artk
৩ কার্তিক ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, শুক্রবার ১৯ অক্টোবর ২০১৮, ১:৪৫ পূর্বাহ্ণ

শিরোনাম

খুলনার ফলাফল প্রত্যাখ্যান, সিইসির পদত্যাগ দাবি

স্টাফ রিপোর্টার | নিউজবাংলাদেশ.কম
প্রকাশ: ১৪২২ ঘণ্টা, বুধবার ১৬ মে ২০১৮ || সর্বশেষ সম্পাদনা: ২০০৮ ঘণ্টা, বুধবার ১৬ মে ২০১৮


খুলনার ফলাফল প্রত্যাখ্যান, সিইসির পদত্যাগ দাবি - রাজনীতি

খুলনা সিটি করপোরেশন নির্বাচনের ফলাফল প্রত্যাখ্যান করেছে বিএনপি। প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নূরুল হুদার পদত্যাগও চায় দলটি।

বুধবার সকালে রাজধানীর নয়াপল্টনের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে ভোটের ফল নিয়ে এই প্রতিক্রিয়া জানান দলের জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

রিজভী বলেন, “গতকালের ভোটে নিরস্ত্র ভোটারদের ওপর অবৈধ সরকারের অবৈধ ক্ষমতার প্রদর্শন হয়েছে। আমি দলের পক্ষ থেকে গতকালের খুলনা করেপোরশন নির্বাচনের ফলাফল প্রত্যাখ্যা করছি এবং প্রধান নির্বাচন কমিশনারের পদত্যাগ দাবি করছি।”

মঙ্গলবার খুলনা সিটির ভোট অনুষ্ঠিত হয়। এতে বিএনপির প্রার্থী নজরুল ইসলাম মঞ্জুকে বিপুল ব্যবধানে হারিয়ে মেয়র পদে বিজয়ী হয়েছেন আওয়ামী লীগের প্রার্থী তালুকদার আবদুল খালেক

ভোট দিতে গিয়ে ধানের শীষের ভোটার ও সমর্থকরা নিগৃহীত হয়েছে বলে অভিযোগ করেন রিজভী।

তিনি অভিযোগ করেন, গ্রুপে গ্রুপে বিভক্ত হয়ে তারা (আওয়ামী লীগ) লাইন ধরে বিভিন্ন কেন্দ্রে জালভোট প্রদান করে। অনেক কেন্দ্রে প্রিজাইডিং অফিসাররা আওয়ামী ঝটিকা বাহিনীকে একচেটিয়া ‘ভোট কাস্টিংয়ে’ সহায়তা করে। তারা কয়েক মিনিটের মধ্যে ব্যালট পেপারের বান্ডিলে সিল মেরে ব্যালট বাক্স ভর্তি করে। ম্যাজিস্ট্রেটরা এসব দেখেও না দেখার ভান করেছিলেন।

নির্বাচন কমিশনের দাবি, খুলনায় সিটি করপোরেশনের নির্বাচনে ভোটার উপস্থিতির হার ৬৫ শতাংশের বেশি।

বিএনপি বলছে, মূলত সেখানে ভোটার উপস্থিতি ছিল ৩০ শতাংশেরও কম।

‘সন্ত্রাসীদের হামলা ও বাধার কারণে অধিকাংশ কেন্দ্রেই ভোটাররা যেতে পারেনি’ বলে দাবি করেন রিজভী।

সংবাদ সম্মেলনে বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান এজেডএম জাহিদ হোসেন, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য আবদুস সালাম, যুগ্ম মহাসচিব খায়রুল কবির খোকন, কেন্দ্রীয় নেতা হাবিবুল ইসলাম হাবিব, তাইফুল ইসলাম টিপু, মুনির হোসেন ও বেলাল আহমেদ উপস্থিত ছিলেন।

নিউজবাংলাদেশ.কম/এফএ

নিউজবাংলাদেশ.কমে প্রকাশিত যে কোনও প্রতিবেদন, ছবি, লেখা, রেখাচিত্র, ভিডিও-অডিও ক্লিপ অনুমতি ছাড়া অন্য কোনও মাধ্যমে প্রকাশ, প্রচার করা কপিরাইট আইনে দণ্ডনীয়।
আপনার মন্তব্য
এই বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত