artk
৮ কার্তিক ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, সোমবার ২৩ অক্টোবর ২০১৭, ৬:৩৭ পূর্বাহ্ণ

শিরোনাম

অনুমোদিত বই ছাড়া শিশুদের ব্যাগে অন্য কিছু আনা যাবে না

স্টাফ রিপোর্টার | নিউজবাংলাদেশ.কম
প্রকাশ: ২১৪৫ ঘণ্টা, মঙ্গলবার ১০ অক্টোবর ২০১৭ || সর্বশেষ সম্পাদনা: ০৮০৬ ঘণ্টা, বুধবার ১১ অক্টোবর ২০১৭


অনুমোদিত বই ছাড়া শিশুদের ব্যাগে অন্য কিছু আনা যাবে না - শিক্ষাঙ্গন

প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের ব্যাগে সরকার অনুমোদিত বই ও উপকরণ ছাড়া অন্য কিছু বিদ্যালয়ে না আনতে নির্দেশ দিয়েছে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর। মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক, আট বিভাগের প্রাথমিক শিক্ষার বিভাগীয় উপপরিচালক, জেলা, উপজেলা ও থানা শিক্ষা কর্মকর্তা এবং প্রাইমারি টিচার্স ট্রেনিং ইনস্টিটিউটের সুপারিনটেনডেন্টদের এ নির্দেশনা দেয়া হয়।

অধিদপ্তরের মহাপরিচালক মো. আবু হেনা মোস্তাফা কামালের স্বাক্ষরিত এক পরিপত্রে এসব কথা নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।

পরিপত্রে বলা হয়েছে, জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ড প্রাথমিক বিদ্যালয়গামী শিশুদের জন্য যে সব বই অনুমোদন করেছে তা পরিবহনে কোনো ছেলে-মেয়ের সমস্যা হওয়ার কথা নয়। যেসব ছাত্র-ছাত্রী ব্যাগে বই বহন করে বিদ্যালয়ে আসা-যাওয়া করে, হাই কোর্টের রায় অনুযায়ী, তার ওজন বিদ্যালয়ে অধ্যয়নরত শিশুর ওজনের ১০ শতাংশের বেশি যেন না হয় সে বিষয়ে সতর্ক হওয়া বাঞ্ছনীয়।

ভারী ব্যাগ বহনের কারণে যাতে পিঠে ব্যথা বা সোজা হয়ে দাঁড়ানোর মতো সমস্যা দেখা না দেয়, সেজন্য অনুমোদিত বই ও উপকরণ ছাড়া অন্য কিছু ব্যাগে করে বিদ্যালয়ের বয়ে আনতে নিরুৎসাহিত করতে হবে। তাই ব্যাগের ওজন ১০ শতাংশের বেশি যাতে না হয়, তা নিশ্চিত করতে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক, পরিচালনা পর্ষদ এবং অভিভাবকদের বলা হয়েছে।

এর আগে গত বছরের ৭ ডিসেম্বর প্রাথমিকে শিশুর শরীরের ১০ শতাংশের বেশি ওজনের ব্যাগ বহন নিষিদ্ধ করতে ছয় মাসের মধ্যে আইন প্রণয়নের নির্দেশ দেয় হাই কোর্ট। একইসঙ্গে ১০ শতাংশের বেশি ওজনের ব্যাগ বহন না করতে এবং করাতে বাংলা ও ইংরেজি মাধ‌্যমের সকল স্কুলে ৩০ দিনের মধ্যে একটি নির্দেশনা জারি করতেও প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়কে নির্দেশ দেয়া হয়েছিল।

নিউজবাংলাদেশ.কম/এসজে/এএইচকে

নিউজবাংলাদেশ.কমে প্রকাশিত যে কোনও প্রতিবেদন, ছবি, লেখা, রেখাচিত্র, ভিডিও-অডিও ক্লিপ অনুমতি ছাড়া অন্য কোনও মাধ্যমে প্রকাশ, প্রচার করা কপিরাইট আইনে দণ্ডনীয়।
আপনার মন্তব্য
এই বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত