artk
৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, বৃহস্পতিবার ২৩ নভেম্বর ২০১৭, ১২:৩৬ পূর্বাহ্ণ

শিরোনাম

একজন শিশুমনা হুমায়ূন আহমেদের গল্প

বিনোদন প্রতিবেদক | নিউজবাংলাদেশ.কম
প্রকাশ: ১৩২৪ ঘণ্টা, সোমবার ১৩ নভেম্বর ২০১৭ || সর্বশেষ সম্পাদনা: ১৯৩৯ ঘণ্টা, সোমবার ১৩ নভেম্বর ২০১৭


একজন শিশুমনা হুমায়ূন আহমেদের গল্প - বিনোদন
ফাইল ফটো

আমি বলবো মানুষটা ভেতরে ভেতরে প্রচন্ড শিশু ছিলেন। ৯০ সালের কথা, আমরা তখন ময়মনসিংহে অয়োময়ের শুটিং করছি। সেখানে আমার কস্টিউম ছিল দাঁড়ি। আমি দাঁড়ি লাগালাম। সে এসে আমাকে দেখে হেসে গড়াগড়ি খাওয়ার অবস্থা। এরপর হাসি থামিয়ে মেকাপম্যানকে ডাকলেন। মেকাপম্যান এলে তিনি জানালেন তিনিও এরকম নকল দাঁড়ি মোচ লাগাতে চান। এরপর তাকে নকল দাঁড়ি মোচ লাগিয়ে দেয়া হলো। আয়নায় নিজেকে দেখে আবার শুরু হয় তার হাসি। ওদিনের শুটিং আমাদের দাঁড়ি আর হাসিতেই শেষ হয়।

প্রয়াত কথাসাহিত্যিক হুমায়ূন আহমেদের ৬৯ তম জন্মদিনে নিউজবাংলাদেশের কাছে এভাবেই স্মৃতিচারণ করেন খ্যাতিমান অভিনেতা আবুল হায়াত।

তিনি বলেন, অসম্ভব খেয়ালি ছিল মানুষটা। আবার কাজের সময় ভীষণ সিরিয়াস। একবার আমরা সাভারে শুটিং করছি। হঠাত বৃষ্টি নামলো। যে যার মতো বৃষ্টি থেকে বাঁচার জন্য আশ্রয় নিলাম গাড়িতে। হঠাত আবিষ্কার করলাম হুমায়ূন আহমেদ নেই। এরপর তাকে আবিষ্কার করলাম একটা গাছের নিচে। সেখানে দাঁড়িয়ে একা একা বৃষ্টিতে ভিজছে। এই হলো হুমায়ূন আহমেদ।

আবুল হায়াতের কাছে হুমায়ুনের সবচেয়ে অসাধারণ সৃষ্টি ছোট গল্প। আবুল হায়াত জানান, এখনো নিয়ম করে রোজ হুমায়ূন আহমেদের ছোটগল্প রোজ পড়েন তিনি।

নিউজবাংলাদেশ.কম/আরআরবি/এমএস

নিউজবাংলাদেশ.কমে প্রকাশিত যে কোনও প্রতিবেদন, ছবি, লেখা, রেখাচিত্র, ভিডিও-অডিও ক্লিপ অনুমতি ছাড়া অন্য কোনও মাধ্যমে প্রকাশ, প্রচার করা কপিরাইট আইনে দণ্ডনীয়।
আপনার মন্তব্য