artk
৮ কার্তিক ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, সোমবার ২৩ অক্টোবর ২০১৭, ৬:২৫ পূর্বাহ্ণ

শিরোনাম

নিষেধাজ্ঞার ফল ভালো হবে না: মিয়ানমার

বিদেশ ডেস্ক | নিউজবাংলাদেশ.কম
প্রকাশ: ২০০৩ ঘণ্টা, বৃহস্পতিবার ১২ অক্টোবর ২০১৭


নিষেধাজ্ঞার ফল ভালো হবে না: মিয়ানমার - বিদেশ

রোহিঙ্গা ইস্যুতে মিয়ানমারের ওপর যে কোনো ধরনের নিষেধাজ্ঞা জারি করা হলে তার ফল ভালো হবে না বলে মনে করছে মিয়ানমার। এতে জাতিগত শান্তি প্রক্রিয়াও নষ্ট হতে পারে বলেও আশঙ্কা তাদের।

রোহিঙ্গা ইস্যুতে যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ) মিয়ানমারের ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করতে পারে, এমন আশঙ্কা থেকেই এ কথা বলেছেন দেশটির কর্মকর্তারা।

দেশটির প্রভাবশালী সংবাদমাধ্যম মিয়ানমার টাইমসে এ নিয়ে পরিকল্পনা ও অর্থ মন্ত্রণালয়ের সচিব ইউ তুন তুন নাইং, রাষ্ট্রীয় উপদেষ্টার কার্যালয়ের মুখপাত্র ইউ জ্য হতেই এবং ক্ষমতাসীন রাজনৈতিক দল ন্যাশনাল লিগ ফর ডেমোক্রেসির (এনএলডি) অর্থনৈতিক উপদেষ্টা ইউ ইয়ে মিনের প্রতিক্রিয়া তুলে ধরা হয়েছে।

আগস্টে সেনা অভিযানের নামে নৃশংসতার বলি হয়ে এখন পর্যন্ত প্রায় ৬ লাখ রোহিঙ্গা বাংলাদেশে পালিয়ে এসেছে। সেনাবাহিনী রোহিঙ্গাদের দুই শতাধিক গ্রাম জ্বালিয়ে দিয়েছে। প্রায় ৪ হাজার রোহিঙ্গাকে হত্যা করেছে এবং নারীরা তাদের হাতে ধর্ষণের শিকার হয়েছে। জাতিসংঘসহ বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সংস্থা এটাকে জাতিগত নিধনযজ্ঞ বলে অভিহিত করেছে। তবে সব ধরনের অভিযোগ অস্বীকার করেছে মিয়ানমার।

রোহিঙ্গা মুসলিমদের ওপর নির্যাতনের ঘটনায় আন্তর্জাতিক মহল ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছে। যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোপীয় ইউনিয়ন দেশটির সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে অস্ত্র নিষেধাজ্ঞাসহ প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেয়ার ঘোষণা দিয়েছে।

এ পরিপ্রেক্ষিতে দেশটির পরিকল্পনা ও অর্থ মন্ত্রণালয়ের সচিব ইউ তুন তুন নাইং মিয়ানমার টাইমসকে বলেন, “মিয়ানমারের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা আরোপের গুজব ছড়িয়ে পড়েছে। এটা ভালো কোনো লক্ষণ নয়। নিষেধাজ্ঞা আরোপের অর্থ হচ্ছে কোনো দেশকে অর্থনৈতিকভাবে অন্য দেশের সঙ্গে প্রতিযোগিতায় বাধা দেয়া। তারা আমাদের অবাধ ব্যবসা-বাণিজ্যের অধিকার ও দেশের সঠিক উন্নয়নে বাধা দিচ্ছে এবং এটা ভালো কিছু নয়।”

নিষেধাজ্ঞার ফলে জাতিগত শান্তি প্রক্রিয়া নষ্ট হতে পারে বলে তিনি আশঙ্কা প্রকাশ করেন। বলেন, “বিভিন্ন জাতিগত গোষ্ঠীগুলোর মধ্যে শান্তি প্রক্রিয়া নিয়ে দেশটিকে পেছনের দিকে ঠেলে দিতে পারে। এটি দেশে প্রত্যক্ষ বিদেশি বিনিয়োগ ও অভ্যন্তরীণ অর্থনৈতিক সংস্কারের ওপর নেতিবাচক প্রভাব ফেলতে পারে।”

রাষ্ট্রীয় উপদেষ্টার কার্যালয়ের মুখপাত্র ইউ জ্য হতেই বলেন, “যে কোনো ধরনের নিষেধাজ্ঞাই আমাদের গণতন্ত্রের রূপান্তর, অভ্যন্তরীণ শান্তি ও জনগণের জীবনযাত্রার মান উন্নয়নের প্রচেষ্টাকে ক্ষতিগ্রস্ত করবে, পশ্চিমাদের এটা করা উচিত হবে না।”

ক্ষমতাসীন রাজনৈতিক দল- ন্যাশনাল লিগ ফর ডেমোক্রেসির (এনএলডি) অর্থনৈতিক উপদেষ্টা ইউ ইয়ে মিন বলেন, “মিয়ানমার সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করলে তা অভ্যন্তরীণ বিভাজন ও অনৈক্য ডেকে আনতে পারে।”

নিউজবাংলাদেশ.কম/এনডি

নিউজবাংলাদেশ.কমে প্রকাশিত যে কোনও প্রতিবেদন, ছবি, লেখা, রেখাচিত্র, ভিডিও-অডিও ক্লিপ অনুমতি ছাড়া অন্য কোনও মাধ্যমে প্রকাশ, প্রচার করা কপিরাইট আইনে দণ্ডনীয়।
আপনার মন্তব্য
এই বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত