artk
১ অগ্রহায়ণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, বৃহস্পতিবার ১৫ নভেম্বর ২০১৮, ৮:১৭ অপরাহ্ন

শিরোনাম

বিশ্বের সবচেয়ে সফল ১০টি স্টার্টআপ

| নিউজবাংলাদেশ.কম
প্রকাশ: ১৬২৬ ঘণ্টা, সোমবার ২২ জানুয়ারি ২০১৮ || সর্বশেষ সম্পাদনা: ১৬২৭ ঘণ্টা, সোমবার ২২ জানুয়ারি ২০১৮


বিশ্বের সবচেয়ে সফল ১০টি স্টার্টআপ - আই-টেক

বিলিয়ন ডলার ক্লাবের তালিকায় উবার, এয়ার বিএনবিসহ যেসব স্টার্টআপ আছে, তাদের মূল্যমান কত, কবে এগুলোর প্রতিষ্ঠা হয়েছে, কে প্রতিষ্ঠাতা? চলুন জেনে নেয়া যাক এক পলকে

উবার
মূল্যমান ৬৮ বিলিয়ন মার্কিন ডলার। ২০০৯ সালে এটি প্রতিষ্ঠিত হয়। এর প্রধান নির্বাহী (সিইও) ট্রাভিস ক্যালানিক। উবার হলো বিশ্বের সবচেয়ে মূল্যবান স্টার্টআপ। কোনো গাড়ির সেবা পেতে স্মার্টফোনে অ্যাপের মাধ্যমে ব্যবহার করা হয় উবার।

ডিডি চুঝিং
ডিডি কুয়াইদি আবার ডিডি চুঝিং নামেও পরিচিত। এটি চীনের সর্ববৃহৎ গাড়ি সেবা দাতা প্রতিষ্ঠান। ২০১২ সালে এটি প্রতিষ্ঠিত হয়। এর মূল্যমান ৫৬ বিলিয়ন মার্কিন ডলার৷ সিইও ওয়েই চেং।

শাওমি
শাওমি কর্পোরেশনের সদরদপ্তর চীনের রাজধানী বেইজিংয়ে। বিশ্বের চতুর্থ বৃহৎ স্মার্টফোন তৈরিকারী প্রতিষ্ঠান এটি। এর মূল্যমান ৪৬ বিলিয়ন মার্কিন ডলার। ২০১০ সালে এটি প্রতিষ্ঠিত হয়। এর সিইও জুন লেই।

এয়ারবিএনবি
২০০৮ সালে প্রতিষ্ঠিত এই স্টার্টআপ কোম্পানিটি মূলত একটি সোশ্যাল ওয়েবসাইট। কোথাও বেড়াতে বা কাজে গেলে এয়ারবিএনবিতে মানুষ থাকার জায়গা খোঁজে। ১৯০টি দেশের ৩৪ হাজার শহরে এটি কাজ করে। প্রতিষ্ঠাতা সানফ্রান্সিস্কোর ব্রায়ান চেস্কি, জো গেবিয়া এবং নাথান ব্লেচারজিক। এর মূল্যমান ৩১ বিলিয়ন মার্কিন ডলার।

স্পেসএক্স
স্পেস এক্সপ্লোরেশন টেকনোলজিস কর্পোরেশন বা স্পেসএক্সের সদরদপ্তর ক্যালিফোর্নিয়ার হাওথ্রোনে। এটি মহাকাশ যান, রকেট উৎক্ষেপণ– এই সংশ্লিষ্ট যন্ত্রপাতি ও নকশা তৈরি করে। ২০০২ সালে এটি প্রতিষ্ঠিত হয়। প্রতিষ্ঠাতা এলোন মাস্ক। এর মূল্যমান ২১ বিলিয়ন মার্কিন ডলার।

উইওয়ার্ক
বিভিন্ন পেশার মানুষ এই স্টার্টআপের সাহায্যে একই অফিসে বসে কাজ করতে পারেন। উত্তর অ্যামেরিকা, ইউরোপ এবং ইসরায়েলের ২০টিরও বেশি শহরে এটি চালু আছে। এর ভোক্তা হলেন স্টার্টআপ, ফ্রিল্যান্সার এবং ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী, যারা মাসিক ভাড়ায় বিভিন্ন স্থানে এক বা একাধিক অফিসে কাজ করতে পারেন। এর মূল্যমান ২০ দশমিক ২ বিলিয়ন ডলার। ২০১০ সালে নিউইয়র্কে এটি প্রতিষ্ঠিত হয়।

প্যালানটির
প্যালানটির টেকনোলজিস ইনকরপোরেশন একটি বেসরকারি অ্যামেরিকান সফটওয়্যার এবং সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠান, যারা মূলত তথ্য বিশ্লেষণ করার জন্য বিশেষভাবে পরিচিত। সরকারি প্রতিষ্ঠান, যেমন সিআইএ, এফবিআই– এদের সফটওয়্যার ব্যবহার করে থাকে বিপুল পরিমাণ তথ্য বিশ্লেষণের জন্য। এর মূল্যমান ২০ বিলিয়ন মার্কিন ডলার। ২০০৪ সালে এটি প্রতিষ্ঠিত হয়।

লুফ্যাক্স
এই স্টার্টআপের পুরো নাম লুজিয়াসুই ইন্টারন্যাশনাল ফিন্যানশিয়াল অ্যাসেট এক্সচেঞ্জ করপোরেশন লিমিটেড। এটি একটি অনলাইন ইন্টারনেট ফিন্যান্স মার্কেট প্লেস, যার সদরদপ্তর সাংহাইয়ের লুজিয়াসুইয়ে। ২০১১ সালে এর পথচলা শুরু হয়। এর মূল্যমান ১৮ দশমিক ৫ বিলিয়ন মার্কিন ডলার।

মেইতুয়ান-ডিয়ানপিং
মেইতুয়ান-ডিয়ানপিং চীনের সর্ববৃহৎ ‘গ্রুপ ডিল ওয়েবসাইট’। অর্থাৎ এই কোম্পানি আপনাকে কেনাকাটার জন্য ভাউচার, স্থানীয় নানা সেবা, বিনোদনের ভাউচার, যেমন সিনেমার টিকেট এবং রেস্তোরাঁর বুকিং– এসব সেবা দেয়। চীনের রাজধানী বেইজিংয়ে ২০১৫ সালে এটির প্রতিষ্ঠা হয়। এই কোম্পানির মূল্যমান ১৮ দশমিক ৩ বিলিয়ন মার্কিন ডলার।

পিনটারেস্ট
পিনটারেস্ট একটি ওয়েব এবং মোবাইল অ্যাপ্লিকেশন কোম্পানি, যারা সফটওয়্যার সিস্টেমের নকশা করে, যাতে তথ্য উদঘাটন করা যায় পুরো বিশ্বের ওয়েব থেকে৷ এজন্য তারা ছবি, গিফ এবং ভিডিও ব্যবহার করে। এর মূল্যমান ১২ দশমিক ৩ বিলিয়ন মার্কিন ডলার। ২০০৮ সালে সানফ্রান্সিস্কোতে এটির প্রতিষ্ঠা হয়।

নিউজবাংলাদেশ.কম/এনডি

নিউজবাংলাদেশ.কমে প্রকাশিত যে কোনও প্রতিবেদন, ছবি, লেখা, রেখাচিত্র, ভিডিও-অডিও ক্লিপ অনুমতি ছাড়া অন্য কোনও মাধ্যমে প্রকাশ, প্রচার করা কপিরাইট আইনে দণ্ডনীয়।
আপনার মন্তব্য