artk
৩ কার্তিক ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, বৃহস্পতিবার ১৮ অক্টোবর ২০১৮, ১১:৩৯ পূর্বাহ্ণ

শিরোনাম

বাজেটে দেশীয় শিল্প উদ্যোক্তারা সুবিধা পাবেন

স্টাফ রিপোর্টার | নিউজবাংলাদেশ.কম
প্রকাশ: ১৬২৩ ঘণ্টা, বুধবার ১৮ এপ্রিল ২০১৮ || সর্বশেষ সম্পাদনা: ১৬৩৫ ঘণ্টা, বুধবার ১৮ এপ্রিল ২০১৮


বাজেটে দেশীয় শিল্প উদ্যোক্তারা সুবিধা পাবেন - অর্থনীতি

দেশীয় শিল্প উদ্যোক্তাদের সুবিধা দিয়ে এবারের বাজেট হবে বলে জানিয়েছেন জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) চেয়ারম্যান মো. মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়া।

বুধবার এনবিআরের প্রধান কার্যালয়ে ইলেক্ট্রনিক্স ও ইলেকট্রিক্যালস, কম্পিউটার, আইসিটি ও টেলিযোগাযোগ খাতের বিভিন্ন সংগঠনের সঙ্গে প্রাক-বাজেট আলোচনায় তিনি এ কথা জানান।

চেয়ারম্যান বলেন, “যারা বিদেশ থেকে নিন্মমানের পণ্য এনে বাজার সয়লাব করে থাকে তা বন্ধ করা দরকার। তবে পুরোপুরি আমদানি বন্ধ করা যাবে না। আমরা দেশীয় শিল্পকে সুরক্ষা দিতে চাই।”

তিনি আরও বলেন, “এটা অত্যন্ত খুশির খবর যে প্রত্যেকেই শিল্প স্থাপনের দিকে আসতে চাইছে। আমরাও চাই দেশীয় শিল্পের বিকাশ ঘটুক। সেক্ষেত্রে রাজস্ব ছাড় দিয়ে হলেও উৎপাদন সক্ষমতা বৃদ্ধি করতে হবে। শুধু তাই নয় আমরা চাই দেশীয় শিল্পের উৎপাদন সক্ষমতা বৃদ্ধির পাশাপাশি রপ্তানিতে যেন যেতে পারি।  কারণ দেশে যে বেকার সমস্যা আছে তার সমাধান দরকার।

ব্যবসায়ীদের উদ্দেশে এনবিআর চেয়ারম্যান বলেন, “আমাদের দেশে জিডিপির আকার বৃদ্ধি পাচ্ছে এ অবস্থায় রাজস্ব আয় কমলে হবে না। প্রতি বছর আমাদের রাজস্ব আয় ১২ থেকে ১৬ শতাংশ রাজস্ব আয় বৃদ্ধি পাচ্ছে। এবার আশা করছি আর একটু বৃদ্ধি পাবে। চলতি অর্থ বছরে রাজস্ব আয়ে যে লক্ষ্যমাত্রা রয়েছে তা একটু কমানো হতে পারে।”

মোশাররফ হোসেন বলেন, “অনেকে বলছে কর করপোরেট কমালে রাজস্ব কমে যাবে। কিন্তু আমরা এ বিষয়ে এখনো কোনো সিদ্ধান্ত নেইনি। দেশীয় শিল্প উদ্যোগক্তাদের বিকাশে আমরা করপোরেট কর কমানোর বিষয়ে ইতিবাচক।”

চলতি অর্থ বছরে রাজস্ব ঘাটতি ৫০ হাজার কোটি টাকা হবে সিপিডির এমন বক্তব্যের প্রতি ইঙ্গিত দিয়ে এনবিআর চেয়ারম্যান বলেন, “এতটা হয়ত ঘাটতি হবে না। এখনো তিনমাস সময় আছে। সাধারণত রাজস্ব আদায়ের ক্ষেত্রে দেখা গেছে শেষ সময় আদায় বেশি হয়। সে হিসেবে এ সময় রাজস্ব আদায় বৃদ্ধি পাবে।”

অনুষ্ঠানে এনবিআর ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা ও বিভিন্ন সংগঠনের নেতরা উপস্থিত ছিলেন।

নিউজবাংলাদেশ.কম/এমএজেড/এসজে/এএইচকে

নিউজবাংলাদেশ.কমে প্রকাশিত যে কোনও প্রতিবেদন, ছবি, লেখা, রেখাচিত্র, ভিডিও-অডিও ক্লিপ অনুমতি ছাড়া অন্য কোনও মাধ্যমে প্রকাশ, প্রচার করা কপিরাইট আইনে দণ্ডনীয়।
আপনার মন্তব্য