artk
৫ ভাদ্র ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, সোমবার ২০ আগস্ট ২০১৮, ৮:৫৩ অপরাহ্ন

শিরোনাম

হকার বসবে, এটা আমার নির্দেশ: শামীম ওসমান

জেলা সংবাদদাতা | নিউজবাংলাদেশ.কম
প্রকাশ: ২১৩১ ঘণ্টা, সোমবার ১৫ জানুয়ারি ২০১৮


হকার বসবে, এটা আমার নির্দেশ: শামীম ওসমান - রাজনীতি

নারায়ণগঞ্জ শহরে হকারদের বসার নির্দেশ দিয়েছেন সরকারদলীয় এমপি শামীম ওসমান। তিনি বলেছেন, “এটা আমার কোনো হুকুম বা আদেশ না, এটা আমার নির্দেশ।”

সোমবার বিকেলে শহরের চাষাঢ়ায় সলিমুল্লাহ সড়কে হকারদের সমাবেশে তিনি ওই নির্দেশ দেন। সেখানে কয়েক হাজার হকার ও তাদের পরিবারের লোকজন বিভিন্ন ধরনের প্লেকার্ড ও ফেস্টুন নিয়ে হাজির হন। তারা পুনর্বাসনের আগে ফুটপাতে বসার দাবি তোলেন।

শামীম ওসমান বলেন, “প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কাউকে না খাইয়ে রাখার রাজনীতি করেন না। দেশের প্রতিটি মানুষের মুখে খাবার তুলে দেয়ার রাজনীতি করেন তিনি। সেই নেত্রীর দেশে এভাবে হকারদের পেঠে লাথি মারা হবে সেটা সহ্য করা হবে না।”

বক্তব্যের শুরুতেই শামীম ওসমান বলেন, “যারা ক্ষুধার জ্বালা বুঝবে না তারাই হকারদের উচ্ছেদ করে। আমিও চাই না ফুটপাতে হকার থাকুক। কিন্তু এভাবে হকার উচ্ছেদ উচিত না। অন্তত ২ মাস আগে তাদের নোটিশ দেয়া প্রয়োজন ছিল না।”

শামীম ওসমান বলেন, “আমার বড় ভাই সেলিম ওসমান চিঠি দিয়েছিলেন। সিটি করপোরেশনের কর্মচারী দিয়ে উত্তর দিয়ে দিবেন এটা হতে পারে না। উনি ভদ্র মানুষ। কিন্তু আমি সেলিম ওসমান না আমি শামীম ওসমান এটা মনে রাখতে হবে।”

তিনি বলেন, “আমি শামীম ওসমান নির্দেশ দিলাম ১৬ জানুয়ারি বিকেল ৫টা হতে শহরে হকার বসবে। আর আগামী ২১ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত প্রতিদিন বিকেল ৫টা হতে রাত ১০টা পর্যন্ত হকার বসবে একটি নিয়ম শৃঙ্খলার মধ্য দিয়ে। এর মধ্যে তাদের বিকল্প ব্যবস্থা করতে হবে।”

পুলিশের উদ্দেশে তিনি বলেন, “আমি পুলিশ প্রশাসনকে বলতে চাই, কোনো পুলিশ লাথি তো দূরের কথা গালিও দিতে পারবেন না। আর হকারদের বলবো যদি আমাদের কেউ মারধর করে মার খাবেন তার পর দেখবেন শামীম ওসমান এর পাল্টা জবাব কী নেয়। এটা আমার কোনো হুকুম বা আদেশ না এটা আমার নির্দেশ। হকারদের বিকল্প ব্যবস্থা না করে যদি উঠানোর চেষ্টা করেন তাহলে সেটা হবে শামীম ওসমানের মৃত্যুর পর মৃত্যুর আগে না।”

ফুটপাত দখলমুক্ত করতে হকারদের সরে যেতে বলেছে নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন। 

নিউজবাংলাদেশ.কম/এনডি

নিউজবাংলাদেশ.কমে প্রকাশিত যে কোনও প্রতিবেদন, ছবি, লেখা, রেখাচিত্র, ভিডিও-অডিও ক্লিপ অনুমতি ছাড়া অন্য কোনও মাধ্যমে প্রকাশ, প্রচার করা কপিরাইট আইনে দণ্ডনীয়।
আপনার মন্তব্য
এই বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত