artk
৭ বৈশাখ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, শুক্রবার ২০ এপ্রিল ২০১৮, ১২:৫৯ অপরাহ্ন

শিরোনাম

অশ্বারোহীদের দাপটে কাঁপলো ময়মনসিংহের সার্কিট হাউজ মাঠ

উবায়দুল হক, ময়মনসিংহ প্রতিনিধি | নিউজবাংলাদেশ.কম
প্রকাশ: ২২২৫ ঘণ্টা, রোববার ১৫ এপ্রিল ২০১৮ || সর্বশেষ সম্পাদনা: ০৯০৪ ঘণ্টা, সোমবার ১৬ এপ্রিল ২০১৮


অশ্বারোহীদের দাপটে কাঁপলো ময়মনসিংহের সার্কিট হাউজ মাঠ - জাতীয়

৯০ থেকে ১২০ কিলোমিটার গতিতে ছুটছে প্রতিটি ঘোড়া। প্রতিটি ঘোড়ার রঙ আর আকার ভিন্ন। কেউ কারে নাহি ছাড়ে সমানে সমান অবস্থা একেকজন ঘোড়সওয়ারের। তারা নেমে পড়লেন অন্য রকম এক লড়াইয়ে। তার তাই, সবার দৃষ্টি ময়মনসিংহের ঐতিহাসিক সার্কিট হাউজ মাঠের মাঝখানে।

আবহমান বাংলার প্রাচীন ঐতিহ্য এ ঘোড় দৌড়কে ঘিরে রোববার (১৫ এপ্রিল) বিকেলে এখানে বসেছিল প্রায় লাখো মানুষের মিলন মেলা। বরাবরের মতো এবারো বাংলা নববর্ষকে ঘিরে এ নির্মল বিনোদনের আয়োজন করেন ময়মনসিংহ পৌরসভার মেয়র মো. ইকরামুল হক টিটু। এ প্রতিযোগিতাকে ঘিরে এদিন উৎসব আনন্দে মেতে উঠেছিল নগরীর বাসিন্দারা। তাদের বর্ষবরণ উৎসবে যোগ করে নতুন মাত্রা।

আধুনিকতার দাপটে হারিয়ে যাওয়া এ ঐতিহ্য উপভোগ করতে বাড়ির গৃহিণী থেকে শুরু করে জোয়ান-বুড়ো সবাই জড়ো হয়েছিলেন এ মাঠে। মাঠের চতুর্দিক মানুষের ভিড়ে লোকারণ্য হওয়ায় অনেকেই আশপাশের বিভিন্ন ক্লাবের ছাদে আবার অনেকেই গাছের মগডালে উঠে বসেন।

কদম ও দাপট দৌড়ে ময়মনসিংহ, টাঙ্গাইল, শেরপুর, জামালপুরসহ বিভিন্ন এলাকার অশ্বারোহীরা অংশ নেন। ৫৩টি ঘোড়া জয়ের জন্য উঠেপড়ে নেমে যান। মাঠের মঞ্চ থেকে ভাষ্যকার বার বার বলে যাচ্ছিলেন- ‘কদম ভাঙলে পুরস্কার নয়। এ দৌড়ে চার পা একসঙ্গে চলবে।’

ধীর গতির কদম দৌড় শেষেই শুরু হয় দাপট দৌড়। এ দৌড়ে গতির লড়াইয়ে নেমে যান একেকজন ঘোড়সওয়ার। এ দৌড় শুরু হবার আগেই ভাষ্যকার বলছিলেন, সাবধান। সবাই নিরাপদ দূরত্বে থাকুন।’

ভাষ্যকারের মুখে এমন উচ্চারণের সময়েই শুরু হয় অন্য রকম উত্তেজনা। হর্ষধ্বনি আর উল্লাসে যেন কেঁপে উঠছিল সার্কিট হাউজ মাঠ। নিয়ম ভেঙে ঘোড়ার পেছনে পেছনে ছুটে চলতে দেখা যায় বাঁধভাঙা আনন্দে বিভোর তরুণের দল।

এ ঘোড় দৌড় উৎসবে ময়মনসিংহ বিভাগীয় কমিশনার জিএম সালেহ উদ্দিন ও পুলিশের ময়মনসিংহ রেঞ্জের ডিআইজি নিবাস চন্দ্র মাঝি গ্রাম-বাংলার হারিয়ে যাওয়া এ ঐতিহ্যের তাঁক লাগানো উপস্থিতি বিমুগ্ধ চিত্তে উপভোগ করেন। লাখো মানুষের মিলনমেলায় উচ্ছ্বসিত হয়ে ওঠেন তারাও।

এর আগে ভিন্নধর্মী এ প্রতিযোগিতার আয়োজক ময়মনসিংহ পৌরসভার মেয়র মো. ইকরামুল হক টিটু লাখো মানুষের সঙ্গে শুভেচ্ছা বিনিময় করেন। তিনি বলেন, “দেশের সংস্কৃতির ঐতিহ্যময় ঘোড় দৌড় প্রতিযোগিতা আবারো ফিরিয়ে আনা হয়েছে। পুরনো এ ঐতিহ্য ধরে রাখতে আমাদের এ প্রয়াস অব্যাহত থাকবে।”

অনুষ্ঠানে জেলা প্রশাসক (ডিসি) ড. সুভাষ চন্দ্র বিশ্বাস ও জেলা পুলিশ সুপার (এসপি) সৈয়দ নুরুল ইসলামও পৃথকভাবে গ্রামীণ খেলাধূলার এ প্রাচীন ঐতিহ্য ধরে রাখতে ময়মনসিংহ পৌরসভার মেয়র মো. ইকরামুল হক টিটুর এ আয়োজনের প্রশংসা করেন।

প্রতিযোগিতায় ১ নং দাপট দৌড়ে প্রথম ইলিয়াস আর্মি পেয়েছেন একটি ফ্রিজ। দ্বিতীয় আবুল হাশেম ২১ ইঞ্চি কালার টিভি, তৃতীয় বোরহান ১৪ ইঞ্চি কালার টিভি পুরস্কার পেয়েছেন। ১ নং কদম দৌড়ে প্রথম আজাহার, ২ নং কদম দৌড়ে ইসহাক মেম্বার পুরস্কার হিসেবে পেয়েছেন কালার টিভি। অতিথিরা তাদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন।

নিউজবাংলাদেশ.কম/ওএইচ/এসডি

নিউজবাংলাদেশ.কমে প্রকাশিত যে কোনও প্রতিবেদন, ছবি, লেখা, রেখাচিত্র, ভিডিও-অডিও ক্লিপ অনুমতি ছাড়া অন্য কোনও মাধ্যমে প্রকাশ, প্রচার করা কপিরাইট আইনে দণ্ডনীয়।
আপনার মন্তব্য
এই বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত