সোমবার (১১ জুন) মামলার শুনানির দিন ধার্য ছিল। এদিন আসামি হাকীম মো. ইউছুফ হারুন ভূঁইয়া ও হাকিম সাইফুদ্দিন আদালতে হাজির হয়ে আরও একদিন সময় চান। পরে আদালত তাদের মঙ্গলবার (১২ জুন) পর্যন্ত সময় দেন। মঙ্গলবার দুপুর থেকে মামলাটির শুনানি চলে। দীর্ঘ শুনানির পর আদালত এ রায় দেন।

জানা যায়, আসামিরা আদালতে হাজির হয়ে নিজেদের দোষ স্বীকার করেন। পরে তারা আদালতকে লিখিতভাবে জানান, তারা যে মিথ্যা ও বিভ্রান্তিকর তথ্যগুলো দিয়েছেন সেগুলো প্রত্যাহার করে নেবেন এবং আগামী ৩০ জুনের মধ্যে সব বিজ্ঞাপন প্রত্যাহার করবেন।

বিজ্ঞাপন পরিবর্তনের জন্য বিএসটিআই মহাপরিচালক বরাবরে আবেদন করেছেন তারা। আবেদনের সেই কপি আদালতকে দেয়া হয়েছে। পরে ব্যাংকের মাধ্যমে তারা জরিমানার চার লাখ টাকাও পরিশোধ করেন।

নিউজবাংলাদেশ.কম/এসডি

নিউজবাংলাদেশ.কমে প্রকাশিত যে কোনও প্রতিবেদন, ছবি, লেখা, রেখাচিত্র, ভিডিও-অডিও ক্লিপ অনুমতি ছাড়া অন্য কোনও মাধ্যমে প্রকাশ, প্রচার করা কপিরাইট আইনে দণ্ডনীয়।
আপনার মন্তব্য
এই বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত