artk
৭ বৈশাখ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, শুক্রবার ২০ এপ্রিল ২০১৮, ১:০১ অপরাহ্ন

শিরোনাম

ঘুষের টাকাসহ গ্রেপ্তার নৌপরিবহনের প্রধান প্রকৌশলী কারাগারে

স্টাফ রিপোর্টার | নিউজবাংলাদেশ.কম
প্রকাশ: ১৮১৭ ঘণ্টা, শুক্রবার ১৩ এপ্রিল ২০১৮ || সর্বশেষ সম্পাদনা: ১০৩৩ ঘণ্টা, শনিবার ১৪ এপ্রিল ২০১৮


ঘুষের টাকাসহ গ্রেপ্তার নৌপরিবহনের প্রধান প্রকৌশলী কারাগারে - কোর্ট-কাচারি

৫ লাখ টাকা ঘুষসহ হাতেনাতে গ্রেপ্তার নৌ-পরিবহন অধিদপ্তরের প্রধান প্রকৌশলী (চলতি দায়িত্ব) ড. এস এম নাজমুল হককে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত।

শুক্রবার ঢাকা মহানগর হাকিম সুব্রত ঘোষ শুভ জামিন নামঞ্জুর করে তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

এর আগে নাজমুল হককে আদালতে হাজির করে মামলার তদন্ত শেষ না হওয়া পর্যন্ত তাকে কারাগারে আটক রাখার আবেদন করেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) সহকারী পরিচালক আবদুল ওয়াদুদ। একই সঙ্গে তিনি জামিন নামঞ্জুরের আবেদন করেন।

অপরদিকে নাজমুল হকের পক্ষে তার আইনজীবী রফিকুল ইসলাম জামিন চেয়ে শুনানি করেন। দুদকের পক্ষে আবুল হাসান জামিনের বিরোধিতা করেন। উভয়পক্ষের শুনানি শেষে আদালত জামিন নামঞ্জুর করে তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

উল্লেখ্য, গত বৃহস্পতিবার বিকেলে রাজধানীর সেগুনবাগিচায় সেগুন রেস্তোরাঁ থেকে নাজমুল হককে ঘুষের টাকাসহ গ্রেপ্তার করে দুদকের পরিচালক নাসিম আনোয়ারের নেতৃত্বাধীন একটি দল।

দুদক সূত্রে জানা যায়, মেসার্স সৈয়দ শিপিং লাইন্সের এমভি প্রিন্স অব সোহাগ নামে যাত্রীবাহী নৌযানের রিসিভ নকশা অনুমোদন এবং নতুন নৌযানের নামকরণের অনাপত্তিপত্রের জন্য নাজমুল হকের কাছে গেলে তিনি ১৫ লাখ টাকা ঘুষ দাবি করেন। সংশ্লিষ্ট ব্যক্তি বিষয়টি দুর্নীতি দমন কমিশনকে অবহিত করেন। এরপর দুদক সব বিধি-বিধান অনুসরণ করে কমিশনের ঢাকা বিভাগীয় কার্যালয়ের পরিচালক নাসিম আনোয়ারে নেতৃত্বে ফাঁদ মামলা পরিচালনার অনুমতি দেয়। এর অংশ হিসেবে বৃহস্পতিবার বিকেল পৌনে ৬টায় ঘুষের টাকার কিস্তি বাবদ ৫ লাখ টাকা রাজধানীর সেগুন হোটেলে বসে যখন নাজমুল হক গ্রহণ করছিলেন, ঠিক তখনই ওঁৎ পেতে থাকা দুদকের বিশেষ দলের সদস্যরা ঘুষের টাকাসহ তাকে হাতেনাতে গ্রেপ্তার করে।

রাজধানীর রমনা মডেল থানায় দুদকের সমন্বিত জেলা কার্যালয় ঢাকা-১ এর সহকারী পরিচালক আবদুল ওয়াদুদ বাদী হয়ে এ বিষয়ে মামলা দায়ের করেন।

একইভাবে গত বছরের ১৮ জুলাই নৌ-পরিবহন অধিদপ্তরের তৎকালীন প্রধান প্রকৌশলী ফখরুল ইসলামকে ঘুষসহ গ্রেপ্তার করেছিল দুদক।

নিউজবাংলাদেশ.কম/এসজে

নিউজবাংলাদেশ.কমে প্রকাশিত যে কোনও প্রতিবেদন, ছবি, লেখা, রেখাচিত্র, ভিডিও-অডিও ক্লিপ অনুমতি ছাড়া অন্য কোনও মাধ্যমে প্রকাশ, প্রচার করা কপিরাইট আইনে দণ্ডনীয়।
আপনার মন্তব্য
এই বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত