artk
৯ আশ্বিন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, মঙ্গলবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১:০২ পূর্বাহ্ণ

শিরোনাম

ইউডা কোডা ও সোডার পুনর্মিলনী

বিশ্ববিদ্যালয় সংবাদদাতা | নিউজবাংলাদেশ.কম
প্রকাশ: ০৯১৬ ঘণ্টা, শনিবার ১০ মার্চ ২০১৮ || সর্বশেষ সম্পাদনা: ০৯১৭ ঘণ্টা, শনিবার ১০ মার্চ ২০১৮


ইউডা কোডা ও সোডার পুনর্মিলনী - শিক্ষাঙ্গন

সিফাদ ফাউন্ডেশনের (কমপ্লিট এডুকেশন ফর অলটারনেটিভ ডেভেলপমেন্ট-সিইএফএডি) অধিভুক্ত ইউনিভার্সিটি অব ডেভেলপমেন্ট অল্টারনেটিভ (ইউডা), কলেজ অব ডেভেলপমেন্ট অল্টারনেটিভ (কোডা), স্কুল অব ডেভেলপমেন্ট অল্টারনেটিভ (সোডা) এর বর্তমান ও সাবেক শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের নিয়ে শুক্রবার সকাল ৮টা থেকে সন্ধ্যা ৭টা পর্যন্ত মোহাম্মদপুর শারীরিক শিক্ষা মাঠ প্রাঙ্গণে এক পুনর্মিলনী অনুষ্ঠিত হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন সোডা, কোডা ও ইউডার প্রতিষ্ঠাতা ও সভাপতি অধ্যাপক মুজিব খান।

তিনি তার স্মৃতিচারণমূলক ভাষণে বলেন, “গত তিন দশক আগে ১৯৭৮ সালের স্টুডেন্ট ওয়েলফেয়ার অর্গানাইজেশন অব বাংলাদেশের তিন স্তরের বিকল্পধারার একটি পরিপূর্ণ শিক্ষা কর্মসূচির ধারাবাহিকতায় সোডা, কোডা ও ইউডা প্রতিষ্ঠা লাভ করে।”

তিনি সবাইকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন ও যে সব শিক্ষার্থী উচ্চগবেষণায় দেশের বাইরে থাকায় পুনর্মিলনীতে অংশগ্রহণ করতে পারেনি তাদের জন্য দুঃখ প্রকাশ করেন। তিনি আরও বলেন, “কোনো বিষয়ে ভালো ফল পাওয়া যায় তখনই, যখন এর কাঁচামাল বা উপাদানগুলো ভালো হয়। যে কোনো কিছুর মতো মানুষকে ভালো মানুষ হতে চাইলে তার বিশুদ্ধতা, নৈতিকতা দায়িত্বশীলতার সঠিক জ্ঞান আহরণ করা প্রয়োজন। আর সেই গুণাবলি অর্জিত হয় তার জ্ঞান, আচরণ ও দৈনন্দিন অভ্যাস থেকে। ইউডা, সোডা, কোডা প্রতিষ্ঠান তার সন্তানদের সে আলোকে গড়ে তোলার চেষ্টা করে।”

পুনর্মিলনীতে সোডার শিশুদের সাংস্কৃতিক পরিবেশনা দর্শকদের মাত করে দেয়। একে একে কোডা ও ইউডার সাবেক ও বর্তমান শিক্ষার্থীরা গানে গানে মাতোয়ারা করে মোহাম্মদপুর শারীরিক শিক্ষা কলেজ মাঠের প্রাঙ্গণ।

মধ্যাহ্নভোজের পর সাংস্কৃতিক ও স্মৃতিচারণমূলক অনুষ্ঠানে যোগ দেন কোডার সাবেক শিক্ষক জনপ্রিয় নাট্যাভিনেতা চঞ্চল চৌধুরী।

পুনর্মিলনিতে ইউডার উপদেষ্টা অধ্যাপক ড. এমাজউদ্দিন, উপাচার্য ড. রফিকুল ইসলাম শরিফ, উপ-উপাচার্য, বিভিন্ন অনুষদের ডিন, চেয়্যারমান, সোডা কোডা ও ইউডার বর্তমান ও সাবেক শিক্ষক শিক্ষার্থী ও তাদের পরিবার পরিজন উপস্থিত ছিলেন।

নিউজবাংলাদেশ.কম/এফএ

নিউজবাংলাদেশ.কমে প্রকাশিত যে কোনও প্রতিবেদন, ছবি, লেখা, রেখাচিত্র, ভিডিও-অডিও ক্লিপ অনুমতি ছাড়া অন্য কোনও মাধ্যমে প্রকাশ, প্রচার করা কপিরাইট আইনে দণ্ডনীয়।
আপনার মন্তব্য