artk
৩ কার্তিক ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, শুক্রবার ১৯ অক্টোবর ২০১৮, ২:১১ পূর্বাহ্ণ

শিরোনাম

র‌্যাংকিংয়েও ৬ ধাপ উন্নতি রুমানার

স্পোর্টস ডেস্ক | নিউজবাংলাদেশ.কম
প্রকাশ: ১৯৩৫ ঘণ্টা, মঙ্গলবার ১২ জুন ২০১৮ || সর্বশেষ সম্পাদনা: ১১০২ ঘণ্টা, বুধবার ১৩ জুন ২০১৮


র‌্যাংকিংয়েও ৬ ধাপ উন্নতি রুমানার - খেলা

শক্তিশালী ভারতকে ৩ উইকেটে হারিয়ে প্রথমবারের মতো এশিয়া কাপের শ্রেষ্ঠত্ব অর্জন করেছে বাংলাদেশ নারী ক্রিকেট দল। মালয়েশিয়ায় ফাইনালে দুর্দান্ত পারফরম্যান্সের প্রভাব পড়েছে তাদের টি-টোয়েন্টি র‌্যাংকিংয়ে। ফাইনাল সেরা অলরাউন্ডার রুমানা আহমেদ র‌্যাংকিংয়ে ৬ ধাপ এগিয়েছে। জায়গা করে নিয়েছেন ১২তম স্থানে।

এশিয়া কাপে ব্যাটে-বলে উজ্জ্বল ছিলেন রুমানা আহমেদ। সেটির প্রতিফলন আইসিসি মেয়েদের টি-টোয়েন্টি অলরাউন্ডারদের র‌্যাঙ্কিংয়ে। ৬ ধাপ এগিয়ে বাংলাদেশের অলরাউন্ডার উঠে এসেছেন দ্বাদশ স্থানে। এশিয়া কাপে বাংলাদেশের ৬ ম্যাচের ৪টি ছিল আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি। রুমানা ব্যাটিং পেয়েছেন তিন ম্যাচে। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ১০ রানে আউট হলেও শক্তিশালী ভারতের বিপক্ষে দুটি ম্যাচেই তিনি ছিলেন ম্যাচ সেরা। প্রথম ম্যাচে খেলেছিলেন ম্যাচ জয়ী ৪২ রানের অপরাজিত ইনিংস। ফাইনালে করেছিলেন গুরুত্বপূর্ণ ২৩ রান।

ব্যাটে রানের পাশাপাশি ভারতের বিপক্ষে প্রথম ম্যাচে উইকেট ছিল তিনটি। ফাইনালে নিয়েছিলেন দুটি। পাকিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচেও নিয়েছিলেন একটি উইকেট। অলরাউন্ডারদের র‌্যাঙ্কিংয়ে সালমা খাতুন অবশ্য এখনও রুমানার ওপরে। বাংলাদেশের টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক আছেন একাদশ স্থানে। টি-টোয়েন্টি বোলারদের র‌্যাঙ্কিংয়ে আগের মতোই বাংলাদেশে সবার ওপরে খাদিজা তুল কুবরা। আছেন ১৩ নম্বরে। তবে এশিয়া কাপের পারফরম্যান্সে এই অফ স্পিনার অর্জন করেছেন ক্যারিয়ার সেরা ৫৩৭ রেটিং পয়েন্ট।

বোলারদের র‌্যাঙ্কিংয়ে রুমানা আছেন বিশে। ২৭ নম্বরে আছেন সালমা, পেসার জাহানারা আলম ৩৫ নম্বরে। ফাইনালে দারুণ বোলিং করলেও উইকেট পাননি নাহিদা আক্তার। তবে পাকিস্তানের বিপক্ষে নিয়েছিলেন ২ উইকেট। ২২ ধাপ এগিয়ে এই বাঁহাতি স্পিনার এখন ৪০ নম্বরে।

ব্যাটিংয়ে সেরা পঁচিশেও নেই বাংলাদেশের কেউ। ২৭ নম্বরে থেকে সবার ওপরে সালমা। রুমানা ৩০ আর ফারজানা হক ৩২।

নিউজবাংলাদেশ.কম/এসএস/এএইচকে

নিউজবাংলাদেশ.কমে প্রকাশিত যে কোনও প্রতিবেদন, ছবি, লেখা, রেখাচিত্র, ভিডিও-অডিও ক্লিপ অনুমতি ছাড়া অন্য কোনও মাধ্যমে প্রকাশ, প্রচার করা কপিরাইট আইনে দণ্ডনীয়।
আপনার মন্তব্য