artk
৮ কার্তিক ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, সোমবার ২৩ অক্টোবর ২০১৭, ৬:৩৭ পূর্বাহ্ণ

শিরোনাম

খালেদার বিরুদ্ধে আরো ২ মামলায় গ্রেপ্তারি পরোয়ানা

স্টাফ রিপোর্টার | নিউজবাংলাদেশ.কম
প্রকাশ: ১৩০৭ ঘণ্টা, বৃহস্পতিবার ১২ অক্টোবর ২০১৭ || সর্বশেষ সম্পাদনা: ২০৩১ ঘণ্টা, বৃহস্পতিবার ১২ অক্টোবর ২০১৭


খালেদার বিরুদ্ধে আরো ২ মামলায় গ্রেপ্তারি পরোয়ানা - কোর্ট-কাচারি
ফাইল ফটো

দুর্নীতি ও জাতীয় পতাকার মানহানির অভিযোগে করা পৃথক দুটি মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেছে আদালত।

মামলা দুটির শুনানিতে হাজির না হওয়ায় বৃহস্পতিবার এই পরোয়না জারি করা হয়।

এর আগে কুমিল্লার একটি হত্যা মামলায় খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করা হয়।

ঢাকার পঞ্চম বিশেষ জজ মো. আখতারুজ্জামানের আদালতে বিচারাধীন জিয়া এতিমখানা ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলার শুনানিতে হাজির না হওয়ায় বৃহস্পতিবার খালেদার বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারির আদেশ দেন বিচারক।

অন্যদিকে স্বাধীনতাবিরোধীদের গাড়িতে জাতীয় পতাকা তুলে দিয়ে দেশের মানচিত্র এবং জাতীয় পতাকার মানহানি করার অভিযোগে করা আরেক মামলায়ও হাজির না হওয়ায় সাবেক এই প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেন ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট নূর নবী গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেন।

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া কয়েক মাস ধরে লন্ডনে অবস্তান করছে। তার আইনজীবী সানাউল্লাহ মিয়া বলেন, “তিনি যাতে দেশে আসতে না পারেন, সেজন্য ইচ্ছাকৃতভাবে এক দিনে দুই মামলায় সরকার গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করিয়েছে।”

এর আগে মঙ্গলবার কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে দুই বছর আগে বিএনপির আন্দোলনের সময় বাসে পেট্রোল বোমা মেরে আটজনকে পুড়িয়ে হত্যার অভিযোগে বিস্ফোরক আইনের মামলায় খালেদা জিয়াসহ অন্য ‘পলাতক’ আসামিদের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করা হয়।

জাতীয় পতাকার অবমাননার মামলাটি করেন আওয়ামীপন্থি সংগঠন জননেত্রী পরিষদের সভাপতি এ বি সিদ্দিকী। এই মামলায় এর আগে আদালত সমন জারি করে। এর পরও খালেদা জিয়া আদালতে হাজির না হওয়ায় বৃহস্পতিবার গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করা হয়।

২০১৬ সালের ৩ নভেম্বর ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে এবি সিদ্দিকী মানহানির মামলাটি করেন। এই মামলার আর্জিতে বলা হয়, স্বাধীনতাবিরোধীদের গাড়িতে জাতীয় পতকা তুলে দিয়ে খালেদা জিয়া দেশের মানচিত্র এবং জাতীয় পতাকার মানহানি ঘটিয়েছেন।

গত ২২ মার্চ আদালত মামলার প্রতিবেদন আমলে নিয়ে ২০ এপ্রিল খালেদা জিয়াকে আদালতে হাজির হতে নির্দেশ দেন। এরপরও খালেদা জিয়া হাজির হননি। তাই তার বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারির আবেদন করেছিলেন এ বি সিদ্দিকী।

নিউজবাংলাদেশ.কম/এফএ

নিউজবাংলাদেশ.কমে প্রকাশিত যে কোনও প্রতিবেদন, ছবি, লেখা, রেখাচিত্র, ভিডিও-অডিও ক্লিপ অনুমতি ছাড়া অন্য কোনও মাধ্যমে প্রকাশ, প্রচার করা কপিরাইট আইনে দণ্ডনীয়।
আপনার মন্তব্য
এই বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত