artk
৪ পৌষ ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, সোমবার ১৮ ডিসেম্বর ২০১৭, ১২:৪২ অপরাহ্ন

শিরোনাম

অনশনে যাচ্ছেন সহকারী শিক্ষকরা

স্টাফ রিপোর্টার | নিউজবাংলাদেশ.কম
প্রকাশ: ২০০৫ ঘণ্টা, বুধবার ০৬ ডিসেম্বর ২০১৭ || সর্বশেষ সম্পাদনা: ২২৪২ ঘণ্টা, বুধবার ০৬ ডিসেম্বর ২০১৭


অনশনে যাচ্ছেন সহকারী শিক্ষকরা - শিক্ষাঙ্গন

প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকদের বেতন এক ধাপ বৃদ্ধির প্রস্তাবের কথা শুনে অনশনে যাচ্ছেন সহকারী শিক্ষকরা। কারণ প্রধান শিক্ষককের বেতন আরেক ধাপ বৃদ্ধি পেলে চার ধাপ নিচে পড়ে যাবেন সহকারী শিক্ষকরা। বর্তমানে তারা প্রধান শিক্ষকের চেয়ে তিন ধাপ নিচে বেতন পাচ্ছেন। একে চরম বৈষম্য ও হতাশার বলে মনে করছেন তারা।

প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতর (ডিপিই) থেকে প্রধান শিক্ষকদের বেতন বাড়ানোর প্রস্তাব গত সপ্তাহে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়েছে। ডিপিই মহাপরিচালক ড. আবু হেনা মোস্তফা কামাল গত ৩০ নভেম্বর অধিদপ্তরে অনুষ্ঠিত গণশুনানিতে এ কথা জানান।

ডিপিইর সুপারিশ ও প্রস্তাব অনুসারে প্রধান শিক্ষকদের বেতন ১০ ও ১১ গ্রেডে উন্নীত হলে সহকারী শিক্ষকদের সাথে বেতনবৈষম্য আরেক ধাপ (চার ধাপ) বৃদ্ধি পাবে বলে শঙ্কা প্রকাশ করেছেন সহকারী শিক্ষকেরা।

প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা অনুসারে প্রধান শিক্ষকদের দ্বিতীয় শ্রেণীর মর্যাদা দেয়া হলেও বেতন স্কেল সমমর্যাদার না করার ওই সুপারিশ ও প্রস্তাব মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়েছে বলে ডিপিই সূত্রে বলা হয়েছে। এর আগে গত ১৫ নভেম্বর অর্থ মন্ত্রণালয় থেকে প্রধান শিক্ষকদের উন্নীত বেতন স্কেলে প্রদান করে জিও রাজি করে।

আবারো তাদের বেতন স্কেল বাড়ানোর প্রস্তাবে সহকারী শিক্ষকেরা হতাশা ও ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। সহকারী শিক্ষক নেতারা ৩০ নভেম্বর গণশুনানিতে ডিপিইর মহাপরিচালকের কাছে পরবর্তী এক সপ্তাহের মধ্যে সহকারী শিক্ষকদের বেতন স্কেল প্রধান শিক্ষকদের এক ধাপ নিচে নির্ধারণের প্রস্তাব মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হবে কি না জানতে চান। ডিপিইর ডিজি এ ব্যাপারে সরাসরি কোনো উত্তর দেননি।

কিছু দিন আগেও প্রধান শিক্ষক ও সহকারী শিক্ষকেরা সমমর্যাদার (তৃতীয় শ্রেণীর কর্মচারী) ছিলেন। প্রাথমিক শিক্ষা জাতীয়করণের শুরু থেকেই সহকারী শিক্ষকের বেতন স্কেল প্রধান শিক্ষকের একধাপ নিচে ছিল। ২৯ আগস্ট ২০০৬ সাল থেকে সহকারী শিক্ষকদের বেতন স্কেল প্রধান শিক্ষকদের দুই ধাপ নিচে নির্ধারণ করা হয়। এ ধারা এখনো বিরাজমান। সর্বশেষ ২০১৫ সালে অষ্টম ও সর্বশেষ পে-স্কেলেও এ ধাপ বজায় রাখা হয়।

প্রধান শিক্ষকের এক ধাপ নিচে বেতন স্কেল নির্ধারণের দাবিতে সহকারী শিক্ষকরা জোটবদ্ধ হয়েছেন এবং আগামী ২৩ ডিসেম্বর কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে অনশন কর্মসূচি শুরুর ব্যাপারে একমত ও চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন। আগামী কয়েক দিনের মধ্যেই এ ব্যাপারে আনুষ্ঠানিক ঘোষণা আসবে।

এ বিষয়ে গত ৩০ নভেম্বর ও পয়লা ডিসেম্বর সহকারী শিক্ষক সংগঠনগুলোর নেতাদের বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে।

নিউজবাংলাদেশ.কম/এনডি

নিউজবাংলাদেশ.কমে প্রকাশিত যে কোনও প্রতিবেদন, ছবি, লেখা, রেখাচিত্র, ভিডিও-অডিও ক্লিপ অনুমতি ছাড়া অন্য কোনও মাধ্যমে প্রকাশ, প্রচার করা কপিরাইট আইনে দণ্ডনীয়।
আপনার মন্তব্য