artk
১২ আষাঢ় ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, সোমবার ২৫ জুন ২০১৮, ৪:৩৬ পূর্বাহ্ণ

শিরোনাম

ভারতের বৈচিত্রময় বোলিং নিয়ে চিন্তায় বাংলাদেশ

স্পোর্টস রিপোর্টার | নিউজবাংলাদেশ.কম
প্রকাশ: ১৮২২ ঘণ্টা, মঙ্গলবার ১৩ মার্চ ২০১৮


ভারতের বৈচিত্রময় বোলিং নিয়ে চিন্তায় বাংলাদেশ - খেলা

ত্রিদেশীয় টি-টোয়েন্টি সিরিজে ভারতের দুটি জয়েই ম্যাচ সেরা হয়েছে তাদের দুই পেসার। স্পিন বোলাররাও অসাধারণ বোলিং করছে। ভারতের বিপক্ষে কাল জিততে হলে অবশ্যই বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানদের এই বৈচিত্রময় বোলিং আক্রমণ সামলাতে হবে। মঙ্গলবার ম্যাচ পূর্ব সংবাদ সম্মেলনে এমনটাই জানিয়েছেন অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ।

দুই দলের প্রথম ম্যাচে ভাগ্য গড়ে দিয়েছিল ভারতীয় বোলিংই। বোলিংয়ে দারুণ পারফরম্যান্স করেই ম্যাচ সেরা হয়েছিলেন পেস বোলিং অলরাউন্ডার বিজয় শঙ্কর। বাঁহাতি পেসার জয়দেব উনাদকাট উইকেট নিয়েছিলেন তিনটি। গতকাল সোমবার শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ভারতের জয়ের ভিতও গড়ে দিয়েছিলেন বোলাররাই। ৪ উইকেট নিয়ে ম্যাচ সেরা শার্দুল।

প্রথম ম্যাচে ভারতের বিপক্ষে বাংলাদেশ সংগ্রহ করেছিল ১৩৯ রান। কাল একই ভেন্যুতে সন্ধা সাড়ে সাতটায় দ্বিতীয় ম্যাচের আগে তাই মাহমুদউল্লাহর ভাবনা ভারতের বোলিং সামলানো নিয়ে। এ বিষয়ে তিনি বলেন,“ওদের বোলারদের কৃতিত্ব দিতেই হবে, যেভাবে তারা বোলিং করছে। ওদের পুরো বোলিং ইউনিটই গতি বৈচিত্র খুব ভালো ভাবে করতে পারছে। শুধু পেসাররা নয়, স্পিনাররাও। ওয়াশিংটন সুন্দর, যুজবেন্দ্র চেহেল প্রায়ই অনেক মন্থর বল করছে, টার্নও করছে বল। পেসাররাও গতির হেরফের খুব ভালো করছে। আমাদের এই বিষয়গুলো খেয়াল রাখতে হবে।”

নিজেদের বোলিংয়ে নিয়ে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ বলেন, “প্রথম ম্যাচে ওরা ভালো বোলিং করেছিল। আমাদের যেটা বিশ্বাস জুগিয়েছিল। পরের ম্যাচে স্কিলগুলোর প্রয়োগ ঠিকমতো করতে পারেনি বলে বেশি রান হয়ে গিয়েছিল। ব্যাটিং বান্ধব উইকেটে যতটা কম রান দেওয়া যায়, তত রান কম তাড়া কতে হবে। এটা নিয়ে আমাদের একটু ভাবতে হবে।”

এছাড়া নিজেদের স্পিন বোলিং নিয়ে রিয়াদ আরও বলেন,“আমাদের স্পিনাররা কিন্তু খারাপ করেনি। গত ম্যাচেও মিরাজ ও অপু বোলিং করার সময় রান আটকানো গিয়েছিল কিছু সময়। ২০ বলের মতো মনে হয় বাউন্ডারি হয়নি। আমার স্পিনারদের ওপর আমার ভরসা আছে। তার পরও বোলিং বিভাগকে আরেকটু এগিয়ে আসতে হবে। আশা করি, সেটা তারা পারবে।”

নিউজবাংলাদেশ.কম/এসএস/এসজে

নিউজবাংলাদেশ.কমে প্রকাশিত যে কোনও প্রতিবেদন, ছবি, লেখা, রেখাচিত্র, ভিডিও-অডিও ক্লিপ অনুমতি ছাড়া অন্য কোনও মাধ্যমে প্রকাশ, প্রচার করা কপিরাইট আইনে দণ্ডনীয়।
আপনার মন্তব্য