artk
শনিবার, জানুয়ারি ১৯, ২০১৯ ৪:০২   |  ৫,মাঘ ১৪২৫
শুক্রবার, মে ২৫, ২০১৮ ৫:২০

পাকিস্তানি ক্রিকেটারদের ‘স্মার্ট’ ঘড়িতেও নিষেধাজ্ঞা

 9
media

লর্ডস টেস্টের প্রথমদিনে দারুণ খেলেও যেমন ‘স্মার্ট’ ঘড়ি নিয়ে আলোচনার মুখে পড়েছে পাকিস্তান। আইসিসির দুর্নীতি দমন ইউনিট আকসুর চাওয়া মতো সেই ‘স্মার্ট’ ঘড়ি পরে আর মাঠে নামতে পারবেন না পাকিস্তানি ক্রিকেটাররা। বৃহস্পতিবার ইংল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজের প্রথম টেস্টে দারুণ সময় কাটিয়েছে পাকিস্তান।

মোহাম্মদ আব্বাস ও হাসান আলি ৪টি করে উইকেট নিয়ে ১৮৪ রানে গুটিয়ে দিয়েছেন ইংলিশদের। অ্যালিস্টার কুকের লড়াকু ৭০’ই কেবল স্বাগতিকদের লড়াইয়ের চিহ্ন। পরে নিজরা ১ উইকেটে ৫০ রান তুলে দিন শেষ করেছে সফরকারীরা। দারুণ খেলার দিন শেষ বিকেলে আলোচনার কেন্দ্রে ‘স্মার্ট’ ঘড়ি।

এধরনের ঘড়ি যোগাযোগমাধ্যম, ইন্টারনেট ব্যবহারের মাধ্যম হিসেবেও কাজ করতে পারে। সেটি করে মাঠের বাইরেও কথা বলা বা যোগাযোগ করা সম্ভব। সেখানেই আপত্তি জানিয়েছে আকসু। কোনো অখেলোয়াড়ি আচরণ বা দুর্নীতির অভিযোগ অবশ্য পাকিস্তানি খেলোয়াড়দের বিপক্ষে তোলেনি তারা।

আকসুর কর্মকর্তারা কয়েকজন খেলোয়াড়দের হাতে ‘স্মার্ট’ ঘড়ি দেখার পর পাকিস্তানের টিম ম্যানেজমেন্টকে জানায় যে এটি পরা যাবে না। এরপর সফরকারীরা সেটি মেনেও নিয়েছে। নিষেধাজ্ঞা নিয়ে পরে দিনের অন্যতম সফল পেসার হাসান আলি বলেছেন, স্মার্ট ঘড়ি পরার অনুমোদন নেই বলে আকসু আমাদের জানিয়েছে। আমরা আর ওটা পরবো না।”

লর্ডসে আসাদ শফিক, বাবর আজমসহ আরও কয়েকজন অ্যাপলের ওই স্মার্ট ঘড়ি পরে নেমেছিলেন বলে ইংলিশ সংবাদমাধ্যমগুলো জানিয়েছে। যেখানে ফোন বা যোগাযোগে সক্ষম কোনো ডিভাইস আকসুর কাছে জমা দিয়েই ম্যাচে নামার নিয়ম বেধে দেয়া আছে ক্রিকেটারদের জন্য।

নিউজবাংলাদেশ.কম/এসএস/এসজে