artk
৬ শ্রাবণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, শনিবার ২১ জুলাই ২০১৮, ৭:৪৪ পূর্বাহ্ণ

শিরোনাম

বৈঠক শেষে ট্রাম্প-কিমের যৌথ বিবৃতি

বিদেশ ডেস্ক | নিউজবাংলাদেশ.কম
প্রকাশ: ১৩৪১ ঘণ্টা, মঙ্গলবার ১২ জুন ২০১৮ || সর্বশেষ সম্পাদনা: ১৪২৩ ঘণ্টা, মঙ্গলবার ১২ জুন ২০১৮


বৈঠক শেষে ট্রাম্প-কিমের যৌথ বিবৃতি - বিদেশ

সিঙ্গাপুরে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ও উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং-উনের ঐতিহাসিক বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বৈঠকের পর যৌথ বিবৃতি দিয়েছেন ট্রাম্প ও কিম।

বিবৃতিতে স্বাক্ষর করার পর ট্রাম্প বলেন, “আজকের ঘটনার জন্য আমরা দুজনই গর্বিত।”

তিনি আরো বলেন, “আমরা দুজনই কিছু একটা করতে চাই, আমরা দুজনই কিছু একটা করতে যাচ্ছি।”

বিবৃতিতে ট্রাম্প কোরিয়ার নিরাপত্তার নিশ্চয়তা দিকে প্রতিশ্রুতি দেন।

কিম কোরীয় উপদ্বীপকে পরমাণু নিরস্ত্রীকরণ কাজ সম্পন্ন করতে তার দৃঢ় প্রতিশ্রুতির কথা পুনর্ব্যক্ত করেন।

বিবিসির লওরা বিকারের মতে, ট্রাম্প-কিম বৈঠকের প্রধান চারটি পয়েন্ট হচ্ছে- যুক্তরাষ্ট্র ও গণপ্রজাতন্ত্রী কোরিয়া নতুনভাবে দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক স্থাপনে উদ্যোগী হবে, যাতে দুই দেশের মানুষের দীর্ঘমেয়াদি শান্তি ও উন্নতির বিষয়টি প্রতিফলিত হবে।

কোরীয় উপদ্বীপে স্থিতিশীল ও শান্তিপূর্ণ শাসনব্যবস্থা অব্যাহত রাখতে যৌথভাবে কাজ করবে যুক্তরাষ্ট্র ও গণতান্ত্রিক প্রজাতন্ত্রী কোরিয়া।

২৭ এপ্রিলেন পানমুনজাম বিবৃতিতে কোরীয় উপদ্বীপকে সম্পূর্ণ পারমাণবিক নিরস্ত্রীকরণের অঙ্গীকার রক্ষা করবে গণতান্ত্রিক প্রজাতন্ত্রী কোরিয়া।

যুক্তরাষ্ট্র ও গণতান্ত্রিক প্রজাতন্ত্রী কোরিয়া যুদ্ধবন্দীদের নিজ নিজ দেশে ফেরত পাঠানোর বিষয়ে ভূমিকা রাখবে এবং এরই মধ্যে যেসব যুদ্ধবন্দী চিহ্নিত হয়েছেন তাদের প্রত্যাবাসন প্রক্রিয়া অতিসত্তর শুরু করবে।

এদিকে সংবাদ মাধ্যম এএফপির তথ্য অনুযায়ী, কিম কোরীয় উপদ্বীপে ‘পূর্ণ পারমাণবিক নিরস্ত্রীকরণ’ এর অঙ্গীকার করেছেন।

মঙ্গলবার সকালে সিঙ্গাপুরের সেন্তোসা দ্বীপে কাপেলা হোটেলে করমর্দনের মধ্য দিয়ে ঐতিহাসিক বৈঠকে মিলিত হন দুই নেতা।

বৈঠক শেষে স্যান্টোসা ছাড়ে ট্রাম্পের গাড়িবহর। তিনি জানিয়েছেন, এই বৈঠকের বিষয়ে পরে তিনি সাংবাদিকদের সাথে কথা বলবেন।

দ্বীপ ছেড়ে যায় কিমেরর গাড়িবহরও।

বিবৃতিটির বিষয়ে ট্রাম্প বলেছেন, বিবৃতিটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ এবং বেশ সুসংহত ছিল এবং তিনি ও কিম দুজনই এটি স্বাক্ষর করতে পেরে সম্মানিত বোধ করেছেন।

কিম বলেছেন, তারা একটি ঐতিহাসিক বৈঠক করেছেন এবং অতীতকে পেছনে ফেলে আসার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।
তিনি এই বৈঠককে সম্ভবপর করার জন্য ট্রাম্পকে ধন্যবাদ জানান।

নিউজবাংলাদেশ.কম/এফএ

নিউজবাংলাদেশ.কমে প্রকাশিত যে কোনও প্রতিবেদন, ছবি, লেখা, রেখাচিত্র, ভিডিও-অডিও ক্লিপ অনুমতি ছাড়া অন্য কোনও মাধ্যমে প্রকাশ, প্রচার করা কপিরাইট আইনে দণ্ডনীয়।
আপনার মন্তব্য