artk
৫ ভাদ্র ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, রোববার ২০ আগস্ট ২০১৭, ১১:২৩ অপরাহ্ন

শিরোনাম

১৪ শিয়ার মৃত্যুদণ্ড ঠেকাতে সৌদি বাদশাহকে নোবেলজয়ীদের চিঠি

বিদেশ ডেস্ক | নিউজবাংলাদেশ.কম
প্রকাশ: ২২৩২ ঘণ্টা, শনিবার ১২ আগস্ট ২০১৭ || সর্বশেষ সম্পাদনা: ১১০৪ ঘণ্টা, রোববার ১৩ আগস্ট ২০১৭


১৪ শিয়ার মৃত্যুদণ্ড ঠেকাতে সৌদি বাদশাহকে নোবেলজয়ীদের চিঠি - বিদেশ

সৌদি আরবের শিয়া অধ্যূষিত পূর্বাঞ্চলীয় প্রদেশ কাটিফে এক শিয়া বিদ্রোহের সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে ১৪ জন শিয়া মতাবলম্বীর মৃত্যুদণ্ড দেয়া হয়েছে। এদের বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ প্রত্যাহার করে এই দণ্ড মওকুফ করার জন্য আহ্বান জানিয়ে সৌদি বাদশাহর কাছে খোলা চিঠি দিয়েছেন দশ জন নোবেল পুরস্কার বিজয়ী।

১৪ জনের সবাই কাটিফ প্রদেশে বিক্ষোভের সঙ্গে যুক্ত ছিলেন বলে অভিযোগ আনা হয়।

চিঠিতে বাদশাহ সালমানের প্রতি এদের প্রতি অনুকম্পা প্রদর্শনের জন্য আহ্বান জানিয়েছেন ১০ জন নোবেল বিজয়ী।

মৃত্যুদণ্ড রদ করার আহ্বান জানিয়ে সৌদি বাদশাহ সালমানের কাছে লেখা খোলা চিঠিতে যারা সই করেছেন তাদের মধ্যে আর্চবিশপ ডেসমন্ড টুটু, ইরানের মানবাধিকার কর্মী শিরিন এবাদি এবং পূর্ব টিমুরের সাবেক প্রেসিডেন্ট জোসে রামোস হোর্তা রয়েছেন। খুব দ্রুতই এদের মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করা হবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল এবং হিউম্যান রাইটস ওয়াচ অভিযোগ করছে মৃত্যুদণ্ড প্রাপ্ত এই ১৪ জনের কাছ থেকে সৌদি কর্তৃপক্ষ জোর করে স্বীকোরোক্তি আদায় করে এবং তাদের কোন রকমের ন্যায্য বিচার পাওয়ার সুযোগ দেয়া হয়নি।

মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত ১৪ জনের একজন হচ্ছে মুজতাবা আল সোয়েইকা। ১৮ বছর বয়সী মুজতাবা যখন ২০১২ সালে যুক্তরাষ্ট্রের ওয়েস্টার্ন মিশিগান বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনার জন্য রওনা হচ্ছিলেন, তখন তাকে রিয়াদ বিমানবন্দর থেকে গ্রেপ্তার করা হয়। তার বিরুদ্ধে আনা অভিযোগের একটি হচ্ছে ফেসবুকে একটি গ্রুপ খুলে বিক্ষোভের ছবি শেয়ার করা।

এছাড়া নিমর আল নিমরকে সন্ত্রাসবাদের অভিযোগে মৃত্যুদণ্ড দেয়া হয়। আরেকজন আলী আল নিমর এর বিরুদ্ধে অভিযোগ নানা হয়েছে ব্ল্যাকবারিতে। তার অপরাধ হিসেবে একই রকম গ্রুপ খুলে বিক্ষোভের ছবি দিয়ে লোকজনকে বিক্ষোভে যোগ দিতে আমন্ত্রণ জানানোর কথা বলা হয়েছে।

গত জুলাইতে এই ১৪ জনের মৃত্যুদণ্ড বহাল রাখে সৌদি আরবের সুপ্রিম কোর্ট। ২০১১ সালে এই প্রদেশের আওয়ামিয়া শহরে আরব বসন্তের বিক্ষোভ শুরু হয়েছিল। এতে নেতৃত্ব দেয়া শিয়া নেতা নিমর আল নিমরের মৃত্যুদণ্ড গত বছর কার্যকর করা হয়।

উল্লেখ্য সৌদি আরব হচ্ছে বিশ্বের সেই সব দেশের অন্যতম যেখানে ব্যাপক হারে লোকজনকে মৃত্যুদণ্ড দেয়া হয়।

নিউজবাংলাদেশ.কম/এএইচকে

নিউজবাংলাদেশ.কমে প্রকাশিত যে কোনও প্রতিবেদন, ছবি, লেখা, রেখাচিত্র, ভিডিও-অডিও ক্লিপ অনুমতি ছাড়া অন্য কোনও মাধ্যমে প্রকাশ, প্রচার করা কপিরাইট আইনে দণ্ডনীয়।
আপনার মন্তব্য