artk
৩ কার্তিক ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, শুক্রবার ১৯ অক্টোবর ২০১৮, ১:৫৫ পূর্বাহ্ণ

শিরোনাম

রাজীবের দুর্ঘটনায় সড়কের সম্পর্ক নেই: সড়কমন্ত্রী

স্টাফ রিপোর্টার | নিউজবাংলাদেশ.কম
প্রকাশ: ১৪১৬ ঘণ্টা, বুধবার ১৮ এপ্রিল ২০১৮ || সর্বশেষ সম্পাদনা: ১৬৪৪ ঘণ্টা, বুধবার ১৮ এপ্রিল ২০১৮


রাজীবের দুর্ঘটনায় সড়কের সম্পর্ক নেই: সড়কমন্ত্রী - জাতীয়
সড়কে শৃঙ্খলা ফেরাতে অবিরাম ‘দৌড়ঝাপ’ করছেন সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। তবু চালকদের অসুস্থ প্রতিযোগিতা বন্ধ হয় না।

দুই বাসের চাপায় ডান হাত হারানো রাজীব মৃত্যুর কারণ সম্পর্কে বুধবার আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘‘সড়কের খারাপ-ভালো তো এর সঙ্গে জড়িত না। যারা চালাচ্ছে এবং গাড়িতে যারা আরোহী, তারা এর জন্য দায়ী। হতে পারে ওই ছেলেটাও (রাজীব) ভুল করতে পারে। তার দাঁড়ানোটা সঠিক নাও হতে পারে।’’

বুধবার সকালে রাজধানীর হাতিরঝিলে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআরটিসি) ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিদর্শনে গিয়ে সাংবাদিকের প্রশ্নের জবাবে ওবায়দুল কাদের এ মন্তব্য করেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘‘ছেলেটার (রাজীব) হাত চলে গেছে। একটা ইমপরট্যান্ট কাগজে আমি দেখলাম, সড়ক ব্যবস্থাপনাকে দায়ী করা হয়েছে। এর সঙ্গে সড়ক ব্যবস্থাপনার কী সম্পর্ক? এ ব্যাপারে চালকদের সচেতনতা খুব জরুরি। এখানে সড়কের কোনো সম্পর্ক নেই। গাড়ি ওভারটেক করতে গিয়ে একজনের হাত গেল, এর সঙ্গে সড়কের কী সম্পর্ক?”

এ সময় মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের উদাহরণ দিয়ে বলেন, ‘‘কোটা সংস্কার আন্দোলনে ভিসির বাড়ি তছনছ (র‍্যানস্যাকড) হলো, ভিসির কী সম্পর্ক কোটার সঙ্গে? এটাও (সড়ক দুর্ঘটনা) তো ও রকম একটা কিছু। সড়ক ব্যবস্থাপনার তো এখানে...পরিবহন ব্যবস্থাপনা দায়ী। আপনি সড়ক কেন লিখবেন?’’

এক সাংবাদিক তাকে প্রশ্ন করেন, ‘‘আপনি বারবার বলছিলেন ভিআইপিদের উল্টো পথে গাড়ি চালানোর কথা। কিন্তু আপনার গাড়িটি যেখানে রাখা, তার ঠিক উল্টো দিকে পার্কিং ছিল। আপনার গাড়িটিও এখন রাস্তায় দাঁড়ানো।’’

এ সময় মন্ত্রী কাদের বলেন, ‘‘আমি কিন্তু উল্টো পথে যাব না। আপনারাও তো উল্টাপাল্টা গাড়ি রেখেছেন। এগুলো এভাবে বলবেন না। আমি একমাত্র ব্যক্তি যে উল্টো পথে কোনো দিন যাইনি। ১৬ কিলোমিটার রাস্তা আমি চার ঘণ্টায় গেছি, তবু উল্টো পথে যাইনি। যে ভায়োলেট করে না, তাকে বলছেন। যারা করেন, তাদের বলেন না।’’
ভিআইপিদের এই প্রবণতার বিষয়ে তিনি বলেন, ‘‘দুদক ধরলে তখন বুঝবে।’’

ঢাকায় সিটিং সার্ভিস গাড়ির বিষয়ে মন্ত্রী বলেন, সিটিং সার্ভিসের বিষয়ে সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত হয়েছে। বিআরটিসির পক্ষ থেকে এ বিষয়ে ঢাকা মহানগর আঞ্চলিক পরিবহন কমিটির (আরটিসি) কাছে পাঠানো হয়েছে। আরটিসি বৈঠক করে এ ব্যাপারে বাস্তবায়নে যাবে। এ বিষয়ে সমাধান হয়েছে। তারা শিগগির বিষয়টি বাস্তবায়নের প্রক্রিয়া হাতে নেবে।

উল্লেখ্য, গত ৩ এপ্রিল বিআরটিসির একটি দোতলা বাসের পেছনের ফটকে দাঁড়িয়ে গন্তব্যে যাচ্ছিলেন রাজধানীর মহাখালীর সরকারি তিতুমীর কলেজের স্নাতকের (বাণিজ্য) দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র রাজীব হোসেন (২১)। তার হাতটি বাসের সামান্য বাইরে ছিল। হঠাৎ পেছন থেকে একটি বাস বিআরটিসির বাসটিকে পেরিয়ে যাওয়ার বা ওভারটেক করার জন্য বাঁ দিকে গা ঘেঁষে পড়ে। দুই বাসের প্রবল চাপে রাজীবের ডান হাত শরীর থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়।

নিউজবাংলাদেশ.কম/এমএস

নিউজবাংলাদেশ.কমে প্রকাশিত যে কোনও প্রতিবেদন, ছবি, লেখা, রেখাচিত্র, ভিডিও-অডিও ক্লিপ অনুমতি ছাড়া অন্য কোনও মাধ্যমে প্রকাশ, প্রচার করা কপিরাইট আইনে দণ্ডনীয়।
আপনার মন্তব্য
এই বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত