artk
৫ ভাদ্র ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, সোমবার ২০ আগস্ট ২০১৮, ৩:১৩ অপরাহ্ন

শিরোনাম

বিদেশি গুড়ো দুধে শুল্ক কমানোয় হতাশ খামারিরা

স্টাফ রিপোর্টার | নিউজবাংলাদেশ.কম
প্রকাশ: ১৯২২ ঘণ্টা, মঙ্গলবার ১২ জুন ২০১৮


বিদেশি গুড়ো দুধে শুল্ক কমানোয় হতাশ খামারিরা - অর্থনীতি

আসন্ন বাজেটে আমদানীকৃত গুড়ো দুধের উপর শুল্ক কমিয়ে আনার কারণে দেশীয় দুধের খামারিরা হতাশায় ভুগছে বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশ ডেইরি ফারর্মাস এসোসিয়েশনের চেয়ারম্যান মো. ইমরান হোসেন।

মঙ্গলবার জাতীয় প্রেসক্লাবে আয়োজিত বাজেটে গুড়ো দুধের আমদানীতে শুল্ক কমিয়ে আনার প্রতিবাদে এক সংবাদ সম্মেলনে প্রতিষ্ঠানটির সভাপতি এ কথা বলেন।

ইমরান হোসেন বলেন, আমাদের দেশে গুড়াদুধ আমদানির ক্ষেত্রে সর্বপ্রথম শুল্কহার ছিল ৫১ শতাশং পরবর্তীতে তা কমিয়ে ২৫ শতাংশ করা হয়েছিল। কিন্তু এ প্রস্তাবিত বাজেটে অর্থমন্ত্রী ১০ শতাংশ করার প্রস্তাব করেছেন। সেক্ষেত্রে হঠাৎ করে উদীয়মান সেক্টরে গুড়া দুধের উপর আমদানি শুল্ক কমিয়ে দেয়া দেশের দুধের খামারিদের অস্তিত্ব বিলিন করে দেয়ার সামিল।

তিনি বলেন, সরকার দেশীয় শিল্পকে প্রণোদনা না দিয়ে বিদেশ থেকে গুরু দুধের আমদানি দেশের দুগ্ধ খামারিদের একটি অসম প্রতিযোগিতার মধ্যে ফেলে দিয়েছে। এর প্রধান কারণ হলো ভর্তুকি। বিশ্বের প্রধান দুধ রপ্তনীকারক দেশগুলো বিলিয়ন ডলার খামারিদের ভর্তুকি দিয়ে থাকে। এ ভর্তুকি প্রাপ্ত দুধ দেশে কম দামে ঢুকে পড়ার কারণে দেশের দুগ্ধ খামারিদের একটি অসম প্রতিযোগিতার মধ্যে পড়ে কোনভাবেই দাঁড়াতে পারছেন না।

তিনি আরও বলেন, ভর্তুকি উৎস দেশগুলো তাদের অতিরিক্ত দুধ বাজারমূল্যের চেয়ে কম দামে ডাম্পিং করছে আমাদের মত দেশে, ফলে আমাদের দেশের ডেইরি সেক্টর কমমূল্যে নিম্নমানের এই দুধ কিনে এনে শুধু ডেইরি সেক্টরকেই ধ্বংস করছে না ,বরং দেশের ডেইরি সেক্টরের মেরুদন্ড ভেঙ্গে দেয়া হচ্ছে।

তিনি আরও বলেন, বর্তমান বাজেটে আমদানি শুল্ক কমানোর যে প্রস্তাব করা হয়েছে তা আমাদের সংগঠন থেকে বাতিলের দাবি জানাচ্ছি। পাশাপাশি আমাদের এন্টিডাম্পিং এর জন্য তিরিশ শতাংশ অতিরিক্ত শুল্ক আরোপ করার জন্য জোর দাবি জানাচ্ছি।

দেশীয় শিল্পকে রক্ষা ,দেশের বেকার সমস্যার সমাধান, খামারিদের দুধের ন্যায্য মূল্য, গো খাদ্যের উচ্চ মূল্যে ভর্তুকি, খামারে বিদ্যুৎ বিল কৃষির আওতায় আনা, উন্নতমানের সিমেন আমদানি এবং খামারিদের তরল দুধ সঠিক বাজারজাতকরণ কার্যক্রম বাস্তবায়ন করার জন্য সরকারের নিকট দাবি জানান তিনি।

সংবাদ সম্মেলনে সংগঠনটির অনেক সদস্যসহ আরো অনেক খামারিরা উপস্থিত ছিলেন।

নিউজবাংলাদেশ.কম/এমএজেড/এএইচকে

নিউজবাংলাদেশ.কমে প্রকাশিত যে কোনও প্রতিবেদন, ছবি, লেখা, রেখাচিত্র, ভিডিও-অডিও ক্লিপ অনুমতি ছাড়া অন্য কোনও মাধ্যমে প্রকাশ, প্রচার করা কপিরাইট আইনে দণ্ডনীয়।
আপনার মন্তব্য