artk
৯ আশ্বিন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, মঙ্গলবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১:২৯ পূর্বাহ্ণ

শিরোনাম

প্রোটিনযুক্ত একটি খাবার শিমের বিচি

লাইফস্টাইল প্রতিবেদক | নিউজবাংলাদেশ.কম
প্রকাশ: ১৩০৭ ঘণ্টা, শুক্রবার ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ || সর্বশেষ সম্পাদনা: ১৩০৯ ঘণ্টা, শুক্রবার ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৮


প্রোটিনযুক্ত একটি খাবার শিমের বিচি - লাইফস্টাইল

সাদা ভাতের সাথে মিশ্রিত করা কালো শিমের বিচি পুরোপুরি প্রোটিন সমৃদ্ধ একটি খাবার হয়ে ওঠে। যারা বেশি সবজি খেতে পছন্দ করেন না খুব একটা, তারা ভিটামিনের চাহিদা মেটাতে এই খাবারটি খেতে পারেন। 

১.  স্বাস্থ্য উপযোগিতা :  কালো শিমের বিচি মানবদেহে রক্তের সুগার নিয়ন্ত্রণ করে এবং গ্লাইকোজেন সরবরাহ করে। দেহে কার্বোহাইড্রেট এবং প্রোটিনের মাত্রা ঠিক রাখে। এছাড়া হজমে সহায়তা করে। 

২.  ক্যান্সার প্রতিরোধ :  কালো শিমের বিচিতে বিপুল অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট সমৃদ্ধ ৮ ধরনের ফ্ল্যাভোনয়েডস রয়েছে যা ক্যান্সার প্রতিরোধে সহায়ক। কোলন অ্যাডেনোমার বিপরীতে শক্তিশালী অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট হিসেবে কাজ করে থাকে। 

৩.  হৃদযন্ত্রের স্বাস্থ্য :  কালো শিমের বিচিতে প্রচুর পরিমাণে দ্রবণীয় ফাইবার রয়েছে যেটি রক্তে কোলেস্টরেলের মাত্রা নিয়ন্ত্রণ করে থাকে। করোনারি হৃদরোগ এবং হার্ট অ্যাটাকের ঝুঁকি কমায়। এছাড়া শিমের বিচিতে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট এবং অ্যান্টি ইনফ্ল্যামেটরি উভয় উপাদানই রয়েছে যা হৃদরোগ নিয়ন্ত্রণ করে। 

৪.  পরিপাক নালীর উপকারিতা:  প্রচুর পরিমাণে প্রোটিন এবং ফাইবারযুক্ত কালো শিমের বিচি হজমে সহায়তার মাধ্যমে পরিপাকনালীর উপকার করে। এছাড়া দেহের বিভিন্ন রাসায়নিক পদার্থের মাত্রা নিয়ন্ত্রণ করে থাকে। 

 

৫.  চর্বি নিয়ন্ত্রণ :  কালো শিমের বিচিতে মোটামুটিভাবে ২-৩ শতাংশ চর্বি রয়েছে তবে কোলেস্টরেল একেবারেই নেই। এটি শরীরের অতিরিক্ত ফ্যাট নিয়ন্ত্রণ করে থাকে এবং স্বাস্থ্যোপযোগি ফ্যাট প্রদান করে থাকে। 

৬.  স্নায়ুতন্ত্রের স্বাস্থ্য :  শিমের বিচিতে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন বি৬ বা ফোলেট আছে। স্নায়ুতন্ত্রের স্বাস্থ্য এই উপাদানটির উপরে নির্ভরশীল যেটি শরীরে অ্যামিনো অ্যাসিড তৈরি করে কাজ সম্পাদন করে। গর্ভবতী মহিলাদের জন্য এই খাবারটি অত্যন্ত উপকারী। 

এছাড়াও এই পুষ্টিকর খাবারটি শরীরের অন্যান্য উপকারও করে থাকে। ত্বকের জন্য এই খাবার বেশ উপযোগী। 

নিউজবাংলাদেশ.কম/এমএস

নিউজবাংলাদেশ.কমে প্রকাশিত যে কোনও প্রতিবেদন, ছবি, লেখা, রেখাচিত্র, ভিডিও-অডিও ক্লিপ অনুমতি ছাড়া অন্য কোনও মাধ্যমে প্রকাশ, প্রচার করা কপিরাইট আইনে দণ্ডনীয়।
আপনার মন্তব্য