artk
৫ ভাদ্র ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, সোমবার ২০ আগস্ট ২০১৮, ১:১৪ অপরাহ্ন

শিরোনাম

‘তারেককে জোর করে আসামি করা হয়েছে’

স্টাফ রিপোর্টার | নিউজবাংলাদেশ.কম
প্রকাশ: ২১৫৯ ঘণ্টা, সোমবার ২২ জানুয়ারি ২০১৮


‘তারেককে জোর করে আসামি করা হয়েছে’ - কোর্ট-কাচারি

২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলার মামলায় বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানকে জোর করে আসামি করা হয়েছে বলে দাবি করেছেন তার পক্ষে রাষ্ট্র নিয়োজিত আইনজীবী এ কে এম আখতার হোসেন।

সোমবার যুক্তিতর্কে তিনি বলেছেন, “২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলার মামলার এজাহার এবং একাধিক জিডির একটিতেও নাম নেই। প্রথম যে অভিযোগপত্র দেওয়া হয়, তাতেও নাম ছিল না। পরে রাষ্ট্রপক্ষের আবেদন ও আদালতের অনুমোদনের পরিপ্রেক্ষিতে করা অধিকতর তদন্তে একরকম জোর করে এই মামলায় বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের নাম ঢোকানো হয়েছে।”

পুরান ঢাকার নাজিমুদ্দিন রোডে স্থাপিত বিশেষ আদালতে গ্রেনেড হামলাসংক্রান্ত হত্যা ও বিস্ফোরক দ্রব্য আইনে করা মামলা দুটির বিচারকাজ চলছে।

আখতার হোসেন বলেন, “অধিকতর তদন্ত প্রতিবেদনে অভিযোগ করে বলা হয়েছে, ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলাকারীদের সব ধরনের প্রশাসনিক সহযোগিতার আশ্বাস দেন তারেক রহমান। কিন্তু বাস্তবতা হলো ওই হামলার সময় তারেক রহমান বিএনপি কিংবা চারদলীয় জোট সরকারের এমন দায়িত্বশীল পর্যায়ের কেউ ছিলেন না যে তিনি এ ধরনের আশ্বাস দিতে পারেন। তা ছাড়া মামলার সাক্ষ্য-প্রমাণে রাষ্ট্রপক্ষ কোনোভাবেই এ ঘটনার সঙ্গে তারেক রহমানের সম্পৃক্ততা প্রমাণ করতে পারেনি। তাই এটা পরিষ্কার যে এ মামলায় তাকে উদ্দেশ্যমূলকভাবে জড়ানো হয়েছে।”

অন্যদিকে রাষ্ট্রপক্ষের প্রধান আইনজীবী সৈয়দ রেজাউর রহমান সাংবাদিকদের বলেন, “উদ্দেশ্যমূলকভাবে কাউকে এ মামলায় জড়ানো হয়নি। গ্রেনেড হামলার ষড়যন্ত্রের সঙ্গে তারেক রহমান যে জড়িত, রাষ্ট্রপক্ষ তা সন্দেহাতীতভাবে প্রমাণ করতে সক্ষম হয়েছে।”

আদালতের কার্যক্রমের শুরুতে কারাগারে আটক আসামি মাওলানা আবদুল হান্নান ওরফে সাব্বিরের পক্ষে আইনজীবী মাঈনুদ্দিন মিয়া আগের দিনের ধারাবাহিকতায় যুক্তিতর্ক উপস্থাপন শুরু করেন। এরপর তারেক রহমানের পক্ষে যুক্তিতর্ক উপস্থাপন শুরু হয়। বেলা পৌনে তিনটা পর্যন্ত তা চলে। এরপর আজ মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১০টা পর্যন্ত আদালতের কার্যক্রম মুলতবি করেন ঢাকার দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনাল-১-এর বিচারক শাহেদ নুর উদ্দিন।

এ মামলায় সোমবার পর্যন্ত ১৬ জন আসামির পক্ষে যুক্তিতর্ক উপস্থাপন শেষ হয়েছে। মঙ্গলবারও তা চলবে।

নিউজবাংলাদেশ.কম/এনডি

নিউজবাংলাদেশ.কমে প্রকাশিত যে কোনও প্রতিবেদন, ছবি, লেখা, রেখাচিত্র, ভিডিও-অডিও ক্লিপ অনুমতি ছাড়া অন্য কোনও মাধ্যমে প্রকাশ, প্রচার করা কপিরাইট আইনে দণ্ডনীয়।
আপনার মন্তব্য
এই বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত