artk
৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, সোমবার ১৯ নভেম্বর ২০১৮, ৪:২৯ পূর্বাহ্ণ

শিরোনাম

মোবাইলে মোবাইলে পদার্থবিজ্ঞানের প্রশ্ন

চট্টগ্রাম সংবাদদাতা | নিউজবাংলাদেশ.কম
প্রকাশ: ১৩০৫ ঘণ্টা, মঙ্গলবার ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ || সর্বশেষ সম্পাদনা: ১৫৪০ ঘণ্টা, মঙ্গলবার ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৮


মোবাইলে মোবাইলে পদার্থবিজ্ঞানের প্রশ্ন - শিক্ষাঙ্গন
ছবি: সংগ্রহ

চলতি এএসসি পরীক্ষার প্রশ্নফাঁস শুরু থেকে হচ্ছে বলে জানা গেছে। এরই ধারাবাহিকতায় এবার চট্টগ্রামে পদার্থবিজ্ঞান পরীক্ষার আগেই ফাঁস হয়েছে প্রশ্নপত্র। সেখানকার এক স্কুলের পরীক্ষার্থীদের মোবাইল ফোনে পাওয়া গেছে ফাঁস হওয়া প্রশ্ন। যা আসল প্রশ্নের সঙ্গে মিলে গেছে।

বন্দরনগরীর ওয়াসা মোড়ে পরীক্ষার আগে দাঁড়িয়ে থাকা শ্যামলী পরিবহনের একটি বাসে অভিযান চালিয়ে ওই প্রশ্ন পাওয়া যায় বলে চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সৈয়দ মুরাদ আলী জানান।

ওই বাসে পটিয়া আইডিয়াল স্কুলের ৫০ জন পরীক্ষার্থী ছিল। বাংলাদেশ মহিলা সমিতি (বাওয়া) উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে পরীক্ষায় দেয়ার জন্য তারা ওয়াসার মোড়ে বাসের ভেতরে অপেক্ষা করছিল।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট বলেন, “শিক্ষার্থীদের হাতে পাওয়া পাঁচটি ফোনেই পদার্থ বিজ্ঞানের এমসিকিউ প্রশ্ন ছিল। সেসব প্রশ্ন মিলে গেছে। আমরা তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেব।”

চলমান এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষার প্রশ্ন ফাঁস ঠেকাতে কোনো উদ্যোগ কাজে না আসায় গত রোববার মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক (মাউশি), সব বিভাগীয় কমিশনার ও জেলা প্রশাসক (ডিসি) এবং শিক্ষা বোর্ডগুলোর চেয়ারম্যানদের নতুন নির্দেশনা পাঠানো হয়।

নির্দেশনায় বলা হয়, পরীক্ষা শুরুর ৩০ মিনিট আগে সব পরীক্ষার্থীকে হলে ঢুকে আসনে বসতে হবে। ওই সময়ের পরে আর কোনো পরীক্ষার্থীকে কেন্দ্রে প্রবেশ করতে দেওয়া যাবে না। আর পরীক্ষা কেন্দ্রের ২০০ মিটারের মধ্যে কিংবা পরীক্ষা কেন্দ্রর ভেতরে মোবাইল ফোনসহ কাউকে পাওয়া গেলে তাকে গ্রেপ্তার করে আইনগত ব্যবস্থা নিতে হবে।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মুরাদ আলী জানান, মঙ্গলবার সকালে পরীক্ষা শুরুর প্রায় এক ঘণ্টা আগে ওয়াসা মোড়ে একটি বাসে পরীক্ষার্থীদের অপেক্ষা করতে দেখে তাদের সন্দেহ হয়। বাসে উঠে তারা দেখতে পান, শিক্ষার্থীরা কোনো কিছু পড়ছে। পরে তাদের তল্লাশি করে বেশ কিছু মোবাইল ফোন পাওয়া যায়। সেসব ফোনে কিছু প্রশ্নের সফট কপি পাই আমরা। সেগুলো তারা হোয়াটসঅ্যাপের মাধ্যমে পেয়েছে বলে আমাদের জানিয়েছে।

চট্টগ্রামের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা) মো. হাবিবুর রহমান এবং চট্টগ্রাম শিক্ষাবোর্ডের কর্মকর্তারা বলেছেন, পরীক্ষা পরিচালনার বিধিমালা অনুযায়ী তারা সংশ্লিষ্ট শিক্ষার্থীদের বিষয়ে ব্যবস্থা নেবেন।

নিউজবাংলাদেশ.কম/এমএস

নিউজবাংলাদেশ.কমে প্রকাশিত যে কোনও প্রতিবেদন, ছবি, লেখা, রেখাচিত্র, ভিডিও-অডিও ক্লিপ অনুমতি ছাড়া অন্য কোনও মাধ্যমে প্রকাশ, প্রচার করা কপিরাইট আইনে দণ্ডনীয়।
আপনার মন্তব্য