artk
২ পৌষ ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, শনিবার ১৬ ডিসেম্বর ২০১৭, ৩:০৮ অপরাহ্ন

শিরোনাম

তাল আফারে স্থলযুদ্ধ শুরু করেছে ইরাকি বাহিনী

বিদেশ ডেস্ক | নিউজবাংলাদেশ.কম
প্রকাশ: ১০৫০ ঘণ্টা, রোববার ২০ আগস্ট ২০১৭ || সর্বশেষ সম্পাদনা: ১৫৩৯ ঘণ্টা, রোববার ২০ আগস্ট ২০১৭


তাল আফারে স্থলযুদ্ধ শুরু করেছে ইরাকি বাহিনী - বিদেশ

ইরাকি বাহিনী ইসলামিক স্টেট গ্রুপের দখল থেকে নিজেদের নিয়ন্ত্রণে নিতে তাল আফার শহরে অভিযান শুরু করেছে।

আক্রমণের ঘোষণা দিয়ে টেলিভিশন ভাষণে দেশটির প্রেসিডেন্ট হায়দার আল এবাদি বলেছেন, জিহাদিদের জন্য বিকল্প ‘আত্মসমর্পণ অথবা মৃত্যু’।

সেনাবাহিনী জুলাই মাসে ৫৫ কিলোমিটার পূর্বে আইএসের প্রধান দুর্গ মসুলে নিয়ন্ত্রণ প্রতিকষ্ঠার পর তাল আফার উদ্ধারের লক্ষ্য নিয়েছে।

শিয়া অধ্যুষিত তাল আফার ২০১৪ আইএসের দখলে যায়। এটা মসুল এবং জিহাদিদের সরবরাহ রুট সিরীয় সীমান্তের মধ্যে একটি গুরুত্পূর্ণ সড়কে পড়েছে।

স্থল অভিযানের প্রস্তুতি হিসেবে বেশ কিছুদিন শহরে আইএসের অবস্থানে ইরাকি যুদ্ধ বিমান থেকে বোমা ছুড়ে মারা হয়।

রোববার এবাদি কালো সামরিক পোশাক পরে ইরাকি পতাকা ও মানচিত্রের সামনে দাড়িয়ে তাল আফার মুক্ত করতে অভিযানের ঘোষণা দেন।

তিনি বলেন, আমি দায়েশের (আইএস) উদ্দেশে বলছি, আত্মসমর্পণ অথবা মৃত্যু ছাড়া কোনো বিকল্প নেই।

এর কয়েক ঘণ্টা আগে সর্বশেষ আক্রমণের প্রস্তৃতির জন্য সতর্ক করে শহরে এবাদির বিবৃতির লিফলেট ফেলে বিমানবাহিনী।

ইরাকি বাহিনী আইএসের চেয়েও শক্তিশালী প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টির আশা করছে, যদিও সাম্প্রতিক বিমান হামলা ও তাজা রসদ সরবরাহের অভাবে দুর্বল হয়ে গেছে।

গত মাসে একজন সিনিয়র ইরাকি কমান্ডার বলেছেন, ১৫শ থেকে দুই হাজার জঙ্গি ছিল এবং তাদের পরিবারের সদস্যদের শহরে ফেলে গিয়েছে।

মেজর জেনারেল নাজম আল জাবরি রয়টার্সকে বলেছেন, জিহাদিরা বিতাড়িত এবং হতোদ্যম হয়ে গিয়েছে। তিনি মসুলের মতো শক্ত প্রতিরোধ যুদ্ধ করার আশা করেননি।

তিনি আরো বলেন, এখানে মাত্র একটা অংশ মসুলের প্রাচীন শহরের মতো সরু রাস্তা। এপ্রিলে ৪৯ হাজার লোক পালিয়ে যাওয়ার পর তাল আফারে কিছু বেসামরিক লোক থাকতে পারে।

নিউজবাংলাদেশ.কম/এফএ

নিউজবাংলাদেশ.কমে প্রকাশিত যে কোনও প্রতিবেদন, ছবি, লেখা, রেখাচিত্র, ভিডিও-অডিও ক্লিপ অনুমতি ছাড়া অন্য কোনও মাধ্যমে প্রকাশ, প্রচার করা কপিরাইট আইনে দণ্ডনীয়।
আপনার মন্তব্য
এই বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত