artk
১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, শনিবার ২৬ মে ২০১৮, ১০:২৪ পূর্বাহ্ণ

শিরোনাম

৬৬ শতাংশ কোম্পানির শেয়ার দরে ধস

স্টাফ রিপোর্টার | নিউজবাংলাদেশ.কম
প্রকাশ: ১৬২৬ ঘণ্টা, বুধবার ১৬ মে ২০১৮ || সর্বশেষ সম্পাদনা: ১৮৩২ ঘণ্টা, বুধবার ১৬ মে ২০১৮


৬৬ শতাংশ কোম্পানির শেয়ার দরে ধস - অর্থনীতি

দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) সপ্তাহের চতুর্থ কার্যদিবস ৬৫.৭৮ শতাংশ কোম্পানির শেয়ার ও ইউনিট দর কমেছে। অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) ৬৬.৩৭ শতাংশ কোম্পানির শেয়ার ও ইউনিট দর কমেছে। একই সময় দুই স্টকের সবধরনের সূচকে পতন হয়েছে।

এদিন নিয়ে শেয়ারবাজার টানা এগার কার্যদিবস ডিএসইর প্রধান সূচকে পতন হয়। তবে আগের দিনের তুলনায় এদিনে ডিএসইতে লেনদেন বাড়লেও সিএসইতে কমেছে।

বুধবার দুই স্টক এক্সচেঞ্জ সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

এদিন ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ৩৭.১৩ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে ৫৫১১.৭৬ পয়েন্টে। অপর সূচকগুলোর মধ্যে শরিয়াহ সূচক ৯.৬৬ পয়েন্ট ও ডিএসই-৩০ সূচক ১৬.৫৭ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে যথাক্রমে ১২৯১.০২ ও ২০৫৫.৫৫ পয়েন্টে। এদিন ডিএসইতে ৩৯৪.৮৬ কোটি টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে। যা আগের দিনে লেনদেন হয়েছিল ৩৫৫.২৯ কোটি টাকা। ডিএসইতে আজ হাত বদল হওয়া প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে শেয়ার ও ইউনিট দর বেড়েছে ৭১টির, কমেছে ২২৩টির বা ৬৫.৭৮ শতাংশ ও অপরিবর্তিত রয়েছে ৪৫টির দর।

ডিএসইতে দর হারিয়ে টপটেন লুজারের শীর্ষে অবস্থান ইস্টল্যান্ড ইন্স্যুরেন্সের শেয়ার। কোম্পানিটি আগের দিনের তুলনায় এদিনে দর হারিয়েছে ৯.৭২ শতাংশ। এরপর লুজারের ২য় স্থানে ৬.২৫ শতাংশ দর হারিয়ে ওঠে এসেছে জনতা ইন্স্যুরেন্সের শেয়ার। এরপর দর হারানোর শীর্ষে তালিকায় রয়েছে যথাক্রমে আরডি ফুড, ব্র্যাক ব্যাংক, কন্টিনেটাল ইন্স্যুরেন্স. গ্লোবাল হারভেস্ট, ফারইস্ট ফাইন্যান্স ও ইউনাইটেড ইন্স্যুরেন্স।

দর বেড়ে টপটেন গেইনারের শীর্ষে অবস্থান করেছে মুন্নু স্টাফলারের শেয়ার। এ কোম্পানিটি আগের দিনের তুলনায় এদিন দর বেড়েছে ৬.২৪ শতাংশ। এরপর টপটেন গেইনারের ২য় স্থানে ৬.০১ শতাংশ দর বেড়েছে বিএসআরএমের শেয়ার। এরপর শেয়ার দর বাড়ার তালিকায় রয়েছে শীর্ষে যথাক্রমে ইবিএল, কুইন সাউর্থ, স্টাইল ক্রাফট, বিজিআইসি, ইউনাইটেড পাওয়ার ও ফনিক্স ইন্স্যুরেন্স।

অপর শেয়ারবাজার সিএসইর সার্বিক সূচক সিএএসপিআই ১০৯.৯২ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে ১৭০১৭.৮৩ পয়েন্টে। অপর সূচকগুলোর মধ্যে সিএসই-৫০ সূচক ৮.৫২, সিএসই-৩০ সূচক ৫০.১০, সিএসসিএক্স ৬৫.৪৭ ও সিএসআই ৭.০৪ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে যথাক্রমে ১২৭৪.১২, ১৫৫৩৯.৮৪, ১০২৮৭.৯৮ ও ১১৫৬.৬৪ পয়েন্টে।

এদিন সিএসইতে লেনদেন হয়েছে ২৩.০৫ কোটি টাকা। এর আগে দিন লেনদেন হয়েছিল ২৯.৮০ কোটি টাকা। সিএসইতে হাত বদল হওয়া প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে শেয়ার ও ইউনিট দর বেড়েছে ৫০টির, কমেছে ১৫৭টির বা ৬৬.৩৭ শতাংশ ও অপরিবর্তিত রয়েছে ২৫টির দর।

নিউজবাংলাদেশ.কম/এমএজেড/এসজে

নিউজবাংলাদেশ.কমে প্রকাশিত যে কোনও প্রতিবেদন, ছবি, লেখা, রেখাচিত্র, ভিডিও-অডিও ক্লিপ অনুমতি ছাড়া অন্য কোনও মাধ্যমে প্রকাশ, প্রচার করা কপিরাইট আইনে দণ্ডনীয়।
আপনার মন্তব্য