artk
১০ আশ্বিন ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, সোমবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ৩:৫৬ অপরাহ্ন

শিরোনাম

খালেদা জিয়ার বিদেশের সম্পদের খোঁজ চলছে: হাসিনা

স্টাফ রিপোর্টার | নিউজবাংলাদেশ.কম
প্রকাশ: ২০৩৬ ঘণ্টা, বুধবার ১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৭


খালেদা জিয়ার বিদেশের সম্পদের খোঁজ চলছে: হাসিনা - জাতীয়

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার বিদেশে যেসব সম্পদ আছে, তা খুঁজে বের করে বাংলাদেশে ফিরিয়ে আনার ঘোষণা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বুধবার জাতীয় সংসদে জাতীয় পার্টির ফখরুল ইমামের এক প্রশ্নের উত্তরে তিনি এ ঘোষণা দেন।

একটি বিদেশি সংস্থার প্রতিবেদন থেকে খালেদা জিয়াসহ বিএনপি নেতাদের বিদেশে সম্পত্তির ফিরিস্তি তুলে ধরেন এবং এ বিষয়ে সরকারের পদক্ষেপ জানতে চান ফখরুল ইমাম।

ফখরুল ইমাম জানান, অন্তত ১২টি দেশে জিয়া পরিবারের সম্পদ আছে, যার প্রাক্কলিত মূল্য এক হাজার ২০০ কোটি টাকা। সৌদি আরবে জনৈক আহম্মদ আল আসাদের নামে আল আরাফা শপিং মলটির মালিক হলেন বেগম জিয়া। কাতারে বহুতল বাণিজ্যক ভবন ‘টিপরা’র মালিকও উনি।

উত্তরে প্রধানমন্ত্রী বলেন, “তথ্যগুলো যখন বের হয়েছে, তখন নিশ্চয়ই আমাদের কাছে তা আছে। এটা নিয়ে তদন্ত চলছে। তাছাড়া বাংলাদেশ ব্যাংকের অধীনে মানি লন্ডারিংয়ের জন্য একটি তদন্তের ব্যবস্থা আছে। সেই সূত্রেও তদন্ত করা হচ্ছে। এই তদন্তেরর মধ্য দিয়ে সত্যতা যাচাই করে যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।”

ফখরুল ইমাম দাবি করেন, কাতারে বহুতল বাণিজ্যিক ভবন ‘ইকরা’র মালিক খালেদা জিয়ার ছেলে প্রয়াত আরাফাত রহমান কোকো। খালেদা জিয়ার ভাগ্নে তুহিনের নামে কানাডায় তিনটি বাড়ি রয়েছে।

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন সিঙ্গাপুরের মেরিনা বে হোটেল অ্যান্ড রিসোর্টের ১৩ হাজার শেয়ারের মালিক। সিঙ্গাপুরে তার দুটি বিলাসবহুল অ্যাপার্টমেন্ট রয়েছে। মালয়েশিয়ায় রয়েছে তিনটি অ্যাপার্টমেন্ট।

লন্ডনে বিএনপি নেতা ও সাবেক মন্ত্রী মওদুদ আহমদ ও আমিনুল হকের অ্যাপার্টমেন্ট রয়েছে। মির্জা আব্বাসের স্ত্রী ও সন্তানের নামে দুবাই ও সিঙ্গাপুরে অ্যাপার্টমেন্ট আছে। মালয়েশিয়ায় আফরোজা আব্বাসের নামে ‘সিটি সেন্টার-২’ এ তিনটি ২৫০০ বর্গফুটের বাণিজ্যিক জায়গা আছে। বিএনপির স্থায়ী কমিটির আরেক সদস্য নজরুল ইসলাম খানের সিঙ্গাপুরে অ্যাপার্টমেন্ট আছে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, “জনগণের সম্পদ লুটেরাদের বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা নেয়া হবে। তদন্ত করে নিশ্চিত হলেই ব্যবস্থা নেব, নিশ্চয়ই তা ফেরত আনার ব্যবস্থা নেব।”

নিউজবাংলাদেশ.কম/এনডি

নিউজবাংলাদেশ.কমে প্রকাশিত যে কোনও প্রতিবেদন, ছবি, লেখা, রেখাচিত্র, ভিডিও-অডিও ক্লিপ অনুমতি ছাড়া অন্য কোনও মাধ্যমে প্রকাশ, প্রচার করা কপিরাইট আইনে দণ্ডনীয়।
আপনার মন্তব্য
এই বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত